হেফাজত-জামায়াত-জঙ্গিরা রেজিস্টার্ড বেঈমান: ইনু
প্রকাশ : ২৬ জানুয়ারি ২০২২, ২০:৩৯
হেফাজত-জামায়াত-জঙ্গিরা রেজিস্টার্ড বেঈমান: ইনু
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল- জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু বলেছেন, মৌসুমে মৌসুমে জঙ্গি তাণ্ডব ও জঙ্গি হামলার ঘটনা ঘটে চলেছে। এতে প্রমাণ হয়, হেফাজত-জামায়াত-জঙ্গিরা বদলায়নি। এরা বাংলাদেশের রেজিস্টার্ড বেঈমান। পাকিস্তানপন্থার ধারক ও বাহক। এদের আত্মা পাকিস্তানি।


বুধবার (২৬ জানুয়ারি) জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাব নিয়ে সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।


ইনু বলেন, সাম্প্রদায়িক চক্র বাংলাদেশের ধর্মনিরপেক্ষতাকে হারাম বলে। আর ভারত, আমেরিকা, ইংল্যান্ডে গেলে তারা ধর্মনিরপেক্ষতাকে হালাল বলে। এই দ্বিমুখী চালবাজির রাজনীতি বন্ধ করা দরকার। এতে প্রমাণ হয়, জেএমবি-জামায়াত-জঙ্গিরা হচ্ছে মাঠের অ্যাক্টর। জামায়াত হচ্ছে ডিরেক্টর। বিএনপি হচ্ছে প্রডিউসার। সুতরাং এরা পাকিস্তানি রুহানি শক্তি দ্বারা পরস্পর সংযুক্ত। জেনেটিক্যালি সম্পর্কযুক্ত। তিনপক্ষকেই দমন ও বিদায় জানানো উচিত। হেফাজতের বিভিন্ন তাণ্ডব, ধ্বংস ও এর ক্ষয়ক্ষতির ওপর শ্বেতপত্র প্রকাশের দাবি করেন তিনি।


কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যরা (ভিসি) শিক্ষার্থীদের সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষেপিয়ে তুলছেন বলে অভিযোগ করে হাসানুল হক ইনু বলেন, কিছু সমস্যা যা কাঁটার মত পায়ে বিঁধছে। সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিদের কারো কারো কাণ্ডজ্ঞানহীন কথাবার্তা, আচার-আচরণ দুঃখজনক। এবিষয়ে সরকারের নজর দেয়া দরকার।


এসময় ১৯৭১ সালে গণহত্যার জন্য পাকিস্তানের ক্ষমা চাওয়ার দাবি আন্তর্জাতিক পর্যায়ে তোলার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে জাসদ সভাপতি বলেন, দূর্গাপুজার উৎসবসহ অন্যান্য সময়ে দেশের বিভিন্ন এলাকায় সাম্প্রদায়িক হামলা হয়েছে। দেখে মনে হয়েছে, ওইখানে সরকার নেই, আইন নেই। আওয়ামী লীগ নেই। প্রশাসন নেই। জাসদ নেই। ১৪ দল, এমনকি এমপি-মন্ত্রী নেই।


তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষে জাতির পিতার ভাস্কর্য, ম্যুরাল ভাঙা হয়েছে। অনেকেই যারা মুজিব কোট পরে, তারা ভয়ে মুজিব মিনার বানানোর প্রস্তাব দিয়েছে। এটা দুঃখজনক।


সংবিধান পর্যালোচনা প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরে হাসানুল হক ইনু বলেন, সংবিধান পর্যালোচনা ও সংস্কার করা দরকার। সেজন্যই সংবিধান পর্যালোচনার জন্য সংসদের বিশেষ কমিটি গঠনের প্রস্তাব করছি। এছাড়া তিনি আন্তঃসীমান্ত নদীর পানিবণ্টন নিশ্চিতে উদ্যোগ নেয়ার এবং নদী কমিশনকে সক্রিয় করার আহ্বান জানান।


বিবার্তা/আশিক

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com