সিএনজির ছাদে জাহেদুলের স্বপ্নের বাগান (ভিডিও)
প্রকাশ : ০৬ এপ্রিল ২০১৯, ১০:৩৯
সিএনজির ছাদে জাহেদুলের স্বপ্নের বাগান (ভিডিও)
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

বাড়ির পেছনে নিজের একটি বাগান থাকবে। সেখানে অসংখ্য ফুল ফুটবে। দিন রাত সেখান থেকে ফুলের ঘ্রাণ নাকে লাগবে। এমন একটি স্বপ্ন সকলেই দেখে থাকেন। কারো এই স্বপ্ন সফল হয় কারো হয় না। তবে কখনো কি শুনেছেন স্বপ্নের সে বাগান বাস্তবে ঘুরে বেড়ায়? কী পাঠক পাগল ভাবতে শুরু করলেন না কী? আসুন আপনাদের শুনাই তেমনি একটি গল্প। যে বাগান নিয়ে এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্ত ছুটে বেড়াচ্ছেন এক স্বপ্নবাজ যুবক।


এ স্বপ্নবাজ যুবকের সঙ্গে আপনাদের পরিচয় করিয়ে দিচ্ছেন মডেল, উপস্থাপক ও সাংবাদিক আমির পারভেজ।


ময়মনসিংহের গাইবান্ধার ছেলে মুহাম্মদ জাহেদুল ইসলাম। তিনি ভাড়ায় সিএনজি চালান। স্বপ্ন দেখেছিলেন তার নিজের একটি বাগান হবে। কিন্তু পারিবারিক কারণে তিনি তা করতে পারেননি। কিন্তু তারপরও তিনি তার স্বপ্ন পূরণ করার চেষ্টা চালিয়ে যান। পেয়েও যান স্বপ্ন পূরণের রাস্তা।


সিএনজি চালানোর সুবাদে দেখা মিলে তপন চন্দ্র ভৌমিক নামে আরেক সিএনজি চালকের। যিনি কিনা তার সিএনজির ছাদে ছোট্ট বাগান করেছেন। যা দেখে যারপর নাই মুগ্ধ হন জাহেদুল। তপনের এই বাগান দেখে নিজেও অনুপ্রাণিত হয়ে সিদ্ধান্ত নেন তিনিও গড়বেন এমন একটি ছোট্ট বাগান।


যেমন চিন্তা তেমন কাজ। তবে যেহেতু তিনি সিএনজিটি ভাড়ায় চালান তাই তার এমন স্বপ্নের কথাটি সিএনজি মহাজনের সঙ্গে শেয়ার করেন। কিন্তু মহাজন তার কথায় তেমন গুরুত্ব দেননি। তাই বলে কি তার স্বপ্ন কখনোই পূরণ হবে না? তা কী করে হয়।


জাহেদুল মহাজনের কাছে প্রস্তাব রাখলেন আমি নিজ খরচে যদি এমন একটি বাগান করতে চাই তাহলে কি আপনি রাজি হবেন? এমন প্রস্তাবে মহাজন আর জাহেদুলকে না করতে পারেননি। ব্যাস আর কি নেমে পড়লেন স্বপ্ন পূরণের পথে। নিজ খরচে অটোরিকশার ছাদে ৩ ফুট প্রস্থ আর ৪ ফুট দৈর্ঘ্যের ক্ষুদ্রায়তনে গড়ে তুললেন স্বপ্নের বাগান।


তবে জাহেদুল তার স্বপ্নের বাগান তৈরির পাশাপাশি নিয়েছেন একটি ব্যতিক্রমী উদ্যোগ। যার জন্য তিনি প্রশংসা পাওয়ার যোগ্য। যে উদ্যোগের কারণে তাকে সিএনজির অন্য চালকদের কাছ থেকে সম্পূর্ণ আলাদা করে রেখেছে। ইতোমধ্যেই জাহেদুলের এ বিষয়টি রাজধানীর মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে।


জাহেদুলের সিএনজির উপরে ফুলের বাগানের সঙ্গে রয়েছে নানান সরঞ্জাম। তার সিএনজিতে বসে আপনি দেখতে পাবেন এলইডি টিভি, জরুরী প্রয়োজনে আপনি সুবিধা পাবেন অক্সিজেন জার থেকে অক্সিজেন ব্যবহার করার। এছাড়া রয়েছে ছোট আয়না, চিরুনি, পানি খাওয়ার ব্যবস্থা, বিনোদনের ব্যবস্থা। ডিজিটাল বাংলাদেশের সুবিধাকে আরও ছড়িয়ে দিতে রেখেছেন ইন্টারনেটে ফ্রি ওয়াইফাই সংযোগ। সেই সঙ্গে দীর্ঘ যাত্রার আড়ষ্টতা কাটাতে রয়েছে বিভিন্ন বই ও পত্রিকা পড়ার ব্যবস্থা।


এমন স্বপ্ন পূরণ করতে গিয়ে জাহেদুল জানান, আমি খুব দরিদ্র ঘরের সন্তান। তারপরও শখ মেটানোর জন্য ৫০ হাজার টাকা লোন নিয়ে এই বাগান করি। টাইম ফুল, বেলি ফুল, মরিচ আর গোলাপ গাছসহ আরও অনেক ধরনের গাছ আছে এই বাগানে। প্রতিদিন আমি দুই ঘণ্টা করে এই অটোরিকশার পেছনে সময় দেই। গাছে পানি দেওয়া লাগে। দিনে ১২ ঘণ্টা সিএনজি চালাই।


জাহেদুল জানায়, আমার বাগানের বয়স এক মাস। যাত্রীদের অনেকেই জাহেদুলের সিএনজিতে উঠে নিজেকে ধন্য মনে করেন বলে জানা যায়।



বিবার্তা/শারমিন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com