জোটের মনোনয়ন প্রক্রিয়া শেষ, শুক্রবার চিঠি: কাদের
প্রকাশ : ০৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৮:১৮
জোটের মনোনয়ন প্রক্রিয়া শেষ, শুক্রবার চিঠি: কাদের
ফাইল ছবি
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ইতিমধ্যে দলের ও জোটের মনোনয়ন প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে। আজকালের মধ্যেই চিঠি দেয়া হবে। শুক্রবার মনোনয়নপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা চিঠি পাবেন।


বৃহস্পতিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে মহানগর আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগের যৌথসভায় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।


ওবায়দুল কাদের বলেন, এবার প্রার্থী অনেক। এর মধ্য থেকে যোগ্যপ্রার্থী বাছাই করা কঠিন চ্যালেঞ্জ। আওয়ামী লীগের সভাপতি গত সাত বছর ধরে প্রতি ছয় মাস পরপর জরিপ প্রতিবেদন সংগ্রহ করেছেন। পাঁচ-ছয়টি বিদেশি কোম্পানি এই জরিপের কাজ করেছে।


এই জরিপ শুধু আওয়ামী লীগের ওপর হয়নি, বিএনপিসহ অন্যান্য দলের প্রার্থীর ব্যাপারেও তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। এর ফলে অন্যান্য দলের জনমত জরিপ বিবেচনা করা হয়েছে, বলেন তিনি।


ওবায়দুল কাদের বলেন, কিছু কিছু প্রার্থী বিতর্কের কারণ হতে পারে, এই ভেবে দল অনেক প্রার্থীর পরিবর্তন এনেছে। মনোনয়নে রাজনীতির বিজয় হয়েছে আওয়ামী লীগের। কাজেই আওয়ামী লীগের দুশ্চিন্তা নেই।


আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়াদের বেশিরভাগই রাজনীতিবিদ দাবি করে তিনি বলেন, তরুণ মুখ প্রায় ৫০ এর কাছাকাছি। আর ব্যবসায়ী রয়েছেন প্রায় ১৬ জন। এবারের নমিনেশন দেয়ার ক্ষেত্রে দেশি-বিদেশি জরিপকে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে। মনোনয়ন নিয়ে শরিকদের সঙ্গেও বোঝাপড়া হয়েছে। এ নিয়ে শরিকদের সঙ্গে কোনো টানাপোড়েন নেই।


কাদের বলেন, যারা আন্দোলনে বিজয়ী হতে পারে না, তারা নির্বাচনে বিজয়ী হতে পারে না। বিএনপির নির্বাচনে জেতার স্বপ্ন, দুঃস্বপ্নে পরিণত হবে। তাদের এমন কোনো কাজ নেই, যার জন্য দেশের মানুষ তাদের ভোট দেবে। তারা যতো আস্ফালন করবে, ততোই পতন হবে।


তিনি বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় আসলে দেশের চলমান উন্নয়ন বন্ধ হয়ে যাবে। পদ্মা সেতু, মেট্রোরেল, কর্ণফুলী টার্নেলসহ মেগা প্রজেক্টের কাজ বন্ধ হয়ে যাবে। দেশ পিছিয়ে পড়বে। পশ্চাৎগামীতায় ফিরে যাবে। আমরা কি আবারও অন্ধকারের অচলায়তনের বাংলাদেশে ফিরে যাব। অসমাপ্ত কাজগুলো শেষ করতে আবারও ক্ষমতায় শেখ হাসিনার সরকার দরকার।


আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন ও কাদের সিদ্দিকীর মতো মুক্তিযোদ্ধরাও আজ জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষক বিএনপির সঙ্গে হাত মিলিয়েছে। এ দেশে দু’টি ধারা; একটি মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও স্বাধীনতার পক্ষের ধারা। অন্যটি স্বাধীন ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী ধারা। কামাল হোসেনদের কোনো ধারা নেই। তাদের সব ধারাই এখন সাম্প্রদায়িক শক্তিতে পরিণতি হয়েছে।


কামাল হোসেনদের কঠোর সমালোচনা করে কাদের বলেন, কামাল হোসেনের নিজেস্ব কোনো সত্তা নেই। তারেক রহমানের নির্দেশে কামাল হোসেনরা কথা বলছেন। কামাল ও কাদের সিদ্দিকী খুনি ও দণ্ডিতদের কাছে আত্মসমর্পণ করেছেন।


নির্বাচন এলেই দেশে মনোনয়ন বাণিজ্য হয় মন্তব্য করে কাদের বলেন, প্রার্থী দেয়ার ক্ষেত্রে আওয়ামী লীগের কোনো মনোনয়ন বাণিজ্য হয়নি, এটা স্বস্তির। শেখ হাসিনা মনোনয়নের যে কৌশল অবলম্বন করেছেন তাতে লেনদেনের কোনো ফাঁকফোঁকর ছিল না। ঐক্যফ্রন্টে, বিএনপিতে মনোনয়ন বাণিজ্যের রমরমা কারবার। টাকা ছাড়া বিএনপিতে মনোনয়ন কল্পনাও করা যায় না। মনোনয়ন বাণিজ্যের পর বিএনপির অনেক নেতা পালিয়েছে।


আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোল্লা মো. আবু কাওছারের সভাপতিত্বে যৌথ সভা সঞ্চালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক পংকজ দেব নাথ।


সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, দক্ষিণ সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আরিফুর রহমান টিটু প্রমুখ।


বিবার্তা/শান্ত/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com