ঈদে বাড়িতেই রূপচর্চা
প্রকাশ : ১৪ জুন ২০১৮, ১৬:২৯
ঈদে বাড়িতেই রূপচর্চা
মডেল: জাকিয়া ইমি
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

ঈদের আগের এই চার দিন রূপচর্চায় কিছুটা সময় দিন। বাড়িতে কিংবা পারলারে ত্বক, চুলের কিছুটা যত্ন নিলেই ঈদের দিন থাকবেন সজীব ও প্রাণবন্ত। সাধারণ সাজ, কিন্তু দেখাচ্ছে জমকালো। দৃষ্টি ধরে রাখার মতো লুক। ঈদ উৎসব বলে কথা। আবেদনময় কালো আর সোনালির আভায় চোখ, সঙ্গে মানানসই ঠোঁট এবং চুলের স্টাইল। এজন্য প্রয়োজন যত্ন। শুধু রাত কিংবা দিন নয়, প্রাণবন্ত থাকুন যে কোনো সময়ই।


ঘরোয়া ফেসিয়াল মাস্ক


ঈদের ঠিক আগেই রাসায়নিক পদার্থ বেশি আছে, এমন প্রসাধন ব্যবহার না করাই ভালো। ফেসিয়াল করলেও তা চানরাতে নয়। ঈদের আগের দিন শুধু মেহেদি ছাড়া পারলারে অন্য কোনো সেবা না নেয়াই ভালো। ঘরে বসে শেষ চার দিন ফেসিয়াল ও ফেস মাস্ক ব্যবহার করলে ত্বক ফিরে পাবে তার উজ্জ্বলতা।


ঘরোয়া ফেসিয়াল করতে পারেন। দরকার হবে ক্লিনজার, স্ক্রাবার ও ফেসিয়াল মাস্ক।


ফেসিয়ালের শুরুতে ১৫ মিনিট ক্লিনজার দিয়ে মালিশ করে ত্বক পরিষ্কার করে নিন। এরপর ১০ মিনিট স্ক্রাবার দিয়ে একইভাবে পরিষ্কার করুন। মুখ ধুয়ে ১ চা-চামচ টমেটো রসের সঙ্গে ১ চ-চামচ টকদই মিশিয়ে মুখে লাগান। ১৫/২০ মিনিট পর হালকা মালিশ করে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি প্রাকৃতিক ব্লিচের কাজ করে ত্বককে উজ্জ্বল করবে। শেষে আপনার ত্বকের সঙ্গে মানানসই, এমন মসুরের ডাল বা বেসনের প্যাক লাগিয়ে ফেলুন। শুকানোর পর ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাক ত্বককে সতেজ করে। ত্বকের জন্য এই ফেসিয়ালটি যথেষ্ট।


এই দিন ত্বক ডিপ ক্লিন করার প্রয়োজন নেই। তবে গোসলের আগে একটি ফেসপ্যাক ব্যবহার করতে পারেন। রোজার মাসে অনেকের ত্বক রুক্ষ ও কুঁচকে যায়। এ সমস্যার সমাধান দেবে দুধের একটি প্যাক। আধা কাপ দুধের সরের সঙ্গে ১ চা-চামচ মধু মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে ১০/১৫ মিনিট রাখুন। এরপর হালকা মালিশ করে আরও ৫ মিনিট রেখে দিন। এই প্যাক ত্বকের রুক্ষতা দূর করে উজ্জ্বলতা বাড়াবে।


ত্বকে কোনো প্যাক লাগানোর প্রয়োজন নেই। কারণ আগের দিন যে প্যাক লাগানো হয়েছে, তা ২৪ ঘণ্টা কাজ করবে। ত্বক শুধু পরিষ্কার রাখুন।


ম্যানিকিউর ও পেডিকিউর


চানরাতে যেহেতু মেহেদি লাগাবেন, তাই হাত–পায়ের ময়লা পরিষ্কার করে নিন। হালকা গরম পানিতে শ্যাম্পু ও লবণ দিয়ে পরিষ্কার করে নিন। নখের জন্য পুরোনো কোনো ব্রাশ ব্যবহার করে চারপাশের ময়লা তুলে ফেলুন। এতে মরা চামড়া উঠে যাবে এবং মেহেদির রং বসবে ভালো।


চানরাতের জন্য ব্যবহার করতে পারেন সহজ একটি ফেসপ্যাক। এই দিন প্রথমে ডিপ ক্লিন করতে হবে ভালোমতো। তবে স্ক্রাবিং করবেন না। কারণ, ১৫ দিন পর এক দিন স্ক্রাবিং করলেই হয়। এবার ২ চা-চামচ পাকা পেঁপে, ২ চা-চামচ গাজর পেস্ট ও ১ চা-চামচ দুধের সর একসঙ্গে পেস্ট করুন। এবার মুখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।


পারলারে রূপচর্চা


ফেশিয়াল
এবার ঈদে যেহেতু গরম ও বর্ষার প্রভাব থাকবে, তাই ত্বক ঘেমে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। এই সময় হোয়াইটনিং ফেসিয়াল করতে পারেন। গোল্ড, পার্ল বা ডায়মন্ড—যেকোনো হোয়াইটনিং ফেসিয়াল ব্যবহার করতে পারেন, যা ত্বকে কড়া রোদের পোড়া ভাব কমাবে ও উজ্জ্বলতা বাড়াবে। তবে যাদের ব্রণ ও ত্বকে অ্যালার্জি আছে, তারা এই ফেসিয়াল করা থেকে বিরত থাকুন।


মালিশ


কেউ যদি ঈদের আগে ফেসিয়াল না করতে চান, তবে তারা ডিপ ক্লিনিং ম্যাসাজ করে নিতে পারেন। ৩ দিন পর পর এই ম্যাসাজ করা যায়। ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়িয়ে ও ভেতর থেকে পরিষ্কার করে ব্রণ, অ্যালার্জি কমাতে সহায়তা করবে।


ঈদ উৎসব, অতিথি আপ্যায়ন, ঘুরে-বেড়ানো, এক কথায় দারুণ ব্যস্ততা। এ তো ঈদ উৎসবেরই নামান্তর। এর আগে এক মাস সিয়াম সাধনার পাশাপাশি ঈদের প্রস্তুতিতে শপিং মলে কেনাকাটায় দৌড়ঝাঁপ। রোজার এই সময়ই নানা কাজে ত্বকের যত্ন নেয়া হয়ে ওঠে না। তাই ঈদের কিছুদিন আগে থেকেই ত্বকের বাড়তি যত্ন নেওয়া উচিত।


বিবার্তা/শারমিন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com