২৮ জুনের মধ্যে গাজীপুর সিটি নির্বাচনের নির্দেশ
প্রকাশ : ১০ মে ২০১৮, ১৩:১৬
২৮ জুনের মধ্যে গাজীপুর সিটি নির্বাচনের নির্দেশ
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে হাইকোর্টের দেয়া স্থগিতাদেশ বাতিল করে দিয়েছে আপিল বিভাগ। একই সঙ্গে আগামী ২৮ জুনের মধ্যে এ নির্বাচনের ভোটগ্রহণের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।


প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন চার সদেস্যর আপিল বেঞ্চ বৃহস্পতিবার দুপুরে এ আদেশ দেয়। হাইকোর্টের দেয়া স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে বিএনপি ও আওয়ামী লীগের দুই মেয়র প্রার্থীর আবেদন এবং নির্বাচন কমিশনের আপিলের শুনানির পর দুপুর ১টার দিকে এ আদেশ দেয় আদালত।


সীমানা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে দায়ের করা একটি রিট শুনানির পর ওই স্থগিতাদেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। ৬ মে সীমানা সংক্রান্ত জটিলতার কারণে গাজীপুর সিটি নির্বাচন ৩ মাসের জন্য স্থগিত করে হাইকোর্ট।


একই সঙ্গে সাভারের শিমুলিয়া ইউনিয়নের ছয়টি মৌজাকে গাজীপুর সিটি করপোরেশনে অন্তর্ভুক্ত করা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না- এ মর্মে রুলও জারি করে আদালত।


এরপর সিটি নির্বাচন স্থগিতের বিরুদ্ধে বিএনপির মেয়রপ্রার্থী ও আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় আবেদন করেন। এর আগে মঙ্গলবার গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে হাইকোর্টের স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে আপিল শুনানির জন্য বুধবার দিন ধার্য করেন চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী।


রিটকারীর পক্ষে ব্যারিস্টার রোকনউদ্দিন মাহমুদ ও নির্বাচন কমিশনের (ইসি) পক্ষে অ্যাডভোকেট ওবায়দুর রহমান মোস্তফা শুনানিতে অংশ নেন। হাইকোর্টের স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে আপিলকারী জিসিসি নির্বাচনের প্রার্থী ও বিএনপি নেতা হাসান সরকারের আইনজীবী জয়নুল আবেদিনও শুনানিতে ছিলেন।


আদালতে ৬ মে রিট আবেদনটি দায়ের করেন সাভার উপজেলার আশুলিয়া থানার শিমুলিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এ বি এম আজহারুল ইসলাম সুরুজ। ৫৭টি সাধারণ ও ১৯টি সংরক্ষিত ওয়ার্ড নিয়ে গাজীপুর সিটি করপোরেশন গঠিত। এখানে ভোটার সংখ্যা ১১ লাখ ৬৪ হাজার ৪২৫ জন।


গত ৪ মার্চ সিটি করপোরেশনের সীমানা নিয়ে গেজেট জারি হয়। যেখানে শিমুলিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ বড়বাড়ী, ডোমনা, শিবরামপুর, পশ্চিম পানিশাইল, পানিশাইল ও ডোমনাগকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।


রিটের পক্ষে আইনজীবী জানান, ২০১৩ সালে এ ছয়টি মৌজাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল। তখন বিষয়টি নিয়ে এ বি এম আজহারুল ইসলাম সুরুজ আবেদন করেন। কিন্তু সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ গ্রাহ্য না করায় হাইকোর্টে রিট করার পর আদালত আবেদনটি পুনর্বিবেচনা করতে নির্দেশ দেয়। এর মধ্যে ২০১৬ সালে শিমুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন হয়। ওই নির্বাচনে এ ছয়টি মৌজা শিমুলিয়ার মধ্যেই ছিল। নির্বাচনে আজহারুল ইসলাম চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এখন আবার এ ছয় মৌজাকে সিটিতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। যেহেতু তিনি ছয়টি মৌজার ভোটেও নির্বাচিত হয়েছিলেন। তাই এ ছয়টি মৌজাকে সিটিতে অন্তর্ভুক্ত করার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট আবেদন করেন। রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে আদালত উক্ত আদেশ দেন।


গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র এবং সাধারণ ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে নির্বাচন আগামী ১৫ মে হওয়ার কথা ছিল।


বিবার্তা/বিপ্লব/জাকিয়া


>>গাজীপুর সিটি নির্বাচন নিয়ে আপিল শুনানি আজ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com