কেন ভ্রমণে যাবেন?
প্রকাশ : ১৫ আগস্ট ২০১৭, ০৯:১৬
কেন ভ্রমণে যাবেন?
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

কোথাও ঘুরতে যাবেন, কিন্তু ভাবছেন যাবেন কি না? তাছাড়া হরহামেশাই মানুষ এটা চিন্তা করে, কী দরকার বাপু এত ঘুরতে গিয়ে! এর চেয়ে ঘোরার টাকাটা জমিয়ে ফেললে দুই-পয়সা ঘরে থাকবে!


আপনার মনেও একই প্রশ্ন জাগতে পারে, আমি কেন বেড়াতে যাবো! আয় সীমিত হোক আর না হোক! আমার আয় বেশি থাকলেই কী দরকার ফালতু খরচের! উত্তরগুলো আপনি এখনই পেয়ে যাবেন:


❏ ভ্রমণেই জীবন: প্রতিদিন একই কাজ করে যাতে আমরা ক্লান্ত হয়ে না যাই একারণেই কিন্তু সপ্তাহে এক-দু’টা ছুটির দিন থাকে। এই ছুটির দিনগুলোতে আমরা নিজেকে সময় দেই, পরিবারকে সময় দেই বা বন্ধুবান্ধবকে সময় দেই। এই সময় দেয়াটাই কিন্তু জীবনকে উপভোগ করা। তবে আপনি প্রতি ছুটির দিনেই যদি ঘরে বসেই নিজেকে আর অন্যকে সময় দিতেই থাকেন তাহলে কিন্তু আবার সেই রুটিনেই আটকে গেলেন আপনি! জীবন উপভোগ করাটাও হয়ে যাবে আপনার রুটিনের কাজ! এটাকে আর যাই বলা যায়, জীবন কিন্তু বলা যায় না!এর চেয়ে সপ্তাহের, মাসের বা বছরের একটি ছুটির দিনও যদি আপনি কোথাও ঘুরে আসেন, একটু খোলা আকাশে নিশ্বাস নিয়ে আসেন তাতে কিন্তু আপনার ক্ষতি হবে না, বরং জীবনে লাভই হবে। এই ভ্রমন কিন্তু আমাদেরকে জীবনের মানে শেখায়! যখন আপনি জীবনের আনন্দ উপভোগ করবেন, তখন কিন্তু খরচ হওয়া বাড়তি টাকাটা আপনার কাছে আর বোঝা মনে হবে না। কারণ, এই আনন্দের জন্যই তো আপনি টাকা উপার্জন করছেন, একটু ভালো থাকার জন্য উপার্জন করছেন!


❏ মানুষ ও নিজেকে চিনতে শিখবেন: আপনি যখন আপনার পরিচিত জায়গা থেকে একটু অপরিচিত জায়গায় যাবেন, তখন একজন হলেও আপনি নতুন মানুষ দেখবেন। এভাবে আস্তে আস্তে দেখবেন আপনার আশে পাশে অনেক নতুন পরিচিত মুখ, অনেক নতুন ঘটনা; এগুলোর সাথে নিজেকে মেলালে নিজেকে তো চিনবেনই আশেপাশের মানুষের সাথেও ডিল করা শিখবেন। যেমন আমি বলতে পারি, আপনি আরো বেশি সামাজিক হয়ে উঠবেন, মানুষের সাথে যোগাযোগ করার ক্ষমতা বাড়বে এবং সবচেয়ে বড়কথা হচ্ছে স্মার্ট হয়ে উঠবেন।


❏ একা ভ্রমণ করলে জীবনের অনেক কিছুই গুছিয়ে উঠতে পারবেন: সাধারণত পরিবারের সাথে থাকতে থাকতে আমরা অনেক বেশি নির্ভরশীল হয়ে পড়ি। ভ্রমণটা যদি একা একা করি তাহলে দেখা যায় যে নিজের অনেক কিছুই আমরা একা একা সামলে নিতে পারি এবং আত্মনির্ভরশীল হয়ে উঠি।


❏ অতীত, বর্তমান ও ভবিষ্যত: প্রতিটি জায়গারই আলাদা ইতিহাস রয়েছে। আপনি নতুন নতুন জায়গায় গেলে এই ইতিহাসগুলো তো আপনার মাথায় ঢুকবেই সাথে সাথে দেখবেন আপনার মাথায় অনেক সুন্দরভাবে বর্তমান এবং ভবিষ্যত নিয়েও কিছু ভাবনা ঢুকে যাবে।


❏ স্বাধীনতা: আপনি যখন নিজের ইচ্ছামত ঘুরতে যাচ্ছেন, হোক সেটা একা অথবা পরিবারের সাথে, আপনার মনে এমনিতেই আলাদা একটা স্বাধীনতার অনুভব কাজ করবে। প্রকৃতি এবং ইতিহাস সবসময়ই আমাদের মনে এমন অনুভূতি এনে দেয়।


❏ বন্ধন: ঘুরতে গেলে দেখবেন আমরা নিজের পরিচিত জায়গার অনেক নিয়মই ভুলে গিয়ে আনন্দে মাতি। এতে সবচেয়ে উপকার যেটা হয় আপনি যদি পরিবার বা বন্ধুদের সাথে ভ্রমণে যান তাদের সাথে আপনার বন্ধনটা দৃঢ় হবে। আমরা চার দেয়ালে আবদ্ধ জায়গায় যে প্রেম প্রকাশ করতে পারি না। যে ভালোবাসার কথা বলতে পারি না বা মন খুলে হাসতে পারি না তা ঠিকই খোলা প্রকৃতির নীচে প্রকাশ করতে পারি। এজন্যই কিন্তু দেখবেন বিয়ের পরই হানিমুনের তাড়া থাকে কারণ কোথাও একান্তে সময় কাটালে বন্ধন দৃঢ় হয়, সম্পর্ক মজবুত হয়। আর তা যদি হয় প্রকৃতির কাছাকাছি কোন জায়গায় তাহলে তো কথা-ই নেই!


❏ স্মৃতি সবসময়ই আনন্দের: আপনি যত আপনার আশেপাশেটা দেখতে বের হবেন ততই আপনার জীবনে স্মৃতি জমতে থাকবে। একটা সময়ে এই স্মৃতিগুলোই হবে আপনারর জন্য মহামূল্যবান! তাই এত কিছু চিন্তা না করে বেরিয়ে পড়ুন আনন্দ ভ্রমণে।


বিবার্তা/জিয়া


সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com