নেপালে বিমান বিধ্বস্তে নিহত ৩
প্রকাশ : ১৪ এপ্রিল ২০১৯, ১৬:৩৪
নেপালে বিমান বিধ্বস্তে নিহত ৩
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

নেপালের লুকলা বিমানবন্দরে উড্ডয়নের সময় রানওয়েতে থাকা নুড়ি পাথরে পিছলে হেলিকপ্টারে ধাক্কা খেয়ে বিমানে থাকা তিনজন মারা গেছেন। এতে আরো তিনজন আহত হয়েছেন। অভ্যন্তরীণ রুটে চলা সামিট এয়ারের প্লেনটি রাজধানী কাঠমান্ডুতে যাচ্ছিল।


রবিবার সকালে এ দুর্ঘটনা ঘটে। রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ার সময় ৩০-৪০ মিটার দূরে থাকা দুটি হেলিকপ্টারের সঙ্গে ধাক্কা লাগে বিমানটির। সঙ্গে সঙ্গেই সেটি বিধ্বস্ত হয়।


নেপালের সংবাদ মাধ্যমগুলো বলছে, লুকলা বিমানবন্দরের রানওয়ে থেকে ছিটকে ৯এন-এএমএইচ প্লেনটি হেলিকপ্টার পার্কিংয়ে গিয়ে আঘাত হেনে বিধ্বস্ত হয়। দুটি হেলিকপ্টারকে আঘাত হানে প্লেনি। রানওয়ে থেকে হেলিপ্যাডের দূরত্ব ছিল প্রায় ৫০ মিটার।


ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের মুখপাত্র প্রতাপ বাবু তিওয়ারি জানান, সামিট এয়ারের কো-পাইলট এস ধুঙ্গানা ও পুলিশের উপ-সহকারী পরিদর্শক (এএসআই) রাম বাহাদুর খাদকা ঘটনাস্থলেই মারা যান। পুলিশের আরেক এএসআই রুদ্র বাহাদুর শ্রেষ্ঠাকে কাঠমান্ডুর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।


দুর্ঘটনাকবলিত প্লেনসোলুখুমবুর চিফ ডিস্ট্রিক্ট অফিসার নরেন্দ্র কুমার রায় বলেন, প্রাথমিকভাবে আমরা জেনেছি, প্লেনটি উড্ডয়নের সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রানওয়ে থেকে ছিটকে হেলিকপ্টারে গিয়ে আঘাত হানে।


এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন প্লেনের ক্যাপটেন আরবি রোকায়া ও মানাং এয়ারের ক্যাপটেন শেঠ গুরুং, যিনি হেলিকপ্টারে ছিলেন। দু’জনই শঙ্কামুক্ত। তবে প্লেনে কতজন যাত্রী ছিলেন তা এখনও জানায়নি সংবাদ মাধ্যমগুলো।


লুকলা পৃথিবীর বিপজ্জনক বিমানবন্দরগুলোর একটি। তীব্র বাতাস এবং ছোট রানওয়েতে প্লেনের নিয়ন্ত্রণ রাখা কঠিন। এখান থেকে এভারেস্টের বেসক্যাম্প শুরু হয়।


বিবার্তা/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

বি-৮, ইউরেকা হোমস, ২/এফ/১, 

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com