জাতিগতভাবে আমরা ঝুঁকি নিতে অভ্যস্ত : পলক
প্রকাশ : ০৭ নভেম্বর ২০১৯, ১৪:৩৫
জাতিগতভাবে আমরা ঝুঁকি নিতে অভ্যস্ত : পলক
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, উদ্যোক্তা তৈরি করার সুনির্দিষ্ট কোন কারিকুলাম নেই। জাতিগতভাবে আমরা ঝুঁকি নিতে অভ্যস্ত। নতুন নতুন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় নতুন নতুন আবিষ্কার করি আমরা। আমাদের কাজটা হচ্ছে শুধু নতুন প্রজন্মকে অনুপ্রেরণা দেয়া। তারা যদি কোন কিছুতে ব্যর্থও হয় তবুও তাদের অনুপ্রেরণা দেয়া।


বৃহস্পতিবার রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় জিপি হাউজে আনুষ্ঠানিকভাবে জিপি এক্সেলারেটরের ষষ্ঠ ব্যাচের সাড়ে চার মাসব্যাপী আয়োজনের উদ্বোধনকালেএসব কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী।


জমকালো আয়োজনের মধ্যে দিয়ে শুরু হলো জিপি এক্সেলারেটরের ষষ্ঠ ব্যাচের আয়োজন। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। আরও উপস্থিত ছিলেন গ্রামীনফোনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মাইকেল ফলি, ডেপুটি সিইও ইয়াসির আজমান, বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর, সিডস্টার এর সহ প্রতিষ্ঠাতা পিয়েরে অ্যালাইন সহ গ্রামীনফোন এবং দেশের আইসিটি খাত সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।



স্টার্টআপ উদ্যোক্তাদের উদ্দেশে পলক বলেন, বর্তমানে আমাদের দেশে প্রায় ৫০ মিলিয়ন মধ্যম আয়ের গ্রাহক শ্রেণী আছে। আর ইন্টারনেট ব্যবহারকারী আছে প্রায় ১০০ মিলিয়ন। বিভিন্ন ধরনের পণ্য ও সেবার এক বড় বাজার আমাদের রয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। আর সেখানে অ্যাপ বা ইন্টারনেটের মাধ্যমে স্টার্টাপদের কাজের ব্যাপক সুযোগ রয়েছে সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।


গ্রামীনফোনের বিভিন্ন রিসোর্স এবং সুযোগ-সুবিধা ব্যবহারের সুযোগ করে দিয়ে নতুন স্টার্টাপগুলোকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্য নিয়েই আয়োজিত হতে যাচ্ছে এই আয়োজন।


এবারের আয়োজনে প্রাথমিকভাবে প্রায় এক হাজার ২০০ আবেদন পায় গ্রামীনফোন। বিভিন্ন দফায় বাছাই শেষে তাদের মধ্যে থেকে শীর্ষ নয়টি দল নিয়ে আয়োজিত হতে যাচ্ছে জিপি এক্সেলারেটর ৬।


বরাবরের মতো এবারের আয়োজনেও টার্মশিট, ভ্যালুয়েশন, ফিনান্সিয়াল মডেলিং, ব্র্যান্ডিং ইত্যাদি বিষয়ে গ্রামীণফোনের থেকে প্রশিক্ষণ পাবে স্টার্টআপগুলো। এছাড়াও আয়োজনের শেষ পর্যায়ে স্টার্টাপগুলোর ব্যবসার সক্ষমতা বৃদ্ধিতে বিনিয়োগ নিশ্চিত সম্ভাব্য বিনিয়োগকারীদের সাথে যোগাযোগ স্থাপনে সহায়তা করবে প্রতিষ্ঠানটি। গ্রামীণফোনের দাবি এসব সহায়তা আর্থিক বাজারমূল্য প্রায় ৬৫ লাখ টাকার সমান।


বিবার্তা/উজ্জ্বল

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com