তাঞ্জানিয়ায় হ্রদে ফেরি ডুবে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩৬
প্রকাশ : ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৯:২২
তাঞ্জানিয়ায় হ্রদে ফেরি ডুবে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩৬
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

আফ্রিকার মহাদেশের তাঞ্জানিয়ার ভিক্টোরিয়া হ্রদে ফেরি ডুবির ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩৬ জনে দাঁড়িয়েছে।


দেশটির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এখনো বহু লোক নিখোঁজ রয়েছে। আশঙ্কা করা হচ্ছে দুই শতাধিক লোক ডুবে গেছে।


দুর্ঘটনার পর পর উদ্ধার তৎপরতা শুরু হয়। পুলিশ ও সেনা ডুবুরিদের পাশাপাশি ছোট ছোট নৌকা ও স্থানীয় জেলেরা উদ্ধার তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন জানিয়েছে, নিখোঁজদের জীবিত উদ্ধারের আশা প্রায় শেষ।


স্থানীয় এক কর্মকর্তা জানান, এ হ্রদের দক্ষিণ-পূর্বে উকারা দ্বীপের কাছে বৃহস্পতিবার বিকেলে এমভি নিয়েরেরে নামের এ ফেরিটি ডুবে যায়। এ সময় এতে চার শতাধিক যাত্রী ছিল, যা এর ধারণ ক্ষমতার চারগুন।


ফেরিটি যখন উকারা দ্বীপের একটি ডকে ভিড়তে যাচ্ছিল তখন যাত্রীরা সবাই এক পাশে অবস্থান নিলে তা উল্টে যায়। ফেরিতে অতিরিক্ত যাত্রীর পাশাপাশি সিমেন্ট ও ভুট্টার প্রচুর বস্তাও ছিল।



হ্রদটি আফ্রিকা মহাদেশের সবচেয়ে বৃহত্তম হ্রদ এবং এটি উগান্ডা ও কেনিয়া পর্যন্ত বিস্তৃত।


আঞ্চলিক গভর্নর জন মোঙ্গেলা সরকারি টেলিভিশনে বলেছেন, এ ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩৬ জনে দাঁড়িয়েছে এবং শুক্রবার আরো ৩৭ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। এদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশংকাজনক।


জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে তাঞ্জানিয়ার প্রেসিডেন্ট জন মাগুফুলি চারদিনের শোক ঘোষণা করেছেন। দুর্যোগ নিয়ে রাজনীতি না করার আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের তদন্তের উপর বিষয়টি ছেড়ে দেয়া উচিত।


এর আগেও তাঞ্জানিয়ায় বেশ কয়েকটি বড় ধরনের ফেরি দুর্ঘটনা ঘটেছে। ১৯৯৬ সালে ভিক্টোরিয়া হ্রদে এক ফেরি দুর্ঘটনায় অন্তত ৫০০ মানুষ মারা যায়। সূত্র: বিবিসি


বিবার্তা/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com