মুম্বাই ইন্ডিয়ানসকে হারিয়ে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের প্লে-অফের আশা
প্রকাশ : ১৮ মে ২০২২, ১০:০৭
মুম্বাই ইন্ডিয়ানসকে হারিয়ে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের প্লে-অফের আশা
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

আইপিএলে মুম্বাই ইন্ডিয়ানসকে ৩ রানে হারিয়ে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের প্লে-অফের ক্ষীণ আশা বাঁচিয়ে রাখার নায়কের নাম উমরান মালিক।


কোনো বল হয়নি, এমন হিসেব দেখিয়েই স্পেল শেষ হয়ে যেতে পারত। নিজের প্রথম বলটাই ছিলো ফুল টস। কোমরের বেশি উচ্চতায় বলে নো বল। সঙ্গে বাই রান এল একটি। পরের বলটি ওয়াইড, বাউন্সার ব্যাটসম্যানের নাগালে ছিলো না বলে। পরের বলটাও বাউন্সার। রোহিত শর্মা ঠিকমতো খেলতে পারেননি, ব্যাটে নয়, হেলমেটে লেগেছিলো সেটা। আম্পায়ার তবু চার দিলেন। সঙ্গে নো বল, ওভারে দ্বিতীয় বাউন্সার দেয়ায়। কোনো বল না করে আট রান দেয়া উমরানের পরের বলটা আবার ফুল টস, একটু ওপরে উঠলে আরেকটি নো বল হতো। আর বোলিং থেকে সরে যেতে হতো তাকে।


একে ফুল টস, তার ওপর ফ্রি–হিট। মাঠের যেখানে খুশি পাঠাতে পারতেন রোহিত। কিন্তু একটু আগেই মাথায় আঘাত পাওয়া রোহিত শুধু লেগ বাইয়ের ব্যবস্থা করলেন ১৫৪ কিলোমিটার গতির সে বলের। পরের বলটি ৯০ মাইল ছাড়ানো বল ছিলো, ঠিকমতো খেলতে না পারলেও ব্যাটের কোনা লেগেছিলো ঈশান কিষানের। তাতেই উইকেটকিপারের মাথার ওপর দিয়ে ছক্কা। দুই বলে ১৫ রান, বোলার উমর মালিক।


প্রথম দুই বলে লাইন–লেংথের বালাই না থাকলেও গতিতে যে অস্বস্তি জন্ম দিয়েছিলেন দুই ব্যাটসম্যানের মনে, সেটা কত বড় অস্ত্র, তা পরের বলে মাত্র দুই রান দিয়ে বুঝিয়ে দিয়েছিলেন। এ কারণেই তার হাতে বল আবার তুলে দিতে দুবার ভাবেননি কেইন উইলিয়ামসন। ১৯৪ রানের লক্ষ্যে নামা মুম্বাইয়ের শুরুটা ছিলো নিয়ন্ত্রিত। পাওয়ারপ্লেতে ৫১ রান তোলা মুম্বাই পরের দুই ওভারে তুলেছিলো মাত্র ১০ রান। মালিকের এক ওভারেই ১৭ রান হঠাৎ করে মুম্বাইয়ের রানরেট অনেক ভালো করে দেয়। পরের ওভারে অভিষেক শর্মা দেন ১১ রান। ১০ ওভার শেষে বিনা উইকেটে ৮৯ রান ঝড় তোলার আদর্শ প্ল্যাটফর্ম।


পরের ওভার থেকেই ঝামেলার শুরু। ওয়াশিংটন সুন্দরের বলে ৩৬ বলে ৪৮ রান তোলা রোহিত শর্মা আউট। পরের ওভার করতে এসে প্রথম দুই বলে ৬ রান দিলেন উমরান, শোধ নিলেন তৃতীয় বলে। গার্গের দারুণ এক ক্যাচে ফিরলেন ৩৪ বলে ৪৩ করা কিষান। সে ওভারে আর মাত্র এক রান দিয়েছেন মালিক। সুন্দর ও ফজল হক ফারুকির ওভার দুটিতে ২১ রান নিয়ে ধাক্কা সামলানোর ইঙ্গিত দিলেন ড্যানিয়েল স্যামস ও তিলক বর্মা।


শেষ ৬ ওভারে ৭১ রান দরকার ছিলো মুম্বাইয়ের। মালিকের প্রথম বলেই আউট বর্মা। ওভার শেষ হলো স্যামসের আউটে। দুটোই উইকেটে পড়ার পর বল স্কিড করার ফল। ওভার থেকে এল মাত্র ৪ রান। ম্যাচ তো বলতে গেলে ওখানেই শেষ।


টিম ডেভিড তবু ম্যাচ বদলে দেয়ার চেষ্টায় ছিলেন। নটরাজন, ভুবনেশ্বর কুমারের দুই ওভারের ২২ রান নিয়ে সমীকরণটা আয়ত্তে রেখেছেন। ১৮তম ওভারে তো ম্যাচটা একদম পাল্টেই ফেলেছিলেন। নটরাজনের প্রথম পাঁচ বলে ৪ ছক্কা ও ২ ওয়াইডে ২৬ রান এসেছিলো। শেষ বলে স্ট্রাইক ধরের রাখার চেষ্টায় মরিয়া হয়ে দৌড় দিয়েছিলেন, কিন্তু রানআউট হয়ে গেলেন।


দুই ওভারে মাত্র ১৯ রান দরকার মুম্বাইয়ের, কিন্তু সে রান নেয়ার ব্যাটসম্যান যে নেই। এই অবস্থায় ভুবনেশ্বর কুমার দিলেন মেডেন! সঙ্গে একটি উইকেটও। শেষ ওভারে ১৮ রানের পুঁজি নিয়ে বল করেছেন ফজল হক। শেষ তিন বলে ১০ রান দিলেও হায়দরাবাদ ৩ রানের জয় ঠিকই পেয়েছে।


এর আগে ওয়াংখেড়েতে টসে জিতে ব্যাটিং করে রাহুল ত্রিপাঠি, প্রিয়ম গার্গ, নিকোলাস পুরানের ঝড়ে আগে ব্যাটিং করে ২০ ওভারে ৬ উইকেটে হায়দরাবাদ তুলেছে ১৯৩ রান। ৯টি চারের সঙ্গে ৩টি ছয়ে ৪৪ বলে ৭৬ রান করেছেন ত্রিপাঠি। সঙ্গে ছিলো গার্গের ২৬ বলে ৪২ ও পুরানের ২২ বলে ৩৮ রানের ইনিংস।


বিবার্তা/রিয়াদ/বিএম

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com