নতুন বছরকে ঘিরে কিছু মজার প্রথা
প্রকাশ : ০১ জানুয়ারি ২০১৯, ১১:০১
নতুন বছরকে ঘিরে কিছু মজার প্রথা
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

নতুন বছরকে ঘিরে সকলেরই কিছু না কিছু চাওয়া বা স্বপ্ন থাকে। আর সেই স্বপ্ন পূরণকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন দেশে রয়েছে নানা প্রথা।


রইল সেরকম কিছু মজার প্রথার কথা:


ইতালি


ইতালিতে রোমান্টিক পুরুষরা তাদের প্রেমিকা বা স্ত্রীকে লাল রং’এর ব্রা-প্যান্টি উপহার দেন। আর এই লাল পোশাক পরে নারীরা সৌভাগ্যকে কাছে টানার আকাঙ্খায় নববর্ষকে বরণ করেন। তবে মজার ব্যাপার যে, এই অন্তর্বাস কিন্তু কেবল বছরের শেষ রাত বা একবার পরার জন্যই কেনা হয়। কারণ সেদেশের রীতি অনুযায়ী পরের দিন সকালেই এই পোশাক ফেলে দেয়া হয়।


চীন


চীনে কচি বাঁশগাছকে সৌভাগ্যের প্রতীক হিসেবে ধরা হয়ে থাকে এবং প্রিয়জনদের সৌভাগ্য কামনা করে এই ‘লাকি ব্যাম্বুস’ উপহার দিয়ে থাকেন। তবে চীনাদের বাঁশগাছ উপহার দেয়ার প্রভাব আজকাল জার্মানদের মধ্যে চোখে পড়ে। তাই নববর্ষের আগে জার্মানির ফুলের দোকানগুলোতে এই গাছ দেখা যায়।


ব্রাজিল


মধ্যরাতে সমুদ্র সৈকতগুলোতে হাজার হাজার ব্রাজিলীয় সাদা পোশাক পরে গোসল করেন, পানিতে ঝাঁপ দেন। পানিতে ঝাঁপের প্রতিটি তরঙ্গের সাথে নতুন বছরের জন্য কিছু কামনা করতে পারেন বলে বিশ্বাস করেন তারা। এছাড়া নববর্ষের আগের দিন ব্রাজিলীয়রা সাগরের দেবীকে সম্মান জানাতে পানিতে ফুল ছোড়েন এবং ঐতিহ্যগতভাবে নববর্ষকে বরণ করতে ব্রাজিলে সাদা পোশাক পরা হয়।


গ্রিস


নতুন বছরের জন্য একটি কেক বানানো হয় আর সে কেকের ভেতর দেয়া হয় এক পয়সার একটিমাত্র কয়েন। কেক খাওয়ার সময় কয়েনসহ কেকের টুকরোটি যার মুখে পড়বে, তাকেই সবচেয়ে সৌভাগ্যবান বলে মনে করেন গ্রিকরা।


জার্মানি


সৌভাগ্যের প্রতীক হিসেবে বহু জার্মান প্রিয়জনদের এক ধরনের পাতা গাছ উপহার দিয়ে থাকেন। এই পাতা গাছে সাধারণত তিন থেকে চারটি পাতা থাকে। তবে যার ভাগ্যে চারপাতার গাছ পড়ে, তার ভাগ্য ‘বেশি ভালো’ বলেই মনে করেন জার্মানরা।


স্পেন


৩১ ডিসেম্বর রাত ১২টা বাজার ঠিক ১২ মিনিট আগে যে ব্যক্তি ১২টা আঙুর খেতে পারবে, নতুন বছর তার জন্য সৌভাগ্য বয়ে আনবে বলে বিশ্বাস করেন স্প্যানিশরা। সূত্র: ডয়চে ভেলে


বিবার্তা/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com