অনিন্দ্য পাহাড়ে ঘেরা ভ্যানকুভার আইল্যান্ড
প্রকাশ : ১৪ নভেম্বর ২০১৭, ১৫:৪০
অনিন্দ্য পাহাড়ে ঘেরা ভ্যানকুভার আইল্যান্ড
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

সুন্দর আর মানুষ। এই দুইয়ের সম্পর্ক খুব নিবিড়। সুন্দর যা তাই তাদের সবার চাওয়া। মানুষ সবসময়ই সুন্দর খোঁজে ঘুরে ফিরে। যা দেখলে আপনি অবাক না হয়ে পারবেন না। পৃথিবীর নিখুঁত বৈচিত্র্যময় সৌন্দর্য্যকেউপভোগ করার জন্যই। পাহাড় দেখেছেন? দেখতে কেমন অনুভূতি জাগে? মনে করে দেখুন তো!


যদি এমন হয়, একটি পাহাড়ের ভিতর থেকে উঁকি দিচ্ছে অনিন্দ্য পাহাড়ের ঘর। পাহাড়ের মধ্যে ঘর-বাড়ি সত্যিই এক মনোমুগ্ধকর দৃশ্য। গিলান হলো ইরানের উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ শোমলে’র একটি শহর। সেখানকার ভৌগোলিক অবস্থান, অনাবিল প্রাকৃতিক দৃশ্যাবলি ও ঐতিহাসিক বিভিন্ন নিদর্শণ রয়েছে এখানে।


পাহাড়ে পাহাড়ে ঘেরা বৈচিত্র্যময় শহর ‘ভ্যানকুভার’, ব্রিটিশ কলম্বিয়ার ব্যস্ততম পশ্চিম উপকূলীয় বন্দর। অনেক সিনেমা চিত্রায়িত হয়েছে সেখানে। থিয়েটার, সঙ্গীত আর শিল্পের জন্য বিশেষভাবে প্রসিদ্ধ ভ্যানকুভার দীর্ঘদিন ধরেই পর্যটকদের আকৃষ্ট করে চলেছে।


জেনে নিন ভ্যানকুভার শহরের প্রধান আকর্ষণগুলো সম্পর্কে-



কেপিলানো সাসপেনশান ব্রিজ
ব্রিজটির যেমন নাম তেমন এর অবস্থান। ১৩৭ মিটার (৪৫০ ফুট) দীর্ঘ ব্রিজটি চলে গেছে একটি ক্যানিয়ন এবং ৭০ মিটার দীর্ঘ ক্যাপিলানো নদীর উপর দিয়ে। চমৎকার এই ব্রীজটি থেকে নদী আর ঘন সবুজ বনের দৃশ্য উপভোগ করা একটি অসাধারণ অভিজ্ঞতা। এই কারণে পর্যটকদের কাছে ব্রীজটি একটি বিশেষ আকর্ষণ। লং ড্রাইভে চলে যেতে পারেন, এক্সপ্লোর করতে পারেন বন আর বনের প্রাণীদের ব্রীজের উপর থেকেই, শুরু করতে পারেন থ্রিলিং ক্লিফওয়াক।


ভ্যানকুভার একুরিয়াম
আমাজনের সুমেরু অঞ্চলের ৫০ হাজারেরও বেশি জীবের বাস এই ভ্যানকুভার একুরিয়ামে। সামুদ্রিক ভোঁদড়, ডলফিন আর তিমির শোগুলো কোনভাবেই মিস করবেন না। পুরো একুরিয়ামটিই একটি বিস্ময়। কোথাও দাঁড়িয়ে দেখবেন আলো জ্বেলে ভেসে বেড়াচ্ছে অগণিত জিলিফিস, কোথাও আদুরে ভঙ্গীতে এগিয়ে আসছে বিশাল তিমি, কোথাও ভেসে বেরাচ্ছে কচ্ছপেরা আবার কোথাও চুপ মেরে বসে আছে রঙ্গীন অক্টোপাস।


স্ট্যানলি পার্ক
ঘোড়ার গাড়ি এই পার্কের মূল আকর্ষণ। ঘোড়ার গাড়িতে চড়ে স্ট্যানলি পার্কের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য উপভোগ করার মজাই আলাদা।



হার্বার ক্রুজ এন্ড ইভেন্টস
ভ্যানকুভারের অসীম সৌন্দর্য্য মন ভরে উপভোগ করতে হার্বার ক্রুজে ভ্রমণ করুন। একটি শহরকে এক্সপ্লোর করার অনন্য এবং আনন্দদায়ক উপায় এটি। রাতে যেমন ক্রুজটি হয়ে ওঠে আলো ঝলমলে, ক্রুজ থেকে দেখতে পাবেন অন্যরকম এক ভ্যানকুভারকে। রাতে তার সজ্জাও কম আকর্ষণীয় নয়। ক্রুজের মাঝে খাওয়া, স্পা, বিনোদনসহ সকল বিলাসবহুল আয়োজন এখানে আছে।


ফ্লাইওভার কানাডা
কানাডার উপর উড়ে উড়ে দেখুন এর শ্বাসরুদ্ধকর সৌন্দর্য্য। অবাক হচ্ছেন? সকল বয়সের মানুষ নিতে পারবেন এই অভিজ্ঞতা। একটি মুক্ত ফ্লাইটে উঠবেন, সামনে বিশাল স্ক্রীনে লেটেস্ট প্রজেকশন এবং রাইড টেকনোলজি ব্যবহার করে তৈরি করা হবে সত্যিকারের উড়ে বেড়ানোর অভিজ্ঞতা। বাতাস, সুঘ্রাণ, কুয়াশা কি নেই সেখানে!


বিবার্তা/শারমিন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com