পুলিশের এ কেমন নিষ্ঠুরতা !
প্রকাশ : ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২০:৩৪
পুলিশের এ কেমন নিষ্ঠুরতা !
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

প্রকাশ্য দিনের আলোয় রাজপথে এক কিশোরীর সাথে পুলিশের নিষ্ঠুর আচরণের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে ফেসবুকে। বুধবার অসংখ্য মানুষ শেয়ার করেছেন ভিডিওটি। তীব্র সমালোচনা ও নিন্দা জানিয়ে কমেন্টও করেছেন অগণিত মানুষ।


মো. আতিকুর রহমান ফয়সাল নামে এক ব্যক্তি বুধবার ৩০ সেকেন্ডের ওই ভিডিও ইউটিউবে পোস্ট করেছেন। এতে দেখা যায়, সড়ক বিভাজকের কাছে রাস্তায় পড়ে থাকা কিশোরীকে একের পর এক চড় মারছেন একজন পুলিশ সদস্য। চড় থাপ্পরে ভারসাম্য রাখতে না পেরে রাস্তার ওপর পড়ে যায় মেয়েটি। তারপরও পুলিশ তার বুকে-মুখে থাপ্পর মারতে থাকে।


এ সময় মেয়েটিকে ঘিরে রাখা আরও দুই পুলিশের একজন হেঁচকা টানে তাকে একদিকে তুলে আনেন। তখন তাদের সঙ্গে থাকা তৃতীয়জন ট্রাফিক পুলিশের সদস্য পাশে পড়ে থাকা ব্যাগ মেয়েটির হাতে দিয়ে রাস্তার একপাশে চলে যেতে বলে। তখন মেয়েটি আবার সড়ক বিভাজকের দিকে যাওয়ার চেষ্টা করলে সেই পুলিশ সদস্য মেয়েটিকে বলেন ‘বাইরে যা’।


একপর্যায়ে মেয়েটি তার ব্যাগ নিয়ে সড়ক বিভাজকের দিকে গেলে এদিকে নজর দিয়ে ভিডিওধারণকারীর দিকে এগিয়ে আসেন পুলিশ সদস্যরা। তাদের একজন বলেন, এই মিয়া, এই! ব্যাপার কি ভিডিও করতেছেন কেন? জবাবে তিনি বলেন, আপনেরা মারতেছেন। আমি ভিডিও করতেছি।


পরে একজন পুলিশ সদস্য বলেন, অই মিয়া যান। বেয়াদপ কোথাকার। আরেকজন এগিয়ে এসে বলেন, এই মিয়া এই মিয়া আপনি পাগল নাকি!




ভিডিওটির কমেন্টে অনেকেই ভিডিওধারণকারীর সাহসের তারিফ করেছেন। তাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন পুলিশের এই নিষ্ঠুর আচরণ তুলে ধরার জন্য।


ভিডিওটি পোস্টকারী ঘটনাস্থল ও এর সময় সম্পর্কে কিছু বলেননি। তবে ঘটনাটি বঙ্গভবনের সামনের রাস্তায় ঘটেছে বলে ভিডিওতে দেখা গেছে। বুধবার দুপুরের দিকে ঘটনাটি ঘটেছে বলে পুলিশের একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা জানিয়েছেন।


বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে জানিয়ে ঢাকা মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার মাসুদুর রহমান বলেন, পুলিশ যে আচরণ করছে সেটা কাম্য নয়।


পুলিশের অপর এক কর্মকর্তা মিডিয়াকে ওই সময় রাষ্ট্রপতির মুভমেন্ট ছিল। ওই মেয়েটি রাস্তা থেকে সরছিল না। তাছাড়া তার কাছে একটা ব্যাগ ছিল, তাই বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল।


ওই তিন পুলিশের মধ্যে মেয়েটিকে মারধরকারী দুই পুলিশ সদস্য প্রোরক্ষা বিভাগে নিয়োজিত জানিয়ে তিনি বলেন, পুলিশের সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তাদের বিষয়টি সম্পর্কে জানানো হয়েছে।


বিবার্তা/রোকন/কাফী


সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com