খালেদা জিয়া গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনের নেত্রী: নজরুল
প্রকাশ : ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪:০৪
খালেদা জিয়া গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনের নেত্রী: নজরুল
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, আমরা মনে করি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া শুধুমাত্র তিনবারের প্রধানমন্ত্রী নন, তিনি গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনের নেত্রী। যে গণতন্ত্র স্বাধীনতার মূল চেতনা। অর্থাৎ স্বাধীনতার চেতনা পুনরুদ্ধারকারী নেত্রী তিনি। এদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে বিনা চিকিৎসায় অকালে দুনিয়া থেকে চলে যাওয়ার ব্যবস্থা করার অধিকার কারোর নেই।


সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর শেরে বাংলা নগরে স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্যদের নিয়ে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের মাজার জিয়ারত শেষে তিনি সাংবাদিকদের কাছে এমন মন্তব্য করেন।


নজরুল বলেন, সেজন্য আমরা তথ্যমন্ত্রীকে বলবো, খালেদা জিয়ার মুক্তি কিংবা কারাবন্দির সাথে অন্যকিছুকে যুক্ত করাটা ঠিক হবে না। কারণ এটা অসুস্থতার বিষয়, চিকিৎসার বিষয়, রাজনৈতিক বিষয় না। তাই আমাদের রাজনীতির সাথে তাঁর সুচিকিৎসা এক করাটা এক ধরনের অপরাধ।


খালেদা জিয়ার কারাদণ্ড নিয়ে তথ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের সমালোচনা করে নজরুল ইসলাম খান বলেন, এর আগেও যিনি তথ্যমন্ত্রী ছিলেন এবং এখন যিনি আছেন উনারা হলেন জিয়া পরিবারের সমালোচনাবিষয়ক মন্ত্রী। কারণ তাদের কাজের বিষয়ে তারা যতটুকু কথা বলেন তার চেয়ে বেশি কথা বলেন শহীদ জিয়ার বিপক্ষে, বেগম খালেদা জিয়ার বিপক্ষে এবং তারেক রহমানের বিপক্ষে। মনে হয় যেন এটাই তাদের মন্ত্রণালয়।


বিএনপির এই নীতিনির্ধারক বলেন, বেগম খালেদা জিয়া একটা বিচারে কারারুদ্ধ হয়ে আছেন। তিনি দারুণভাবে অসুস্থ, দেশ-বিদেশের সবাই তা জানেন। তাঁর সুচিকিৎসা প্রয়োজন, এ নিয়েও কারো মনে কোনও দ্বন্দ্ব নেই। এই কোভিড-১৯ চলাকালে যখন বিমান পরিবহন বন্ধ ও কেউ কারও সাথে দেখা করতে পারে না সেরকম সময় তাঁকে বাসায় থাকার অনুমতি দেয়া হয়েছে। বাসায় থাকার ফলে অন্তত উনার মানসিক কষ্টটা কিছুটা কমেছে। কিন্তু তাঁর সুচিকিৎসার বিষয়টি যেটা শুধু মানবিক না নৈতিক ও জনগণের দাবি। কেউ একজন অসুস্থ হলে সুচিকিৎসা হওয়া দরকার। এ কারণে যদি প্রয়োজনে দেশের বাহিরে যেতে চান তবে বাহিরে যেতে পারেন, এ ব্যাপারে যে আবেদনটা করা হয়েছে তা গ্রহণ করা হয়নি। সেজন্য আমরা আমাদের দলের পক্ষ থেকে বলবো, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা নিশ্চিত করার জন্য বিদেশে যাওয়ার এ নিষেধাজ্ঞা শিথিল করা হোক।


তিনি বলেন, বেগম জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সুস্থতা কামনা করেছেন স্বেচ্ছাসেবক দল। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনে, আগামী দিনের লড়াই-সংগ্রামে তারা সামনের কাতারে থেকে লড়াই করার শপথ নিয়েছে। আমরা দেশবাসীর কাছে দোয়া চাই, যাতে স্বেচ্ছাসেবক দল তাদের যথাযথ দায়িত্ব পালন করতে পারে।


এসময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, সেচ্ছাসেবকবিষয়ক সম্পাদক মীর শরাফাত আলী সপু, সেচ্ছাসেবক দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের ভূঁইয়া জুয়েল প্রমুখ।


বিবার্তা/জাহিদ/এনকে

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com