তুলসী পাতার অজানা যত উপকারিতা
প্রকাশ : ১১ নভেম্বর ২০২০, ১৯:৪১
তুলসী পাতার অজানা যত উপকারিতা
অনামিকা রায়
প্রিন্ট অ-অ+

তুলসী-নামটা শুনলেই মনে মাঝে একটা ছবি ভেসে ওঠে। বাঙালী হিন্দু বাড়িতে সন্ধ্যেবেলা কোন বধু তুলসী তলায় প্রদীপ জ্বালিয়ে শাঁখ বাজচ্ছে। ঠাকুমা দিদিমাদের হাত ধরে কচিকাঁচারা সন্ধে হলেই প্রণাম করে আসত তুলসী বেদীতে। আর সকাল হলেই একটা পাতা ছিঁড়ে নিয়ে মুখে পুরে না দিলেই বাড়ির বড়দের বকুনি চলত খুব। সেসব দিন আজ নেই। ফ্ল্যাট বাড়ির জানলায় বাড়তি জায়গা থাকলে কখনও কখনও এটা ওটা গাছ রাখা হয় ঠিকই, কিন্তু তুলসী পাতা চেনা হয়ে ওঠে না কারোর।


অথচ প্রাচীন কাল থেকেই তুলসীর ভেষজ গুণ নিয়ে আলোচনা হয়ে আসছে। তুলসী একটি ঔষধি গাছ। তুলসী অর্থ যার তুলনা নেই। তুলসী এর ইংরেজি নাম Holy basil এবং বৈজ্ঞানিক নাম হচ্ছে Ocimum basilicum Linn.


তুলসী আমাদের দেশে জন্মানো খুবই সাধারণ একটি উদ্ভিদ। তবে সাধারণ হলেও অসাধারণ গুণ তুলসীর মধ্যে বিদ্যমান। হিন্দুদের বিভিন্ন ধর্মীয় কাজে লাগে বলে বাড়িতে-মন্দিরে তুলসী গাছ লাগিয়ে থাকে। হিন্দু দেবতা নারায়ণের প্রসাদ লাভের জন্য তাঁর চরণে একটি করে তুলসী পাতা দেওয়া হয়। তাছাড়া হিন্দু -মুসলিম সবার বাড়িতেই তুলসী গাছ দেখতে পাওয়া যায়। ঠান্ডা লাগলে তুলসী পাতা ম্যাজিকের মতো কাজ করে। গলার সব রকম সমস্যায় তুলসী পাতা ব্যবহৃত হয়।


হার্টের অসুখ: তুলসী পাতায় আছে ভিটামিন সি ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এই উপাদানগুলো হার্টকে বিভিন্ন সমস্যা থেকে মুক্ত রাখে সহায়তা করে। তুলসী পাতা হার্টের কর্মক্ষমতা বাড়ায় ও এর স্বাস্থ্য ভালো রাখে।


মানসিক চাপ: তুলসীর ভিটামিন সি ও অন্যান্য অ্যান্টিঅক্সিডেন্টগুলো মানসিক চাপ কমাতে সহায়তা করে। এই উপাদানগুলো নার্ভকে শান্ত করে। এ ছাড়াও তুলসী পাতার রস শরীরের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে।


মাথা ব্যথা: মাথা ব্যথা ও শরীর ব্যথা কমাতে তুলসী খুবই উপকারী। এর বিশেষ উপাদান মাংশপেশীর খিঁচুনি রোধ করতে সহায়তা করে।


বয়স রোধ করা: ভিটামিন সি, ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস ও এসেন্সিয়াল অয়েলগুলো চমৎকার অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের হিসেবে কাজ করে যা বয়সজনিত সমস্যাগুলো কমায়। তুলসী পাতাকে যৌবন চিরকাল ধরে রাখার টনিক ও মনে করেন কেউ কেউ।


রোগ নিরাময় ক্ষমতা: তুলসী গাছের ঔষধি-গুণাবলি সমৃদ্ধ গাছ। তুলসীকে নার্ভের টনিক বলা হয় এবং এটা স্মরণশক্তি বাড়ানোর জন্য বেশ উপকারী। এটি শ্বাসনালী থেকে শ্লেষ্মাঘটিত সমস্যা দূর করে। তুলসী পাতা পাকস্থলীর ও কিডনির স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত উপকারী।


পোকার কামড়: তুলসী পাতা হল প্রোফাইল্যাক্টিভ যা পোকামাকড় কামড়ে দিলে উপসম করতে সক্ষম। পোকার কামড়ে আক্রান্ত স্থানে তুলসী পাতার তাজা রস লাগিয়ে রাখলে পোকার কামড়ের ব্যথা ও জ্বলা থেকে কিছুটা মুক্তি পাওয়া যায়।


ত্বকের সমস্যা: তুলসী পাতার রস ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। তুলসী পাতা বেঁটে সারা মুখে লাগিয়ে রাখলে ত্বক সুন্দর ও মসৃণ হয়। এ ছাড়াও তিল তেলের মধ্যে তুলসী পাতা ফেলে হালকা গরম করে ত্বকে লাগালে ত্বকের যে কোনও সমস্যায় বেশ উপকার পাওয়া যায়। এ ছাড়াও ত্বকের কোনও অংশ পুড়ে গেলে তুলসীর রস এবং নারকেলের তেল ফেটিয়ে লাগালে জ্বালা কমবে এবং সেখানে কোনও দাগ থাকবে না।


বিবার্তা/আবদাল

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com