গরম পানি পানের উপকারিতা
প্রকাশ : ১৫ নভেম্বর ২০২০, ১৭:১৯
গরম পানি পানের উপকারিতা
অনামিকা রায়
প্রিন্ট অ-অ+

মা রোজ পইপই করে বলতেন, গরম পানি খাও! আর এখন আপনার যোগব্যায়ামের ইনস্ট্রাক্টরও ঠিক একই কথা বলেন! শুধু তাই নয়,বন্ধুদের কাছ থেকেও শুনেছেন গরম পানি খাওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে ভালো! এতে শরীরের মেদ কমে, ত্বক ভালো থাকে ইত্যাদি ইত্যাদি কথা। কিন্তু শুধু এর ওর কাছ থেকে শোনা কথার উপরেই ভরসা করবেন, নাকি নিজেই অনুসন্ধান করে জেনে নেবেন গরম পানি খাওয়ার উপকারিতা কী কী, যাতে নিজেই এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে পারেন।


পানির অপর নাম জীবন। পানি ছাড়া গোটা একটা দিন আমরা কল্পনাতেও আনতে পারি না। আমাদের শরীরের ৭০ শতাংশই গড়ে উঠেছে পানি দিয়ে, তাই শরীরকে সুস্থ ও সতেজ রাখার জন্য পানির গুরুত্ব কতটা তা বোঝার বা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই।সুস্বাস্থ্যের জন্য পানি সবসময়ই ভীষণভাব প্রয়োজনীয়। কিডনি ভালো রাখতে, কোলেস্টরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে, শরীরে শক্তির জন্য পানি খাওয়া ভীষণভাবে দরকারি। গরম পানি এইসবের সঙ্গেই আরো বেশকিছু উপকার করে আমাদের শরীরে। বিভিন্ন শারীরিক সমস্যার ঘরোয়া টোটকা হিসেবে কাজ দেয় গরম পানি।


ভালো পরিপাক


পরিপাক হরমোনগুলিকে উদ্দীপিত করে গরম পানি। ফলে পরিপাকের হার বাড়ে। খাবারকে দ্রুত ভাঙতে ও খাদ্যরস শোষণে সাহায্য করে গরম পানি। এই কারণে রেস্তরাঁয় খাবার পর চা-কফি অফার করা হয়।


শরীরের বিষাক্ত পদার্থ নির্গত করে


গরম পানি ঘাম ও মূত্রের মধ্যে দিয়ে শরীরের টক্সিন দূর করতে সাহায্য করে। গরম পানি শরীরে তাপমাত্রা বাড়িয়ে দেয়। ফলে ঘাম বেশি হয়। এতে করে শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ দূর হয়।


রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়


গরম পানি রক্তে ফ্যাট জমতে দেয় না। রক্ত সঞ্চালন বাড়িয়ে তোলে। পেশীকে শিথিল করে। ফলে রক্ত সহজেই সংবাহিত হতে পারে। গরম পানিতে গোসলও একই কারণে উপকারী। ধমনী ও শিরাকে প্রসারিত করে গরম পানি।


যন্ত্রণার উপশম ঘটায়


মাথা যন্ত্রণা, গাঁটে গাঁটে ব্যথা, মহিলাদের ক্ষেত্রে পিরিয়ডে খিঁচুনিতে আরাম দেয় গরম পানি।


ওজন ঝরাতে সাহায্য করে


শরীরের অতিরিক্ত মেদ ঝরাতে সাহায্য করে গরম পানি। গরম পানি খিদে কমায়। ফলে 'ক্যালোরি ইনটেক' কম হয়। যে কারণে ওজন বৃদ্ধি হয় না। অনেক ডায়েট খাবারের থেকেও ভালো কাজ দেয় গরম পানি।


বার্ধক্য আসতে দেয় না


যেকোনো অ্যান্টি-এজিং প্রোডাক্টের চেয়ে অনেক বেশি কাজ দেয় গরম পানি। গরম পানি যেহেতু শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ দূর করে, ফলে ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখে। বার্ধক্যের ছাপ পড়তে দেয় না। বলিরেখা আসতে দেয় না।


কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে


শরীর শুষ্ক হয়ে গেলেই কোষ্ঠকাঠিন্য হয়। কারণ অন্ত্রের মধ্যে দিয়ে তখন আর খাবার নীচের দিকে নামতে পারে না। গরম পানি শরীরে পানির সমতা ফেরায়। খাবারকে তাড়াতাড়ি পরিপাক করে। ফলে কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয়।


ত্বক পরিষ্কার করে


গরম পানি খেলে ত্বকের রোম কূপগুলি খুলে যায়। ফলে টক্সিন, দূষিত পদার্থ শরীর থেকে বেরিয়ে যেতে পারে। সেইসঙ্গে গরম পানি হল প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার। ফলে ত্বককে শুষ্ক হতে দেয় না। পাশাপাশি শরীর থেকে ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়াকে দূর করে। ফলে ব্রণ, অ্যাকনের মত ত্বকের সংক্রমণ কম হয়।


বিবার্তা/অনামিকা/জাই


সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com