প্রেমিকা ভেবেছিল প্রেমিক বড় অফিসার, পরে জানলেন...
প্রকাশ : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৭:১৬
প্রেমিকা ভেবেছিল প্রেমিক বড় অফিসার, পরে জানলেন...
নেত্রকোনা প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

প্রেমিকা নেত্রকোনা সরকারি কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী। ভেবেছিলেন প্রেমিক শরীফ বড় অফিসার। কিন্তু পরে জানতে পারেন প্রেমিক নাইট গার্ড! বুধবার (২৫ সেপ্টেম্বর) ঘটনাটি ঘটেছে নেত্রকোনা সদর উপজেলার মৌগাতি ইউনিয়নে।


জানা গেছে, পাঁচ বছর ধরে প্রেম করছেন ওই যুগল। কিন্তু মেয়েটি জানতো না যে, শরীফ নেত্রকোনা আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে নাইট গার্ডের চাকরি করে। নাইট গার্ডের চাকরি করলেও তার চলাফেরা বড় অফিসারদের মতো। দামি মোটরসাইকেল ব্যবহারে মেয়েটিকে ধোঁকায় ফেলে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে শরীফ। যে কারণে মেয়েটি ওই ছেলেকেই বিয়ে করতে চায়। কিন্তু শরীফ যখন খোঁজ পায় মেয়েটি অসচ্ছল পরিবারের তখন থেকে তার সঙ্গে শুরু করে খারাপ ব্যবহার।


এমনকি বিয়ে করবে না বলে অস্বীকার করে। এরই ধারাবাহিকতায় ছেলের ফোন বন্ধ পেয়ে মঙ্গলবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় শরীফের বন্ধু পাসপোর্ট অফিসের দালাল চাঁনখার মোড় এলাকার ফিরোজের মাধ্যমে মেয়ে খবর পায় শরীফ অফিসে। পরে সেখানে ছুটে আসলে তাকে মারধর করে তাড়িয়ে দেয়। এরপর শরীফ ওই মেয়ের বাড়িতে গেলে তাকে আটক করে পুলিশে দেয়া হয়।


এ ব্যাপারে নেত্রকোনা মডেল থানা পুলিশের ওসি মো. তাজুল ইসলাম বলেন, পাঁচ বছর ধরে প্রেম করছে ছেলে-মেয়ে। এখন তাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব দেখা দিয়েছে। মেয়ের বাড়িতে ছেলেকে আটকের পর থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়। মেয়েটি ছেলেকে বিয়ে করতে চায়। কিন্তু ছেলে চায় না। মেয়ের বিরুদ্ধে এসএমএস দেখাচ্ছিল ছেলে। এরপর দুই পক্ষ চেয়ারম্যানসহ অভিভাবকরা থানায় আসেন। উভয় পক্ষের কথা শুনে শরীফ রাজি হওয়ায় তাদের বিয়ে দেন দুই চেয়ারম্যান।


বিবার্তা/আবদাল

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com