গ্রাফিক্স আর্টস ইন্সটিটিউটে সুচিন্তার জঙ্গিবাদ বিরোধী সেমিনার
প্রকাশ : ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ২৩:০১
গ্রাফিক্স আর্টস ইন্সটিটিউটে সুচিন্তার জঙ্গিবাদ বিরোধী সেমিনার
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

২৩ এপ্রিল রাজধানীর সাত মসজিদ রোডের গ্রাফিক্স আর্টস ইন্সটিটিউটে অনুষ্ঠিত হলো সুচিন্তার জঙ্গিবাদ বিরোধী সেমিনার ‘জাগো তারুণ্য রুখো জঙ্গিবাদ’। সুচিন্তা জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে নিয়মিত বিভিন্ন কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় এ কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে।


অনুষ্ঠানের শুরুতেই শ্রীলঙ্কায় ভয়াবহ জঙ্গি হামলায় নিহতদের স্মরণ করে এক মিনিট দাড়িয়ে নীরবতা পালন করা হয়।


অনুষ্ঠানে তরুণদের উদ্দেশ্যে সাংসদ, (নওগাঁ-৬) মো. ইস্রাফিল আলম বলেন, বাংলাদেশ এখন আর পিছিয়ে পড়া কোনো দেশ নয়। উন্নয়নের মহাসড়কে এগিয়ে চলা একটি দেশ। আমরা যেমন সমুদ্র জয় করেছি তেমনি আমাদের মহাকাশ বিজয়ের ইতিহাসও রয়েছে। আমাদের এই এগিয়ে চলা, স্বাধীনতাবিরোধী দেশী-বিদেশি শত্রুদের হিংসের কারণ। এরাই জঙ্গিবাদকে পৃষ্ঠপোষকতা করে দেশকে পিছিয়ে দিচ্ছে। চক্রান্ত করছে। দেশের ক্ষতি করছে।


তিনি বলেন, জঙ্গিবাদ শুধু বাংলাদেশের বিষয় না, এটা এখন বৈশ্বিক একটা আতঙ্কের নাম। বাংলাদেশে জঙ্গিবাদ দমনে প্রধানমন্ত্রীর ভূমিকা প্রশংসনীয়। আর আমাদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অসাধারণ দক্ষতায় বাংলাদেশে জঙ্গি দমন সম্ভব হয়েছে, কিন্তু নির্মূল হয়নি। সুচিন্তা ফাউন্ডেশনের এই উদ্যোগ জঙ্গিবাদ নির্মূলে বিরাট ভূমিকা রাখবে বলে আমি বিশ্বাস করি। তরুণদের সচেতন করে তুলতে সারাদেশে এই কার্যক্রম পরিচালনা করা উচিত বলে মনে করি। তাহলে তুরুণদের মাঝে জঙ্গিবাদ সম্পর্কে সঠিক ধারণা তৈরি হবে।


শুভেচ্ছা বক্তব্যে সুচিন্তা ফাউন্ডেশনের ডিরেক্টর কানতারা খান বলেন, বছরব্যাপী জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে তরুণদের মাঝে সচেতনতা গড়ে তোলার উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে সিরিজ সেমিনারের আয়োজন করেছে সুচিন্তা ফাউন্ডেশন। জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে ‘জঙ্গিবাদ বিরোধী মতবাদ’ সৃষ্টি করাই এই সুচিন্তার লক্ষ্য। সুচিন্তা তরুণদের এগিয়ে নিয়ে যেতে চায়। যে শক্তি ’৫২-তে, ’৭১-এ জাগিয়ে তুলেছিল, এগিয়ে নিয়েছিল দেশকে, সে চেতনাকে সামনে এগিয়ে দিতে চায়, চায় ছড়িয়ে দিতে নতুন প্রজন্মের মধ্যে।



তিনি আরো বলেন, জয় বাংলা, মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করলে জঙ্গিবাদ মাথাচাড়া দিয়ে দাঁড়াতে পারবে না। বাংলাদেশ উন্নয়নের পথে আরো এগিয়ে যাচ্ছে। কেউ বাধা দিতে পারবে না। এই উন্নয়নের পথ ধরেই আমরা এগিয়ে যাব। জয় বাংলার চেতনা এগিয়ে যাবে। গড়ে উঠবে বঙ্গবন্ধুর ‘সোনার বাংলা’। যেখানে থাকবে না ধর্মের নামে হানাহানি, থাকবে না জঙ্গি ও জঙ্গিবাদ।


জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে তরুণ শিক্ষার্থীদের একত্রিত হতে আহবান জানান অর্থনীতিবিদ ড. আহমেদ আল কবির। তিনি বলেন, ভ্রান্ত আদর্শের উপর ভর করে তরুণ এবং তরুণীরাও জঙ্গি হয়ে ওঠে। আর এই আদর্শ ছড়িয়ে দিচ্ছে কতিপয় গোষ্ঠী, ধর্মের নামে তরুণ-তরুণীদের মিথ্যা ধর্মীয় প্রলোভন দেখিয়ে তাদের উদ্দেশ্য হাসিল করছে।


প্রচুর অর্থ জঙ্গিবাদের পিছনে ঢালা হচ্ছে। অর্থ যোগানো হচ্ছে। তাদের মেডিকেল কলেজ, রিয়েল এস্টেট কোম্পানি, ব্যাংক-বীমা অনেক প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এই সব ব্যবসা ও অর্থায়ন চিহ্নিত ও নিষিদ্ধ করতে হবে। অনেক সময় অর্থের প্রলোভনও তরুণদের জঙ্গিবাদের দিকে নিয়ে যায়। তরুণরা মুক্তি যুদ্ধের চেতনা ধারণ করে একত্রিত হয়ে জঙ্গিবাদকে রুখবে। যেভাবে একাত্তরে আমরা মুক্তিযুদ্ধ করেছিলাম।


তিনি আরো বলেন, আমরা ধর্ম পালন করব। কিন্তু যখনই ধর্ম নিয়ে কাউকে বাড়াবাড়ি করতে দেখব তখনই তার প্রতি লক্ষ্য রাখব এবং অন্যকে জানাব। আমরা চাই মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় যে বাংলাদেশ গড়ে উঠেছে তাকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যেতে।


অধ্যক্ষ নিহার রঞ্জন দাসের বক্তব্য’র মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের ইতি টানেন সঞ্চালক, আজ সারাবেলার সম্পাদক জব্বার হোসেন।


বিবার্তা/শান্ত/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

বি-৮, ইউরেকা হোমস, ২/এফ/১, 

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com