হাতিরঝিলের গুলশান লেকে ওয়াটার ট্যাক্সি চলাচলে নিষেধাজ্ঞা
প্রকাশ : ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ২২:৪৫
হাতিরঝিলের গুলশান লেকে ওয়াটার ট্যাক্সি চলাচলে নিষেধাজ্ঞা
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

হাতিরঝিলের গুলশান লেকে পুলিশ প্লাজার পেছন থেকে গুলশান বাড্ডা লিংক রোডে ওয়াটার ট্যাক্সি চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন হাইকোর্ট। জনস্বার্থে করা এ সংক্রান্ত এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে সোমবার হাইকোর্টের বিচারপতি তারিকুল হাকিম ও বিচারপতি সোহরাওয়ারদীর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন।


আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ব্যারিস্টার শুক্লা সারওয়াত সিরাজ। অন্যদিকে, রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আমাতুল করিম।


আদালত সূত্র জানায়, আদেশে বলা হয়েছে- গুলশান লেকে ওয়াটার ট্যাক্সি চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে ওয়াটার ট্যাক্সির সৃষ্ট ঢেউয়ের আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত জায়গা মেরামত না হওয়া পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে। গুলশান বাড্ডা লেকের তীরবর্তী ওয়াকওয়ে ধসের কারণে লেকপাড়ের ভবনগুলো ঝুঁকির সম্মুখীন হওয়ায় ট্যাক্সি চলাচল কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত।


আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান এবং ওয়াটার ট্যাক্সি পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান করিম গ্রুপ, আইজিপি, ডিএমপি কমিশনারকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।


হাইকোর্টে এ রিট আবেদনটি দায়ের করেন গুলশান সোসাইটির সেক্রেটারি জেনারেল ও সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার শুক্লা সারওয়াত সিরাজ।


রিটকারী আইনজীবী ব্যারিস্টার শুক্লা সারওয়াত সিরাজ বলেন, লেকপাড় বাঁধানো এবং ওয়াকওয়ে সংস্কারে দেওয়া হয়েছে। ইতোপূর্বে গুলশান বাসিন্দাদের পক্ষ থেকে গত সেপ্টেম্বরে একটি স্বাক্ষর সংগ্রহ অভিযান চালানো হয়। এর ফলশ্রুতিতে কিছুদিন ওয়াটার ট্যাক্সি চলাচল বন্ধ রাখা হয়। কিন্তু লেক পাড় না বেঁধে এবং ওয়াকওয়ে সংস্কার না করে আবারও ওয়াটার ট্যাক্সি চালানো শুরু হয়। এ অবস্থায় হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়।


উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ডিসেম্বর মাসে এই রুটে ওয়াটার ট্যাক্সি চলাচল শুরু হয়। এই ওয়াটার ট্যাক্সিতে রাজধানীবাসী বাড্ডা, গুলশান, রামপুরা, খিলগাঁওসহ নগরীর পূর্বাংশের মানুষ কারওয়ানবাজার, মগবাজার, দিলু রোড, ইস্কাটন, বাংলামোটর ও তেজগাঁও এলাকায় যাতায়াত করেন।


ওয়াটার ট্যাক্সি চালু হওয়ায় এ রুট ব্যবহারকারী লোকজনের যাতায়াত ব্যবস্থায় আমূল পরিবর্তন এসেছে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা। পাশাপাশি যানজটে নাকাল নগরবাসী এই রুটে চলাচলে স্বস্তিও পান। এর মাধ্যমে হাতিরঝিলে বিনোদনের নতুন মাত্রাও যোগ হয়েছে।


বিবার্তা/রোকন/কাফী

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com