ভোটের আগে সেনা মোতায়েন করা হবে: ইসি সচিব
প্রকাশ : ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ১৩:০০
ভোটের আগে সেনা মোতায়েন করা হবে: ইসি সচিব
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দুই থেকে তিনদিন আগে সেনা মোতায়েন করা হবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ।


রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে বৃহস্পতিবার সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের ব্রিফিং ও দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান।


ইসি সচিব বলেন, সংসদ নির্বাচনের দুই থেকে তিনদিন অথবা সাত থেকে ১০ দিন আগে নির্বাচনী এলাকায় সেনাবাহিনী যাবে। ওই সময় নির্বাচনী এলাকায় বিজিবিও (বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড) মোতায়েন করা হবে।


বিএনপিসহ তাদের জোট সংসদ নির্বাচনে ম্যাজিস্ট্রেসি ক্ষমতাসহ সেনা মোতায়েনের দাবি জানিয়ে আসছে। অন্যদিকে এর বিরোধিতা করে আওয়ামী লীগ বলেছে, ম্যাজিস্ট্রেসি ক্ষমতাসহ সেনা মোতায়েন করার কোনো সুযোগ নেই। স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে তারা দায়িত্ব পালন করতে পারে।


তখন ইসি বলেছিল, সেনাবাহিনী মোতায়েন করার চিন্তা তাদের রয়েছে। তফসিলের পর কমিশন বসে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে।


এরপর ৮ নভেম্বর প্রথম দফা তফসিল ঘোষণার দিন জাতির উদ্দেশে ভাষণে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা বলেন, এবার সেনা মোতায়েন হবে আগের মতোই। অর্থাৎ সেনাবাহিনীর বিচারিক ক্ষমতা থাকবে না। নির্বাচন চলাকালে আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে বেসামরিক প্রশাসনকে যথা-প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদানের ‘এইড টু দ্য সিভিল পাওয়ার’ বিধানের অধীনে সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েন থাকবে।


সেনাবাহিনী মোতায়েনের বিষয়টি এতদিন কমিশনের চিন্তার মধ্যে থাকলেও বৃহস্পতিবার সরাসরি এ নিয়ে তাদের বক্তব্য এলো।


ইসি সচিব হেলালুদ্দীন বলেন, প্রিসাইডিং অফিসারদের থাকার ব্যবস্থা এখন থেকে করতে হবে। কোথায় প্রিসাইডিং অফিসারদের প্রশিক্ষণ দেয়া হবে সেটাও এখন থেকে ঠিক করে রাখতে হবে। যেখান থেকে ফলাফল ঘোষণা করা হবে এখন থেকে ঠিক করে রাখতে হবে।


সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, গতকাল নয়াপল্টনে অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটেছে। এটা যেন আর পুনরাবৃত্তি না হয়। আচরণবিধি ঠিকভাবে পালন হয় সেদিকে আপনারা নজর রাখবেন।


সভাপতির বক্তব্যে ইসি সচিব বলেন, নির্বাচনী পোস্টার ব্যানার সরিয়ে ফেলাসহ মাঠের পরিবেশের দিকে সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের। দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেন, এবার নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হলে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে মুখ দেখানো যাবে না।


সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের সাহসিকতার সাথে কাজ করার নির্দেশনা দিয়ে তিনি বলেন, যদি কেউ নির্বাচনকে ভণ্ডুল করতে চায়, তবে আইনের মধ্যে থেকে সর্বোচ্চ ব্যবস্থা নিতে হবে। কোনো কর্মকর্তা শিথিলতা দেখালে তার বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেয়া হবে।


বৃহস্পতিবারের এই ব্রিফিংয়ে অংশ নেন চট্টগ্রাম, সিলেট ও বরিশাল বিভাগের সহকারী রিটানিং কর্মকর্তারা।


বিবার্তা/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com