ফুলবাড়ী ট্রাজেডি দিবস আজ
প্রকাশ : ২৬ আগস্ট ২০১৮, ০৯:২৮
ফুলবাড়ী ট্রাজেডি দিবস আজ
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

আজ ২৬ আগস্ট। ফুলবাড়ী ট্রাজেডি দিবস। দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলায় উন্মুক্ত পদ্ধতিতে কয়লাখনি না করার দাবিতে ২০০৬ সালের এই দিনে 'তেল, গ্যাস, খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি'র উদ্যোগে বহুজাতিক কোম্পানি এশিয়া এনার্জির অফিস ঘেরাও করার চেষ্টা করা হয়।


এ সময় তৎকালীন বিডিআরের গুলিতে কলেজ ছাত্র তরিকুল, আমিন ও সালেকিন নামে তিন যুবক নিহত ও দুই শতাধিক নারী-পুরুষ আহত হন। এদের মধ্যে গুলিবিদ্ধ সুজাপুরের বাবলু রায়ের মতো অনেকেই এখনো পঙ্গুত্বের অসহনীয় যন্ত্রণা বয়ে বেড়াচ্ছেন। সাহাবাজপুরের গুলিবিদ্ধ প্রদীপ সরকার বছর দেড়েক আগে মারা গেছেন।


২০০৬ সালের ২৬ আগস্ট থেকে ৩০ আগস্ট পর্যন্ত জনতার আন্দোলন-সংগ্রামে উত্তাল ছিল ফুলবাড়ী খনি এলাকা। ২৮ আগস্ট এশিয়া এনার্জির সুবিধাভোগী হিসেবে চিহ্নিত কয়েক ব্যক্তির বাড়িঘর ভাঙচুর চালিয়ে পুড়িয়ে দেয় বিক্ষুব্ধ জনতা।


গণআন্দোলনের মুখে তৎকালীন বিএনপি-জামায়াত ৪ দলীয় জোট সরকারের পক্ষ থেকে ৩০ আগস্ট সন্ধ্যায় পার্বতীপুর উপজেলা পরিষদ অডিটরিয়ামে সমঝোতা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে সরকারের ছয়দফা সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এতে সরকারের পক্ষে স্বাক্ষর করেন তৎকালীন রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র মিজানুর রহমান মিনু এবং আন্দোলনকারীদের পক্ষে স্বাক্ষর করেন তেল, গ্যাস, খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহম্মদ।


এ সময় সরকারের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন তৎকালীন খাদ্য ও দুর্যোগ মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী আসাদুল হাবীব দুলু এবং আন্দোলনকারীদের পক্ষে জাতীয় কমিটির কেন্দ্রীয় নেতা জোনায়েদ সাকি, নজরুল ইসলাম, সৈয়দ মোসাদ্দেক হোসেন লাবু, মোশাররফ হোসেন নান্নু, উপজেলা শাখা আহ্বায়ক সৈয়দ সাইফুল ইসলাম জুয়েল, সদস্য সচিব আব্দুল মজিদ চৌধুরীসহ বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।


ছয় দফা চুক্তির মধ্যে রয়েছে এশিয়া এনার্জিকে ফুলবাড়ি ও দেশ থেকে বহিষ্কার, উন্মুক্ত পদ্ধতির কয়লাখনি ফুলবাড়িসহ দেশের কোথাও না করা, পুলিশ-বিডিআরের গুলিতে নিহতদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ প্রদান, আহতদের প্রয়োজনীয় চিকিৎসার ব্যবস্থা, গুলিবর্ষণসহ হতাহতের প্রকৃত কারণ উদঘাটনে তদন্ত কমিটি গঠন, শহীদের স্মৃতিসৌধ নির্মাণসহ এশিয়া এনার্জির দালালদের গ্রেফতারসহ শাস্তি প্রদান, আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা সকল মামলা প্রত্যাহার এবং নতুন করে মামলা না করা।


তৎকালীন বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার ছয়দফা চুক্তির আংশিক বাস্তবায়ন করে। ছয়দফা চুক্তি পূর্ণ বাস্তবায়নের দাবিতে এখনো ফুলবাড়ি খনি অঞ্চলের মানুষ আন্দোলন-সংগ্রাম অব্যাহত রেখেছে।


অপরদিকে ২৬ আগস্ট দিনটিকে তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি ‘ফুফুলবাড়ী দিবস ও জাতীয় সম্পদ রক্ষা দিবস’ এবং স্থানীয়ভাবে গড়ে ওঠা সম্মিলিত পেশাজীবী সংগঠন ‘ফুলবাড়ি শোক দিবস’ হিসেবে পৃথকভাবে পালন করে আসছে।


বিবার্তা/শাহী/সোহান/কামরুল

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com