প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা করবেন আইনজীবী জিশান
প্রকাশ : ২০ জুলাই ২০১৯, ১৪:১৩
প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলা করবেন আইনজীবী জিশান
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

বাংলাদেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের বিষয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে মিথ্যা অভিযোগ দেয়ায় প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার মামলার প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে।


রবিবার (২১ জুলাই) মন্ত্রণালয়ের আদেশ পাওয়ার পরই মামলাটি করা হবে। মামলাটি করবেন সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী মোহাম্মদ জিশান মাহমুদ।


শনিবার (২০ জুলাই) দুপুরে তিনি বিবার্তাকে এ তথ্য জানিয়েছেন।


তিনি বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে দেশের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দেয়ায় প্রিয়া সাহারাষ্ট্রদ্রোহিতার অপরাধ করেছেন। তাই বাংলাদেশ দণ্ডবিধি আইনের ১২৩ (ক) ১২৪ (ক)/৫০৫ ধারায় একটি মামলার প্রস্তুতি নিয়েছি। কিন্তু মামলা ফৌজদারি কার্যবিধি, ১৮৯৮-এর ১৯৬ ধারার বিধান মোতাবেক রাষ্ট্রদ্রোহিতা অভিযোগ আমলে নেয়ার পূর্বপ্রস্তুতি হিসেবে সরকার কর্তৃক অনুমোদনের প্রয়োজন হয়।


আইনজীবী মোহাম্মদ জিশান মাহমুদ জানান, এজন্য রবিবার (২১ জুলাই) সকালে একটি আবেদন নিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিবের কাছে যাব। সেখানে অনুমতি পেলেই ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের (সিএমএম) আদালতে মামলা করা হবে।


এদিকে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের বিষয়ে ট্রাম্পের কাছে মিথ্যা তথ্য তুলে ধরার একটি ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর শনিবার (২০ জুলাই) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।


পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রিয়া সাহা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কাছে যে ভয়ঙ্কর মিথ্যা অভিযোগ করেছে, বাংলাদেশ সরকার দৃঢ়ভাবে এর প্রতিবাদ ও কঠোর নিন্দা জানায়। এর পেছনে বাংলাদেশের মারাত্মক ক্ষতির কোনো উদ্দেশ্য রয়েছে বলেও মনে করছে সরকার।


বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, বাংলাদেশ ধর্মীয় স্বাধীনতা ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির একটি বাতিঘর, যেখানে সব ধর্ম ও সম্প্রদায়ের মানুষ যুগ যুগ ধরে শান্তিতে বসবাস করে আসছেন।


জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত ১১ লাখেরও বেশি মিয়ানমারের নাগরিকদের (রোহিঙ্গা) অস্থায়ীভাবে আশ্রয় দেয়ার পর বাংলাদেশের মানুষের মানবিকতা ও উদারতা বিশ্বব্যাপী প্রসংশিত হয়েছে।


বাংলাদেশ সরকার আশা করে- এ ধরনের বড় আন্তর্জাতিক অনুষ্ঠানের আয়োজকরা দায়িত্বশীল ব্যক্তিদের আমন্ত্রণ জানাবেন, যারা ধর্মীয় স্বাধীনতার মূল্যবৃদ্ধিতে সত্যিকারের অবদান রাখবে।


১৬ জুলাই ধর্মীয় নিপীড়নের শিকার ২৭ ব্যক্তির সঙ্গে বৈঠক করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সেখানে ১৬ দেশের প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করেন। বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রিয়া সাহাও প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে কথা বলার সুযোগ পান।


এ সময় প্রিয়া সাহা মার্কিন প্রেসিডেন্টকে বলেন, ‘আমি বাংলাদেশ থেকে এসেছি। বাংলাদেশে ৩ কোটি ৭০ লাখ হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান নিখোঁজ রয়েছেন। দয়া করে আমাদের লোকজনকে সহায়তা করুন। আমরা আমাদের দেশে থাকতে চাই।’


তিনি বলেন, ‘এখন সেখানে ১ কোটি ৮০ লাখ সংখ্যালঘু রয়েছে। আমরা আমাদের বাড়িঘর খুইয়েছি। তারা আমাদের বাড়িঘর পুড়িয়ে দিয়েছে, তারা আমাদের ভূমি দখল করে নিয়েছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনো বিচার পাইনি।’


বিবার্তা/খলিল/রবি

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com