টি-২০ সিরিজ জয় বাংলাদেশের
প্রকাশ : ০৬ আগস্ট ২০১৮, ১০:১৪
টি-২০ সিরিজ জয় বাংলাদেশের
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

বিদেশের মাটিতে টি-২০ সিরিজ জয় বাংলাদেশের। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে বৃষ্টি আইন ডাকওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে ১৯ রানে হারিয়ে জয় পায় লাল-সবুজের দল।


২০১২ সালের পর প্রথমবার বিদেশের মাটিতে ২০ ওভারের সিরিজ নিশ্চিত করলো তারা। বাংলাদেশের এটি মাত্র দ্বিতীয় দ্বিপাক্ষিক টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয়। আগের সিরিজ জয়টি ছিল ২০১২ সালে আয়ারল্যান্ডে।


ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরটা যাচ্ছেতাইভাবে শুরু হয়েছিল বাংলাদেশের। ২ ম্যাচ টেস্ট সিরিজে হয়েছিল ধবলধোলাই। তবে ওয়ানডেতে এসেই বদলে যায় টাইগাররা। চোখধাঁধানো পারফরম্যান্সে ৩ ম্যাচ সিরিজ জিতে নেয় ২-১ ব্যবধানে। টি-২০ সিরিজেও দেখা গেল আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশকে। প্রথম টি-২০’তে হারলেও পরের ২ ম্যাচ জিতে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতল সাকিব আল হাসান বাহিনী।


যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার লডারহিলের সেন্ট্রাল ব্রোয়ার্ড রিজিওনাল পার্কে বাংলাদেশ সময় সোমবার সকালে এই ম্যাচ শুরু হয়।


টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা বাংলাদেশ ২০ ওভারে করেছিল ১৮৪ রান। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১৭.১ ওভঅরে ১৩৫ রান তোলার পর খেলা শেষ হয় বৃষ্টিতে। বাংলাদেশ জেতে ডাকওয়ার্থ-লুইসে।



বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার আন্দ্রে রাসেল মাত্র ২১ বলে ৪৭ রানের ঝড় তুললেও শেষ পর্যন্ত মোস্তাফিজুর রহমানের কাছে পরাস্ত হন। ১৮তম ওভারে বৃষ্টি শুরু হয় তখন টি-২০’র বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের ম্যাচটি জিতে নিতে দরকার ছিল প্রতি ওভারে প্রায় ১৮ রান।


এদিন রোভম্যান পাওয়লের ২০ বলে ২৩, দিনেশ রামদিনের ১৮ বলে ২১ ও ওপেনার চাদউইক ওয়ালটনের ১৯ বলের ১৯ রান ছাড়া টাইগার বোলারদের সামনে কেউই সুবিধা করতে পারেননি।


বাংলাদেশের পক্ষে মোস্তাফিজ তিনটি উইকেট তুলে নেন। একটি করে উইকেট শিকার করেন সাকিব, রুবেল হোসেন, আবু হায়দার রনি ও সৌম্য সরকার।
এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা করেন লিটন দাস ও তামিম ইকবাল। দ্বিতীয় ম্যাচসেরা তামিম ১৩ বলে ২১ রান করে ফিরলেও ৩২ বলে ৬১ রান করেন লিটন। ডান-হাতি এই ব্যাটসম্যান ছয়টি চার ও তিনটি ছক্কায় ইনিংসটি সাজান।


লিটন ফিফটি স্পর্শ করেন ২৪ বলে। ২০০৭ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেই মোহাম্মদ আশরাফুলের ২০ বলে ফিফটির পর টি-টোয়েন্টিতে এটি বাংলাদেশের দ্রুততম ফিফটি।


অবিশ্বাস্যভাবে, রঙিন পোশাকে দেশের হয়ে এটি লিটনের প্রথম ফিফটি! আগের ১৪ টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ ছিল ৪৩ রান; ১২ ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ ৩৬।



সৌম্য সরকার ৫, মুশফিকুর রহিম ১২ আর সাকিব আল হাসান ফেরেন ২৪ রান করে। অন্যদিকে ২০ বলে ৩২ রানের ইনিংস রান করে অপরাজিত ছিলেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। তার সঙ্গে ক্রিজে ছিলেন ১৬ বলে ১৮ রান করা আরিফুল হক।


ক্যারিবিয়ানদের হয়ে দু্টি করে উইকেট নেন কার্লোস ব্র্যাথওয়েট ও কেমো পল। একটি উইকেট তুলে নেন কেসরিক উইলিয়ামস।


সংক্ষিপ্ত স্কোর:


বাংলাদেশ: ২০ ওভারে ১৮৪/৫ (লিটন ৬১, তামিম ২১, সৌম্য ৫, মুশফিক ১২, সাকিব ২৪, মাহমুদউল্লাহ ৩২*, আরিফুল ১৮*; বদ্রি ০/২৩, নার্স ০/৩১, রাসেল ০/৩৬, ব্র্যাথওয়েট ২/৩২, পল ২/২৬, উইলিয়ামস ১/৩২)।


ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ১৭.১ ওভারে ১৩৫/৭ (ওয়ালটন ১৯, ফ্লেচার ৬, স্যামুয়েলস ২, পাওয়েল ২৩, রামদিন ২১, রাসেল ৪৭, ব্র্যাথওয়েট ৫, নার্স ০*; আবু হায়দার ১/২৭, রুবেল ১/২৮, মুস্তাফিজ ৩/৩১, নাজমুল ০/২, সৌম্য ১/১৮, সাকিব ১/২২)


ফল: ডাকওয়ার্থ-লুইসে বাংলাদেশ ১৯ রানে জয়ী


সিরিজ: ৩ ম্যাচ সিরিজে বাংলাদেশ ২-১ ব্যবধানে জয়ী


ম্যান অব দা ম্যাচ: লিটন দাস


ম্যান অব দা সিরিজ: সাকিব আল হাসান


বিবার্তা/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com