বিএনপি-জামায়াতের পৃষ্ঠপোষক তিতাসের এমডি!
প্রকাশ : ১৫ মে ২০১৮, ১৫:৫৩
বিএনপি-জামায়াতের পৃষ্ঠপোষক তিতাসের এমডি!
খলিলুর রহমান
প্রিন্ট অ-অ+

সরকারি প্রতিষ্ঠান তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানী লিমিটেডের এমডি মীর মসিউর রহমান বিএনপি-জামায়াত সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের আশ্রয় দিয়ে কৌশলে সরকারবিরোধী কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।


অভিযোগ রয়েছে, ২০১৪ সালে বিএনপি-জামায়াতের জ্বালাও-পোড়াওর সময় তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানী লিমিটেডের প্রশাসন বিভাগের ম্যানেজার হাসিবুর রহমান তার ফেসবুক আইডি থেকে ''জিয়া-মুজিব তুলনা'' শিরোনামে একটি পোস্ট শেয়ার করেন। সেখানে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে অসত্য তথ্য দিয়ে হীনভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। এছাড়া সহ-ব্যবস্থাপক আতোয়ার রহমানও তার ফেসবুক আইডি থেকে বঙ্গবন্ধু, বঙ্গমাতা ও শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে এবং সম্প্রদায়িক উস্কানি দিয়ে একাধিক পোস্ট করেছেন।


কিন্তু তাদের বিরুদ্ধে এমডির কাছে অভিযোগ দেয়া হলে তিনি কোনো ব্যবস্থা না নিয়ে উল্টো তাদেরকে ঝামেলা এড়াতে পোস্টসমূহ ডিলেট করতে বলেন। এক পর্যায়ে পোস্টগুলো ডিলেট করেন দেন তারা। পরবর্তীতে আতোয়ার তার নিজস্ব ফেসবুক আইডিটি ডি-এক্টিভেট করে দেন এবং হাসিব অন্য নামে নতুন আইডি থেকে ফেসবুক ব্যবহার শুরু করেন।


এ ব্যাপারে জানতে চাইলে অভিযুক্ত হাসিবুর রহমান বিবার্তাকে বলেন, ‘আমি কখনোই এমন পোস্ট দেই নাই। এমনকি আমি কোনো রাজনীতির সাথেও জড়িত নই।’


অপর অভিযুক্ত আতোয়ার রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিবার্তাকে বলেন, অভিযোগ সঠিক নয়। এখানে আমার কিছুই ছিল না। আমি এত ফেসবুক ব্যবহারকারীও না। আমার স্মার্ট ফোনও নাই। আমি নরমাল একটি মোবাইল ফোন ব্যবহার করি।’


পোস্টগুলো সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘আমাকে একজন ফেসবুক আইডি খুলে দিয়েছিল। তবে কে বা কারা আমার আইডি থেকে পোস্ট দিয়েছে তা আমি জানতাম না। পরবর্তীতে এগুলো নজরে আসার পর একজন আইটি বিশেষজ্ঞ দিয়ে ফেসবুকটি বন্ধ করে দিয়েছি।’


এদিকে, এমডি মীর মসিউর রহমান বিএনপি-জামাতকে সাথে নিয়ে প্রতিষ্ঠানটি চালাতে চান - এমন একটি অডিও রেকর্ডও বিবার্তা২৪ডটনেটের কাছে রয়েছে। অডিও রেকর্ড থেকে জানা গেছে, তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানী লিমিটেডের কিছু কর্মকর্তা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি বিকৃত করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট দিচ্ছে। এছাড়াও সাম্প্রদায়িক উস্কানিমূলকও পোস্ট দিয়ে তারা সরকারকে বেকায়দায় ফেলার চেষ্টা করছে। এমন অভিযোগের প্রতি এমডির দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়। কিন্তু এসব অভিযোগ পাত্তা না দিয়ে উল্টো দৃষ্টি আকর্ষণকারী ওই কর্মকর্তাকে ধমক দেন তিনি। বলেন, ‘তুমি বললেই যে সে জামায়াত হয়ে যাবে, এমনটা তো নয়, আমরা তো দেখতেছি। এটা নিয়ে মন্ত্রীর সাথে কথা হয়, অন্যান্যদের সাথেও কথা হয়।’


প্রতিউত্তরে ওই কর্মকর্তা বলেন, ‘প্রমাণসহ আছে।’ এমনটা বলার পর এমডি বলেন, ‘দেখেছি তো। আমরাও পরামর্শ করি, মন্ত্রী আছেন, আরো অনেকেই আছেন।’


তিনি বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অনেক ধরনের নির্দেশনা আছে। তিনি অনেক সময় অনেককেই বের করে দিয়েছেন। আবার উনি অনেককেই নিয়ে আসছেন। এগুলোও শিক্ষনীয় বিষয়।’


এক পর্যায়ে এমডি মীর মশিউর রহমান বলেন, ‘আমি তো সরাসরি সংগঠন করি না। এ জন্য আমি দূরত্ব বজায় রাখি এবং মধ্যম পন্থা অবলম্বন করি।’


''এমন কিছু হয় নাই যে তোমার কথামতো করতে হবে'' উল্লেখ করে ওই কর্মকর্তাকে এমডি বলেন, ‘প্রটোকল মেনে আমার সাথে যোগাযোগ করতে হবে।’


শুধু তাই নয়, ২০১৭ সালের জ্বালানী সপ্তাহে তিতাস গ্যাসের একটি অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। সেই অনুষ্ঠানে সঞ্চালনার দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল সাবেক এক শিবির নেতাকে.. । তবে শেষ মুহূর্তে প্রতিমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে তাকে পরিবর্তন করা হয়।


নাম প্রকাশ না করার শর্তে সাধারণ কর্মকর্তা ও কর্মচারিরা জানান, এমডির বিরুদ্ধে কিছু বললেই চাকরিও চলে যেতে পারে। সেই ভয়ে কেউ কিছু বলে না।


তাদের দাবি সাইবার ক্রাইম ইউনিট দিয়ে অভিযুক্তদের আইডি চেক করলে সঠিক তথ্য বেরিয়ে আসবে।


এ ব্যাপারে তিতাস গ্যাসের বঙ্গবন্ধু প্রকৌশলী পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুমন দাস বলেন, ‘আগে উনার (অভিযুক্ত কর্মকর্তা) সম্পর্কে খোঁজ-খবর নিছি। এখন যে উনি কোন আইডি দিয়ে চালায় তা জানি না। তবে জানতে পারলে অবশ্যই বিষয়টি আমরা স্যারকে বলি।'


নিজেদের বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বিশ্বাসী জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা কখনোই চাই না যে আওয়ামী লীগ পরিবারের কেউ সামান্যতম ক্ষতিগ্রস্থ হউক।’


তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘তিতাস গ্যাসে বেশিভাগ লোকই সরকারবিরোধী। এখন পর্যন্ত আমাদের সমমনা (আওয়ামী লীগপন্থি) কোনোএমডি পাইনি। এটা আমাদের দুর্ভাগ্য।’


তিতাস গ্যাস শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের (সিবিএ) সভাপতি কাজিম উদ্দিন বিবার্তাকে বলেন, তিতাস গ্যাসের কোনোকর্মচারি যদি সরকাবিরোধী কোনোকর্মকাণ্ড করে তাহলে তার বিরুদ্ধে এ্যাকশনে যাওয়া হবে।


এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিতাসের এমডি প্রকৌশলী মীর মসিউর রহমান বিবার্তাকে বলেন, ‘সরকার বিরোধী কার্যক্রমে লিপ্ত রয়েছেন, কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ থাকলে আমার কাছে লিখিত দেন। তা হলে তদন্ত কমিটি করে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।’


তিতাস এমডি’র সাথে কথোপকথনের অডিও ভিজ্যুয়াল



বিবার্তা/খলিল/হুমায়ুন/সোহান
সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com