প্রযুক্তি খাতে উন্নত প্রশিক্ষণ পাবে ৭৫০০ তরুণ
প্রকাশ : ২৪ জানুয়ারি ২০২১, ১৬:৩৪
প্রযুক্তি খাতে উন্নত প্রশিক্ষণ পাবে ৭৫০০ তরুণ
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

অর্থ মন্ত্রণালয়ের আওতায় স্কিলস ফর এমপ্লয়মেন্ট ইনভেস্টমেন্ট প্রোগ্রাম (এসইআইপি) এর সাথে এক হয়ে বেসিস এসইআইপি ট্রেঞ্চ ৩ প্রকল্প শুরু হতে যাচ্ছে। দুই বছর মেয়াদী এই প্রকল্পের মাধ্যমে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে ৭৫০০ দক্ষ জনবল গড়ে তোলা হবে। অফলাইনে ট্রেনিংটি ঢাকা এবং চট্টগ্রামে করানো হবে। নতুনদের জন্য ১১টি এবং অভিজ্ঞদের জন্য ৮টি ট্রেনিংসহ ১৯ টি কোর্স রয়েছে এই প্রকল্পে।


রবিবার (২৪ জানুয়ারি) এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাতে রাজধানীর কারওয়ান বাজারস্থ বিডিবিএল ভবনের বেসিস অডিটোরিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এ সময় অনলাইনে প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন বেসিসের সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবির।


প্রধান অতিথি বক্তব্যে মোস্তাফা জব্বার বলেন, ডিজিটাল যুগে বসবাস করার জন্য ডিজিটাল দক্ষতা দরকার। ডিজিটাল দক্ষতা ছাড়া কোন ক্ষেত্রেই টিকে থাকা সম্ভব হবে না। তৃতীয় শিল্পবিপ্লবের শেষ ধাপের ট্রেনিংগুলোই এখনো করানো হচ্ছে। চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের যেসব নতুন প্রযুক্তি আসছে সেসব প্রযুক্তির প্রয়োগ আমাদের এখানে খুব ধীর গতিতে দেখতে পাচ্ছি। যখন এর প্রয়োগ হতে থাকবে তখন চাহিদা বাড়বে এবং জনশক্তির প্রয়োজীনতা বাড়বে।


তিনি আরো বলেন, ফেসবুক, ইন্টারনেটে সাইট দেখার জন্য ফাইভজির ব্যবহার না। ফাইভজি মূলত অনেক বেশি ইন্ডাস্ট্রি কেন্দ্রিক হবে। অনেকে কলকারখানা চালু রাখার জন্য ফাইভজিকে ব্যবহার করবে। মাছ, সরিষা, ধান চাষ থেকে শুরু করে ইন্ডাস্ট্রিতে ব্যাপক পরিবর্তন হবে। এই প্রয়োগের ফলে মানব সম্পদেও বিশাল পরিবর্তন আসবে এর জন্য আগে থেকে আমাদের প্রস্তুত থাকতে হবে।


অনুষ্ঠানে বেসিসের সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবির বলেন, বাংলাদেশে যে তরুণ জন সম্পদ রয়েছে তাদের দক্ষ করে তোলতে ট্রেনিংয়ের কোন বিকল্প নাই, তাদের দক্ষ করে তোলতে পারলে তারা অর্থনীতিতে অবদান রাখবে। বাংলাদেশে ২৬ লক্ষ শিক্ষিত বেকার, যাদের শিক্ষা জ্ঞান থাকলেও দক্ষতার অভাব রয়েছে। যারা ট্রেনিং নিয়েছে তারা চাকরি করছে, না হয় নিজেরাই কিছু করছে। তাই দক্ষতার কোন বিকল্প নাই।


বেসিস থেকে জানানো হয়, সদ্য স্নাতক, শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী ও ডিপ্লোমা পাসকৃতরা এতে আবেদনের সুযোগ পাবেন। ভেন্ডর সার্টিফিকেশন সুযোগ থাকায় পেশাজীবীরাও আবেদন করতে পারবেন। তবে এক্ষেত্রে ন্যূনতম ২ বছর অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। ট্রেনিং করতে কোন ধরনের অর্থ লাগছে না বরং ট্রেনিং শেষে থাকবে ভাতার সুবিধা।


অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বেসিসের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি ফারহানা এ রহমান, সহ-সভাপতি (প্রশাসন) শোয়েব আহমেদ মাসুদ এবং সহ-সভাপতি (অর্থ) মুশফিকুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।


আগ্রহীগণ এইলিঙ্কের মাধ্যমে বিস্তারিত জানতে এবং রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন।


বিবার্তা/গমেজ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com