বাণিজ্য গণতান্ত্রিক সমাজের মূল অংশ: প্রধান বিচারপতি
প্রকাশ : ০৬ জুলাই ২০১৯, ২১:১৪
বাণিজ্য গণতান্ত্রিক সমাজের মূল অংশ: প্রধান বিচারপতি
ফাইল ছবি
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেছেন, বাণিজ্য একটি গণতান্ত্রিক সমাজের মূল অংশ। আইনজীবী এবং বিচারকদের দেশের বাণিজ্যিক আইন ও সর্বশেষ উন্নয়নের সঙ্গে ভালভাবে পরিচিত হওয়া উচিত।


শনিবার সুপ্রিম কোর্ট জাজেজ স্পোর্টস কমপ্লেক্সে ‘কমার্শিয়াল লিগ্যাল প্র্যাকটিস অ্যান্ড রিসেন্ট ডেভেলপমেন্ট ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক এক সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন।


প্রধান বিচারপতি বলেন, বাণিজ্য একটি গণতান্ত্রিক সমাজের মূল অংশ। তবে বাংলাদেশে বাণিজ্যিক লেনদেন অনেক কারণে উৎসাহ দেয়া হয় না। আমি মনে করি, আইনজীবী এবং বিচারকদের দেশের বাণিজ্যিক আইন ও সর্বশেষ উন্নয়নের সঙ্গে ভালভাবে পরিচিত হওয়া উচিত।


তিনি বলেন, বাণিজ্যিক বিরোধগুলোর দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য ক্রমবর্ধমান আন্তর্জাতিক বাণিজ্যিক কার্যক্রমগুলির বিবেচনায় দীর্ঘদিন ধরে সালিসি বিষয়ে আইনের আধুনিকীকরণ এবং আপডেট করার জন্য সর্বদা চাহিদা ছিল। সে কারণেই বাংলাদেশ পুরনো সালিসি আইন, ১৯৪০ বাতিল করে নতুন সালিসি আইন প্রণয়ন করা হয়েছে।


সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেন, বাংলাদেশে ব্যবসা করার সহজতর উন্নতির জন্য ওয়ান-স্টপ সেবা অবিলম্বে চালু করার প্রয়োজন রয়েছে।


প্রধান বিচারপতি আরো বলেন, বাণিজ্যিক আইন প্রণয়ন ও আনুষ্ঠানিক বিচারব্যবস্থা বা সালিসির মাধ্যমে মামলাগুলি দ্রুত নিষ্পত্তি করা বাংলাদেশে অস্বীকার করা হয় না। আন্তর্জাতিক বাণিজ্যিক সালিসি আন্তর্জাতিক ব্যবসা ও অর্থনৈতিক বিরোধের দৃঢ়তার মধ্যে আন্তর্জাতিক আইনের সুযোগ ও গুরুত্বকে এখন বিস্তৃত করেছে।


তিনি বলেন, বিশ্বের কোনো অঞ্চলকে শিল্প বা কোনো আন্তর্জাতিক ক্রিয়াকলাপের সাথে অর্থনৈতিক ক্রিয়াকলাপ বাণিজ্যিক সালিসি প্রভাবের এলাকা থেকে আজকে বাদ দেয়া হয় না।


এ সেমিনার বাংলাদেশে বাণিজ্যিক সালিসি, চুক্তি এবং চ্যালেঞ্জ বাস্তবায়নে, বাংলাদেশে ব্যবসা সহজে এবং বাণিজ্যিক আইন ইত্যাদি চ্যালেঞ্জগুলিতে মনোনিবেশ করবে বলে প্রধান বিচারপতি আশা প্রকাশ করেন।


আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি ও বিচার বিভাগীয় সংস্কারের জন্য সুপ্রিমকোর্টের বিশেষ কমিটির চেয়ারম্যান বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলীর সভাপতিত্বে সেমিনারে আরো বক্তৃতা করেন ইউএনডিপি বাংলাদেশের আবাসিক প্রতিনিধি সুন্দীপ মুখার্জী।


বিচারপতি ইমান আলী বলেন, আরবিট্রেশন প্রক্রিয়ায় আইনি কাঠামো পরিবর্তন সম্ভব। আদালতে না যেয়েও বিরোধ নিষ্পত্তি সম্ভব। তা স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক উভয়ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। সূত্র: বাসস


বিবার্তা/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com