বিশ্বকাপ ফুটবলের সেরা ‍উদীয়মান রাজা এমবাপ্পে
প্রকাশ : ১৬ জুলাই ২০১৮, ০৪:২৩
বিশ্বকাপ ফুটবলের সেরা ‍উদীয়মান রাজা এমবাপ্পে
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

১৭ বছরের তরুণ পেলে প্রথম টিনএজার হিসেবে গোল করেছিলেন ১৯৫৮ বিশ্বকাপের ফাইনালে। এরপর ৬০ বছরের অপেক্ষা। আর কোনো টিনএজার গোল পাননি ফাইনালে। দীর্ঘ সময় পর কিলিয়ান এমবাপ্পে ভাঙলেন সেই দেয়াল। রাশিয়া বিশ্বকাপের ফাইনালে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে গোল দিয়ে পেলের পাশে নাম লিখিয়েছেন ফরাসি কাইলান এমবাপ্পে। প্রবেশ করলেন পেলের ক্লাবে।


তিনিই বয়সে দ্বিতীয় কোনো তরুণ যিনি বিশ্বকাপের ফাইনালে গোল করলেন। ক্রোয়াটদের বিপক্ষে ৬৫ মিনিটে দলকে চতুর্থ গোল এনে দেন মিডফিল্ডার কাইলান এমবাপ্পে।



প্রথমবারের মতো বিশ্ব আসরে এসে তো তাকই লাগিয়ে দিলেন। পুরো টুর্নামেন্ট জুড়ে দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের স্বীকৃতি স্বরূপ এবারের বিশ্বকাপের সেরা উদীয়মান খেলোয়াড়ের পুরস্কারটি জিতেছেন এই পিএসজি তারকা।


চার গোল নিয়ে টুর্নামেন্টের তরুণ খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন ১৯ বছর বয়সি এ ফুটবল তারকা। তার আনন্দ দ্বিগুণ করেছেন পেলে। এমবাপ্পেকে দেখে বেশ খুশি পেলে। এর আগে পেলের আরেকটি রেকর্ডে ভাগ বসিয়েছেন এমবাপ্পে। ফাইনালের মঞ্চে করলেন গোল। শুভেচ্ছা জানিয়ে পেলে তার ক্লাবে এমবাপেকে স্বাগত জানিয়েছেন। এ ক্লাব ‘টিনএজারদের ক্লাব।’



এরআগে ১৯৫৮ সালে ১৭ বছর ২৪৯ দিন বয়সে মাঠে নামেন ব্রাজিলিয়ান উদীয়মান তারকা পেলে। পেলে বলেছেন, ‘এমবাপ্পে ক্লাবে তোমাকে স্বাগতম। ভালোই হলো। সঙ্গ পাওয়া যাবে।’


ক্রোয়েশিয়ার জালে ম্যাচের ৬৫ মিনিটে গোল করেন এমবাপে। ২৫ গজ দূর থেকে তার নেওয়া শট ফেরাতে পারেননি সুবাসিচ। এমবাপের চতুর্থ গোলে ফ্রান্স এগিয়ে যায়। জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়ে তারা। বিশ্বকাপের শুরু থেকে মাঠে নামলেও এমবাপে নক আউট পর্ব থেকেই নিজেকে বিশ্বমঞ্চে তুলে ধরেন। আর্জেন্টিনার বিপক্ষে তার পারফরম্যান্স ছিল চোখ ধাঁধানো, ঈর্ষণীয়। শেষ ষোলোর ম্যাচে গোল পেয়েছিলে দুটি। এরপর আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে।


চিতার মতো ক্ষীপ্র এমবাপ্পে। বলে তার অসাধারণ নিয়ন্ত্রণ। শারীরিক গঠনও দারুণ। সব মিলিয়ে এমবাপ্পে পুরো প্যাকেজ। এজন্য অনেকেই পেলের সঙ্গে এমবাপ্পের তুলনা করছে। বিষয়টি মোটেও পছন্দ নয় এমবাপ্পের।



টুর্নামেন্টের উদীয়মান খেলোয়াড় হিসেবে এমবাপ্পে পুরস্কার পেয়েছেন। ১৯৫৮ বিশ্বকাপের ফাইনালে দুটি গোল করেছিলেন পেলে। তখন তার বয়স ১৭ বছর ৬ মাস। এখন এমবাপ্পের বয়স ১৯ বছর ৮ মাস। পেলে নিজের প্রথম বিশ্বকাপটি জিতেছিলেন টিনএজার হিসেবে। এবার এমবাপ্পে টিনএজার হয়েই শিরোপায় চুমু খেলেন।


এমবাপ্পে এখন টিনএজার হিসেবে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন। তার দাপটে ভীত পেলেও। বলেছেন, ‘কিলিয়ান এমবাপ্পে যদি এভাবে আমার রেকর্ড ভাগাভাগি করে তাহলে আমাকে আবার ‍বুটগুলো পরিস্কার করতে হবে।’


বিবার্তা/শারমিন/শাহনাজ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com