যে স্কুলে ছাত্র ও শিক্ষক সংখ্যা ১!
প্রকাশ : ২৫ মার্চ ২০১৮, ১৭:৫৬
যে স্কুলে ছাত্র ও শিক্ষক সংখ্যা ১!
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

ভারতের মহারাষ্ট্রে এমন এক শিক্ষকরে সন্ধান পাওয়া গিয়েছে যিনি মাত্র একজন ছাত্রকে পড়ানোর জন্য প্রতিদিন ৫০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দেন। আর এই পথ সোজা সরল কোনো পথ নয়। পাহাড় পর্বত ঘেরা বিষাক্ত সাপের ডেরা ডিঙ্গিয়ে আসা যাওয়া করতে হয়।


গত ৮ বছর যাবত তিনি এ কাজ করে যাচ্ছেন। কর্তব্য পরায়ণ এই শিক্ষকের নাম রজনীকান্ত মেনদে। ২৯ বছর বয়সী এই শিক্ষককে মহারাষ্ট্র সরকার ভোর জেলার চান্দার গ্রামের এক সরকারি স্কুলে নিয়োগ দিয়েছে। গ্রামটি মহারাষ্ট্রের পুনে শহর থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরে । মাত্র ১৫ টি কুড়ে ঘর রয়েছে ওই গ্রামে। বাসিন্দা মাত্র ৬০ জন। সাপের উপদ্রব থাকায় এই গ্রামে কেউ থাকতে চায় না। এ কারণে বিশাল বড় গ্রামের মাত্র ৬০ জন বাসিন্দা।


স্কুলে একমাত্র ছাত্র যুবরাজ সাঙ্গালে। তার ভাগ্য খারাপ। ভারতে মনে হয় সেই একমাত্র ছাত্র যার কোনো বন্ধু নেই। নি:সঙ্গ ভাবে কাটছে তার ছাত্র জীবন। যুবরাজ একা লেখা পড়া করতে চায় না। তাই সে মাঝে মধ্যে ক্লাস ছেড়ে বিভিন্নস্থানে লুকিয়ে থাকে। কিন্তু শিক্ষক রজনীকান্ত তাকে ধরে নিয়ে এসে পড়ায়। ক্লাসে সৌর বিদ্যুতের ব্যবস্থা করা হয়েছে।


তবে স্কুলের ছাত্র সংখ্যা এই হাল ছিল না শুরুতে। আট বছর আগে এই স্কুলে ছাত্র সংখ্যা ছিল ১১ জন। তবে দারিদ্রের সঙ্গে টিকতে না পেরে এই স্কুলের শিক্ষার্থীদের পাঠিয়ে দেয়া হয় শহরে কাজ করতে। শিক্ষক রজনীকান্ত অভিভাবকদের অনেক বুঝিয়েছেন পড়ালেখার বিষয়ে। কিন্তু তারা কানে তোলেনি তার কথা। স্কুলে যুবরাজের এক বন্ধু ছিল রোহিত। সেও কিছুদিন আগে শহরে চলে যায়। আর একা হয়ে যায় যুবরাজ। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া


বিবার্তা/সুমন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com