টস জিতে ফিল্ডিংয়ে পাকিস্তান
প্রকাশ : ১৬ জুন ২০১৯, ১৫:২০
টস জিতে ফিল্ডিংয়ে পাকিস্তান
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

দ্বাদশ বিশ্বকাপের সবচেয়ে হাইভোল্টেজ ম্যাচ আজ। যার ওপর দৃষ্টি বিশ্বের বিলিয়ন ক্রিকেটপ্রেমীর। এমন ম্যাচে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। পাক-ভারত দ্বৈরথ শুধু একটি ম্যাচই নয় যার সঙ্গে জড়িয়ে যায় আবেগ, অনুভূতি আর অস্তিত্বের। বিশ্বকাপের শুরু কিংবা শেষ সবটাই যেনো এখানে, ভারত-পাকিস্তান যে মুখোমুখি অবস্থানে। এই একটি ম্যাচ যেখানে লুকিয়ে থাকে ক্রিকেটের রোমাঞ্চ, উত্তেজনা ও উদ্দীপনা।


যদি বৃষ্টি বাধা হয়ে না দাঁড়ায়, তবে নিঃসন্দেহে এবারের আসরের অন্যতম বড় ম্যাচ হতে যাচ্ছে এই লড়াইটি। তাতে অবশ্য বয়েই গেছে সমর্থকদের। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দেশ দুইটির লড়াইয়ে আজও সমান উত্তেজনা। স্নায়ুচাপে থাকে দুই দলের খেলোয়াড়রাও।


চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর এই লড়াইটা হবে ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ডে। বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৩টায়। ম্যাচটি দেখাবে বিটিভি, মাছরাঙা টেলিভিশন, গাজী টিভি, স্টার স্পোর্টস ওয়ান ও টু, পিটিভি স্পোর্টস।


যদিও বিশ্বকাপে ভারতকে কখনও হারাতে পারেনি পাকিস্তান। ১৯৯২ সালের বিশ্বকাপে দুই দলের প্রথম দেখা। তারপর গত বিশ্বকাপ পর্যন্ত দুই দল মুখোমুখি হয়েছে হয়েছে মোট ৬ বার। প্রত্যেকবারই জয়ের হাসি নিয়ে মাঠ ছেড়েছে ভারতীয়রা।


ফুটবলের নগরী ম্যানচেস্টারেই অপেক্ষা ক্রিকেটের সবচেয়ে ঝাঁঝালো দ্বৈরথের। এ দ্বৈরথটিতে রয়েছে বৃষ্টির চোখ রাঙানি। যে কোনও সময় আঘাত হানতে পারে বেরসিক বৃষ্টি। বিশ্বকাপের পরিসংখ্যান কিন্তু কথা বলছে ভারতেরই। ছয়বারের সাক্ষাতে জয় শূন্য পাকিস্তান। কিন্তু ওয়ানডে ইতিহাস যথেষ্ট সমৃদ্ধ পাকিস্তানের। ১৩১ ম্যাচের ৭৩ জয়ের বিপরিতে ভারতের জয় ৫৪টিতে।


সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সে ভারতই ফেভারিট, সব ডিপার্টমেন্টেই ওরা হিট। পাকিস্তানের সঙ্গে বিশ্বকাপের ছয় দেখাতেও বার বার তাদেরই জিত। ইনজুরিতে শিখর ধাওয়ান, ফিরেছেন রিশভ পান্ত। তবুও রোহিত, কোহলিদের ব্যাটিংটাই মূল স্তম্ভ। অগোছালো আর আনপ্রেডিক্টেবল পাকিস্তানের একমাত্র আশা হঠাৎ করে জ্বলে ওঠা কোনো তারা। অফ ফর্মের ফখর জামান যদি ফর্মে ফিরতে পারেন। ইমাম উল হক যদি দেখাতে পারেন তার ঝলক। বাবর আজম যদি ধরে রাখেন তার ছন্দ তাহলেই পাকিস্তান বড় স্কোর করতে পারবে।


দুই চিরশত্রুর লড়াই নিয়ে উত্তাপ সর্বত্র। এ ম্যাচে জয় পেতে মরিয়া উভয় দলই। রণকৌশলও সেভাবে সাজাচ্ছেন তারা। তবে সবকিছু প্রতিকূলে থাকলেও এ মহারণে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী পাকিস্তান। এতে পাখির চোখ করে রয়েছেন তারা। স্বভাবতই সম্ভাব্য সেরা দল মাঠে নামাচ্ছে পাকিস্তান। দলে এক পরিবর্তন আসতে পারে। পেসার শাহীন শাহ আফ্রিদির জায়গায় ঢুকতে পারেন লেগস্পিনার শাদাব খান।


অপরদিকে সতীর্থদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের বিপক্ষে ম্যাচটিকে অন্য যেকোনো ম্যাচের মতোই দেখতে বলেছেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তিনি বললেন, খেলাটি উপভোগ করুন। এটি আরেকটি ক্রিকেট ম্যাচই।মাঠে নামার আগে ভারতের অন্যতম দুশ্চিন্তা ছিল শিখর ধাওয়ানের চোট নিয়ে। কিন্তু এ নিয়ে মোটেও ভাবতে চান না কোহলি। লোকেশ রাহুলের ওপর আস্থা রাখতে চান তিনি। তাই বলা বাহুল্য, এ মহারণে নিশ্চিতভাবে দলে ঢুকছেন রাহুল। এ ছাড়া ভারতীয় দলে আর রদবদলের কোনো সম্ভাবনা নেই।


পাকিস্তানের সম্ভাব্য একাদশ


কোচ: মিকি আর্থার


ফখর জামান, ইমাম-উল হক, বাবর আজম, সরফরাজ আহমেদ (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), মোহাম্মদ হাফিজ, শোয়েব মালিক, শাদাব খান, ইমাদ ওয়াসিম, হাসান আলি, ওয়াহাব রিয়াজ ও মোহাম্মদ আমির।


ভারতীয় সম্ভাব্য একাদশ


কোচা: রবি শাস্ত্রী


রোহিত শর্মা, কেএল রাহুল, বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), বিজয় শঙ্কর, মহেন্দ্র সিং ধোনি (উইকেটরক্ষক), কেদার যাদব, হার্দিক পান্ডিয়া, ভুবনেশ্বর কুমার, কুলদীপ যাদব, যুজবেন্দ্র চাহাল ও জাসপ্রিত বুমরাহ।


বিবার্তা/শারমিন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com