সরকার বদল হবে জনগণের রায়ে : সেতুমন্ত্রী
প্রকাশ : ১১ আগস্ট ২০১৮, ১৭:০৩
সরকার বদল হবে জনগণের রায়ে : সেতুমন্ত্রী
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, জনগণের রায়ে সরকার বদল হবে। কিন্তু তারা (বিএনপি) যে পন্থায় সরকার পরিবর্তনের স্বপ্ন দেখছে তা কর্পূরের মত উবে যাবে।


শনিবার রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ ৩২ নম্বর সড়কের বঙ্গবন্ধু ভবনের সামনে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।


মন্ত্রী বলেন, বিএনপির নেতিবাচক রাজনীতির দিন শেষ, ছদ্মবেশী বিধ্বংসী রাজনীতির সময় শেষ। ধোঁকা দিয়ে দেশের মানুষকে আর বোকা বানানো যাবে না।


সংগঠনের সভাপতি অ্যাডভোকেট মোল্লা মো. আবু কাওছারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক আ. ফ. ম. বাহাউদ্দিন নাছিম এমপি এবং আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ দেবনাথ।


বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যরিস্টার মওদুদ আহমেদের কথা উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, যিনি মৃত ব্যক্তির নামে ভূয়া কাগজ তৈরি করে বাড়ি দখল করেন তিনি কখনো গণতন্ত্রে বিশ্বাসী হতে পারেন না। তিনি বেগম খালেদা জিয়াকে অসুস্থ্য অবস্থায় হাসপাতালে রেখে জাতীয় পার্টিতে যোগদান করেছিলেন।


তিনি বলেন, মওদুদ সাহেবের কাছে কি জাদু আছে, যা দিয়ে কখন, কেন এবং কিভাবে সরকার বদল করবেন তা উল্লেখ করেননি। তবে টেমস নদীর ধারে, ব্যাংককে কখন কোন বৈঠক হচ্ছে সরকার তা জানে।


সেতুমন্ত্রী বলেন, বিএনপির নেতারা ৯ বছর আন্দোলন করে ব্যর্থ হয়ে তারা কোটা আন্দোলন কারীদের ওপর ভর করেছিল। সে আন্দোলনেও ব্যর্থ হয়ে তারা শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের ওপর ভর করেছিল। সেখানেও তারা ব্যর্থ হয়ে এখন বিদেশীদের কাছে নালিশ করে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করছে।


জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে ওবায়দুল কাদের বলেন, বঙ্গবন্ধু বাঙ্গালী জাতির জন্য বাতিঘর। এ বাতিঘর দেশের সকল সংকটে পথ দেখাবে।


বঙ্গবন্ধুর জীবন থেকে শিক্ষা নেয়ার জন্য সকল রাজনৈতিকদের প্রতি আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক দর্শনের সবচেয়ে বড় বিষয় হলো বঙ্গবন্ধুর সততা ও সাহস। আর বঙ্গবন্ধুর এ আদর্শকে ধারণ করে যিনি এগিয়ে যাবেন তিনি রাজনীতিতে প্রতিষ্ঠিত হবেনই।


এ সময় হানিফ বলেন, বিএনপি পাগলা কুকুর হলে শুধু আওয়ামী লীগ কেন দেশের মানুষও বিএনপিকে ভয় করবে। কারণ পাগলা কুকুরের কাজ হলো মানুষকে কামড়ানো। আর এ ধরনের প্রাণী কামড়ালেই জলাতঙ্ক রোগ হয়।


তিনি বলেন, বিএনপি সংলাপ চাইলে আগে তাদের ষড়যন্ত্র বন্ধ করতে হবে। কারণ ষড়যন্ত্র সংলাপ এক সঙ্গে চলতে পারে না।


বিবার্তা/তৌহিদ/সোহান

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com