আমেরিকার কৃষক
প্রকাশ : ১৪ নভেম্বর ২০১৭, ১৭:৪৮
আমেরিকার কৃষক
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইলিনয় অঙ্গরাজ্যের কৃষক ম্যারিয়ন ইডেনের বয়স এখন ৭৯ বছর। পাঁচ বছর বয়স থেকে তিনি কৃষিকাজের সঙ্গে যুক্ত।


নিজের গরুর খামারের পাশের দুই তলা বাড়ি দেখিয়ে তিনি বলেন, '“আমি এই বাড়ীতেই জন্ম নিয়েছি আর ছোটবেলা থেকে শুরু করে ৭৫ বছর ধরে এই গরুর খামারে কাজ করছি”।


তাঁর খামারে ২৫টি গরু আছে এবং জমির কিছু অংশ অন্য কৃষকের কাছে বর্গা দিয়েছেন। সেখানে সয়াবিন ও ভুট্টার চাষ হয়। আর তিনি চাষ করেন গরুর ঘাস।


ইডেনের সাত ভাইবোনের অন্য কেউ কৃষিকাজ করে না। তারা পরিবার-পরিজন নিয়ে শহরে বাস করে। ইডেনের কন্যাও শহরে বাস করেন, মাঝেমধ্যে বাবার খামারে আসেন। তবে বাবাকে দেখতে এলেও তাঁর কাজে জড়ান না কন্যাটি।


ইডেন বললেন, এখনো কিছু তরুণ কৃষক কৃষিকাজ করছে। তবে কৃষিকাজ ব্যয়বহুল হয়ে গেছে। তরুণদের জন্য নতুন করে কৃষিকাজ শুরু করাটা কঠিন। কারণ, জমির দাম বেড়েছে। কৃষিকাজে জড়িতদের ৬২ শতাংশের বয়স গড়ে ৫৫ বছর বা তদুর্ধ।


এছাড়া, ইডেনের মতে, কৃষিকাজ খানিকটা অনিশ্চিত পেশাও বটে। কারণ, শিলাবৃষ্টি বা খরার মতো প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলা করতে হয়। তাছাড়া ফসলের দাম, সরবরাহ ও চাহিদা সংক্রান্ত কড়া আইনের কারণে অনেক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হয়। তরুণ কৃষকদের কৃষি বিষয়ক নানা বিষয় যেমন, সার বা কৃষি যন্ত্রপাতি ক্রয়ের ক্ষেত্রে অনেক সমস্যার মোকাবেলা করতে হয়। ফসল বেশি হলে খরচও বেশি। কারণ, ফসল তোলা, শুকানো ও বিক্রির জন্য প্রস্তুত করায় নানা রকমের খরচ আছে। আর সব করার পর দাম যদি কম হয় তখন?


ইডেন জানান, সরকারী কর্মসূচী অনুযায়ি যে কৃষিবীমা রয়েছে তাও খুব এটা কৃষিবান্ধব নয়। বীমার প্রিমিয়াম অনেক বেশি, যাতে অনেক সময় লাভের চেয়ে লোকসান হয়ে যায়।


তিনি জানান, কৃষকদের যারা রক্ষণশীল মনোভাবের তারা প্রায় সব সময়ই রিপাবলিকানদের ভোট দেন। গত বছর নভেম্বরের নির্বাচনেও বেশিরভাগ মানুষ ট্রাম্পকে ভোট দিয়েছে।


কেন? জানতে চাইলে ইডেন বলেন, “আমি মনে করি, পরিবর্তনের আশায়। তবে মনে হচ্ছে একই অবস্থা থেকেই যাচ্ছে”।


ট্রাম্প তাঁর নির্বাচনী যে ইস্যুটাকে প্রধান করেছিলেন, সেই অভিবাসন সম্পর্কে ইডেন জানালেন তাদের এলাকায় অভিবাসন বিষয়টির তেমন কোনো প্রভাব নেই। জো ডেভিস কাউন্টিতে অল্প সংখ্যক অভিবাসী রয়েছেন। তারা সাধারণত গালেনা নামের পর্যটন শহরে হোটেল-রেস্টুরেন্টে কাজ করেন।


ইডেন তার আয়ের একটি অংশ স্থানীয় কৃষি বীমা কম্পানিকে দেন। তিনি কোনো রাজনীতির সঙ্গেও যুক্ত নন। তিনি বলেন, বয়স ৮০ ছুঁইছুঁই করলেও যতোদিন সম্ভব কৃষিকাজ চালিয়ে যাব।সূত্র : ভয়েস অব আমেরিকা


বিবার্তা/হুমায়ুন/মৌসুমী

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com