হাতির জন্য প্রথম হাসপাতাল ভারতে
প্রকাশ : ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ০৯:২৮
হাতির জন্য প্রথম হাসপাতাল ভারতে
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

ভারতে এই প্রথম হাতির জন্য বিশেষ হাসপাতাল চালু হল উত্তর প্রদেশের মাথুরায়। ‘ওয়াইন্ড লাইফ এসওএস’ নামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার উদ্যোগে হাসপাতালটি তৈরি করা হয়েছে।


মাথুরার চুরমুরা এলাকার ফারহা গ্রামে এই বিশেষ হাসপাতালটি খোলা হয়েছে। অত্যাধুনিক এক্সরে মেশিন থেকে শুরু করে, লেজার ট্রিটমেন্ট, দন্ত চিকিৎসা, আল্ট্রাসোনোগ্রাফি, অপারেশন থিয়েটারসহ প্রায় সব রকম উন্নত পরিষেবা পাওয়া যাবে হাসপাতালটিতে।


হাসপাতালটিতে অসুস্থ ও আহত হাতিদের চিকিৎসার ব্যবস্থার সাথে থাকছে বৃদ্ধ হাতিদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থাও। উন্নত ও নিরাপদ প্রজননের সুব্যবস্থাও রয়েছে। পাশাপাশি শিক্ষানবিশ পশু চিকিৎসকদের হাতেকলমে কাজ শেখারও সুযোগ রয়েছে।


হাসপাতালটি তৈরি করার নেপথ্যে যে সংস্থাটি রয়েছে, সেই ওয়াইল্ডলাইফ এসওএস দীর্ঘদিন ধরেই ভারতে হাতি সংরক্ষণ নিয়ে কাজ করছে। ২০১০ সালে এই সংস্থাটিই প্রথমবার ভারতে হস্তি-সংরক্ষণ কেন্দ্র তৈরি করে।



সংস্থাটির দাবি, নতুন এই হাসপাতালটি তৈরি হওয়ার ফলে ভারতে বিনা চিকিৎসায় হাতি মৃত্যুর হার কমবে। তাছাড়া উপযুক্ত পরিকাঠামো পাওয়ায় শিশু হাতির মৃত্যুর পরিমাণও কমবে।


বন্যপ্রাণী বিশেষজ্ঞরা বলেন, শুধুমাত্র উপযুক্ত পরিকাঠামো ও চিকিৎসা ব্যবস্থার অভাবে প্রতিবছর মৃত্যু হয় অসংখ্য বন্যপ্রাণীর। একই অবস্থা হাতির ক্ষেত্রেও। বিলুপ্তপ্রায় প্রাণীদের তালিকায় নাম না থাকলেও হাতির অবস্থা ভারতে খুব একটা নিরাপদ নয় তা বোঝা যাবে একটি পরিসংখ্যানেই।


দেশটির পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী ২০১০ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত পুরো দেশে ৬৫৫টি হাতির অকালমৃত্যু হয়েছে। প্রতিমাসে গড়ে সাতটি হাতির মৃত্যু হয় শুধুমাত্র দুর্ঘটনা ও রোগভোগে।


তবে মন্ত্রণালয় বলেছে, এই মৃত্যুর সংখ্যাটি বাস্তবে আরো বেশি। কারণ সমীক্ষার সময় অনেক রাজ্যই সঠিক তথ্য দিতে পারেনি। সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন


বিবার্তা/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com