পাবলিক বাসে বাসায় ফিরলেন তারানা হালিম
প্রকাশ : ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১২:৫০
পাবলিক বাসে বাসায় ফিরলেন তারানা হালিম
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

সাধারণ যাত্রীর মতো রাজধানীর গণপরিবহনে করে বাসায় ফিরলেন সরকারের তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। পুলিশ প্রটোকল ছাড়াই সচিবালয় থেকে বের হয়ে পুরানা পল্টন থেকে বাসে উঠে যানজট, ধুলোবালি, শব্দ দূষণের মতো যন্ত্রণা মাথায় নিয়ে গুলশানের বাসায় ফেরেন প্রতিমন্ত্রী। একজন প্রতিমন্ত্রী বাসে করে ফেরায় উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন ওই বাসে থাকা যাত্রী, চালক ও তার সহকারীরা।


গতকাল বুধবার সচিবালয়ে অফিস শেষে পাবলিক বাসে বাসায় ফিরেছেন তিনি এবং এখন থেকে নিয়মিত পাবলিক বাসে অফিসে আসা-যাওয়া করবেন বলে জানিয়েছেন।



এ সময় যাত্রীরা প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে সেলফি তুলেছেন, দিয়েছেন বাহবাও। গতকাল বুধবার সচিবালয়ে অফিস করে বেলা সাড়ে ১২টার দিকে তারানা হালিম একটি পাবলিক বাসে করে প্রায় দুই ঘণ্টায় বাসায় ফেরেন বলে জানিয়েছেন। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন একজন এপিএস এবং পিও। একেক জন ১৫টাকা করে ভাড়া দিয়েছি, তারা ভাড়া নিতে চায়নি, বলেছি সাধারণ মানুষের মতোই ভাড়া দেবো, বলেন তারানা হালিম।


তিনি বলেন, সাধারণ মানুষ কীভাবে বাসে যাতায়াত করেন এবং গণপরিবহনের অবস্থা কেমন- তা জানতে পাবলিক ট্রান্সপোর্ট অফিস করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সাধারণ যাত্রীরা একজন প্রতিমন্ত্রীকে বাসে দেখে খুবই খুশি হয়েছেন। পুরানা পল্টনে বাসে ওঠার সময় এবং বাসে উঠে প্রতিমন্ত্রীকে চিনতে পেরে যাত্রীদের অনেকেই সেলফি তোলেন এক সময়ের জনপ্রিয় এই অভিনেত্রীর সঙ্গে। তারা উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন বলে জানিয়েছেন তার সঙ্গে থাকা কর্মকর্তারা।


তথ্য প্রতিমন্ত্রীর জনসংযোগ কর্মকর্তা এনায়েত হোসেন বলেন, পুরানা পল্টন থেকে ঢাকার বহুল ব্যবহৃত ‘৬ নম্বর’ বাসটি তেজগাঁও হয়ে গুলশান-১ নম্বরে যায়। সেখান থেকে হেঁটে বাসায় ফেরেন প্রতিমন্ত্রী।


তারানা হালিম বলেন, বাসের যাত্রীরা সবাই খুশি হয়েছেন। তারা প্রথমে বিশ্বাস করতে পারেননি আমি বাসে উঠবো। আমি সাধারণ যাত্রীদের উচ্ছ্বাস দেখে খুশি হয়েছি, আমারও খুব ভালো লেগেছে।


তিনি বলেন, বাসে উঠে দেখলাম উপরে (ছাদের অংশে) কেটে বাতাস প্রবেশের জন্য ভেন্টিলেটর তৈরি করা হয়েছে। আমি বললাম এটা মাথায় পড়ে কেটে যেতে পারে। তারা বললো ঠিক করে দেবে।



তারানা হালিম আরো বলেন, বাসের সিটের কাভারগুলো তেল চিটচিটে ছিল। আমি বললাম এগুলো হাতে এবং নখে থাকলে কোনো খাবার খেলে তো অসুস্থ হয়ে যাবে মানুষ। কাভারগুলো পরিষ্কার বা পরিবর্তন করে দিতে বললাম, তারা বললো পরিষ্কার করবেন। একজন প্রতিমন্ত্রীর নিরাপত্তার বিষয়টি নিয়ে আমার কোনো চিন্তা ছিল না। বাসে ওঠার সময় আমাকে চিনতে পেরে চালক বললো আপা, পুলিশ ছাড়াই উঠবেন? আমি বললাম হ্যাঁ। তারা বললো আপা আমরাই তো আপনার প্রটেকশন, ওঠেন। সাধারণ মানুষ একজন প্রতিমন্ত্রীর বাসে ওঠার বিষয়টি ভালোভাবে নিয়েছেন, এখন থেকে প্রায় প্রতিদিনই বাসে যাতায়াত করবো, বাসায় ফিরে মোবাইল ফোনে বলেন তারানা হালিম।



এর আগে সকালে সচিবালয়ের এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নে তারানা হালিম বলেছিলেন, ‘চিন্তা করেছি পাবলিক বাসে চলাচল করবো, বিআরটিএতে নয়। আমরা উঠলে যদি তারা (চালক) সচেতন হন। এটা আমরা নিজের একটা দেখার বিষয়, যে একটু দেখি।’


বিবার্তা/শারমিন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com