প্রিয়ার অভিযোগ গভীর ষড়যন্ত্র: আল্লামা শফী
প্রকাশ : ২১ জুলাই ২০১৯, ০৯:২৮
প্রিয়ার অভিযোগ গভীর ষড়যন্ত্র: আল্লামা শফী
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহার করা অভিযোগে গভীর ষড়যন্ত্র দেখছেন হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফী।


শনিবার (২০ জুলাই) সন্ধ্যায় গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে আল্লামা শফী এ আশঙ্কা প্রকাশ করেন। ওই বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন হেফাজতে ইসলামের প্রচার সম্পাদক ও আল্লামা শফীপুত্র মাওলানা আনাস মাদানী।


এতে বলা হয়, ‘সর্বোচ্চ সুবিধাভোগী সংখ্যালঘু নেতার তরফে বাংলাদেশের মুসলমানদের মৌলবাদী বলে কুৎসিত মন্তব্য করে এবং তথ্য দিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্টকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা চালানো হয়েছে। এটি সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত অভিযোগ। আমি এর তীব্র প্রতিবাদ জানাই।’


বলেও বিবৃতিতে জানানো হয়- বাংলাদেশ থেকে হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান মিলিয়ে ৩ কোটি ৭০ লাখ লোক গুম হয়েছে-এ নালিশের কোনো সত্যতা নেই। এদেশে দীর্ঘদিন ধরে সম্প্রীতির সঙ্গে সব ধর্মের লোক মিলেমিশে বসবাস করে আসছে।


বিবৃতিতে কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়ে আল্লামা শফী বলেন, অনতিবিলম্বে প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয়ভাবে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। তাকে আইনের আওতায় এনে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবি জানাচ্ছি। এর ব্যাত্যয় ঘটলে এ ধরনের দেশদ্রোহীদের বিরুদ্ধে হেফাজতে ইসলাম বৃহত্তর কর্মসূচি ঘোষণা করবে।


দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি অক্ষুণ্ন রাখার স্বার্থে সর্বস্তরের তৌহিদি জনতাকে সঙ্গে নিয়ে মাঠে নামবে বলেও জানান হেফাজত আমির আল্লামা শফী।


গত বুধবার (১৭ জুলাই) বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ধর্মীয় নির্যাতনের শিকার হওয়া কয়েকজন ব্যক্তি ট্রাম্পের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। সেখানে চীন, তুরস্ক, উত্তর কোরিয়া, মিয়ানমার, বাংলাদেশসহ ১৭টি দেশের নির্যাতিত ব্যক্তিরা ছিলেন।


সেখানে নিজেকে বাংলাদেশি পরিচয় দেয়া প্রিয়া সাহা ট্রাম্পকে বলেন, স্যার, আমি বাংলাদেশ থেকে এসেছি। সেখানে ৩৭ মিলিয়ন হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান বিলীন হয়ে গেছে। দয়া করে আমাদের সাহায্য করুন। আমরা বাংলাদেশেই থাকতে চাই। সেখানে এখনো ১৮ মিলিয়ন সংখ্যালঘু মানুষ রয়েছে। আমার অনুরোধ দয়া করে আমাদের সাহায্য করুন। আমরা আমাদের দেশ ছাড়তে চাই না। শুধু থাকার জন্য সাহায্য করুন।


তিনি আরো বলেন, আমি আমার বাড়িঘর হারিয়েছি, তারা আমার বাড়ি-ঘর জ্বালিয়ে দিয়েছে। তারা আমার জমিজমা দখল করে নিয়েছে। কিন্তু তারা (সরকার) কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। এখন পর্যন্ত।


এ সময় ট্রাম্প ওই নারীকে প্রশ্ন করেন, কারা জমি দখল করেছে, করা বাড়ি-ঘর দখল করেছে? ট্রাম্পের প্রশ্নের উত্তরে ওই নারী বলেন, তারা মুসলিম মৌলবাদী গ্রুপ এবং তারা সব সময় রাজনৈতিক আশ্রয় পায়। সব সময়ই পায়।


ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশ নিয়ে এমন মিথ্যাচারের ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। তার বক্তব্য নিয়ে ইতোমধ্যে ব্যাপক বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে।


বিবার্তা/রবি

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com