নাটকীয়তা শেষে দেশে ফিরলেন হারিরি
প্রকাশ : ২২ নভেম্বর ২০১৭, ১১:৩৪
নাটকীয়তা শেষে দেশে ফিরলেন হারিরি
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

পদত্যাগের ঘোষণা দেয়ার পর প্রথমবারের মতো বৈরুতে ফিরেছেন লেবাননের প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরি। গত দুই সপ্তাহ আগে সৌদি আরবে অবস্থানকালে আকস্মিকভাবে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছিলেন তিনি।


বিবিসির এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, ফ্রান্সের রাজধানীর প্যারিস থেকে বৈরুতের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছার পর হারিরিকে স্বাগত জানান নিরাপত্তাবাহিনীর কর্মকর্তারা। বিমানবন্দর থেকে তিনি সরাসরি চলে যান তাঁর বাবা সাবেক প্রধানমন্ত্রী রফিক হারিরির সমাধিতে।


গত ৪ নভেম্বর সৌদি আরবের রিয়াদে অবস্থানকালে সাদ হারিরি প্রাণনাশের আশঙ্কা করে আকস্মিকভাবেই পদত্যাগের ঘোষণা দেন। এতে লেবাননের রাজনীতিতে ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি করে। আঞ্চলিক প্রভাব তৈরির অংশ হিসেবেই সৌদি আরব তাঁর ইচ্ছের বিরুদ্ধে পদত্যাগে বাধ্য করে বলে অভিযোগ উঠে। যদিও হারিরি এবং সৌদি কর্তৃপক্ষ তা নাকচ করেছে।


ব্যক্তিগত বিমানে বৈরুত বিমানবন্দরে অবতরণের সময় লেবাননের পদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তারা তাকে স্বাগত জানান। এর আগে তিনি সাইপ্রাসে সংক্ষিপ্ত যাত্রাবিরতি করে দেশটির প্রেসিডেন্ট নিকোস অ্যানাসতাসিয়াদসের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।


গত ৪ নভেম্বর সৌদি আরব সফরে গিয়ে হঠাৎ করেই পদত্যাগের ঘোষণা দেন সাদ হারিরি। পদত্যাগের কারণ হিসেব প্রাণভয়ের কথা উল্লেখ করেন তিনি। এজন্য ইরান ও হিজবুল্লাহকে দায়ী করেন হারিরি।


তবে বিশ্লেষকদের ধারণা, সৌদি আরবের চাপেও পদত্যাগ করেছেন হারিরি। তবে পদত্যাগের ঘোষণা দিলেও লেবাননের প্রেসিডেন্ট মিশেল আউন প্রধানমন্ত্রী হারিরির পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেননি এবং তাকে বৈরুতে ফিরে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করার আহ্বান জানিয়েছেন।


প্যারিসে অবস্থানকালেই বুধবার লেবাননের স্বাধীনতা দিবসের দিন দেশে ফেরার ঘোষণা দেন তিনি। দেশে ফিরে প্রেসিডেন্ট আউনের সঙ্গে সাক্ষাতের পর নিজের ‘অবস্থান পরিষ্কার করবেন’ বলে এ সময় জানিয়েছিলেন তিনি।


মঙ্গলবার সকালে মিশরের রাজধানী কায়রোতে দেশটির প্রেসিডেন্ট আব্দেল ফাত্তা সিসির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন সাদ।


বৈরুত বিমানবন্দরে নামার কিছুক্ষণ পর লেবাননের জনগণের জন্য তার কোনো বার্তা আছে কি না জিজ্ঞেস করা হলে ‘ধন্যবাদ’ বলে উত্তর দেন তিনি। এরপর তিনি তার বাবা লেবাননের সাবেক প্রেসিডেন্ট রফিক আল হারিরির কবর জিয়ারত করতে যান। ২০০৫ সালে বৈরুতে এক বোমা হামলায় রফিক হারিরি নিহত হয়েছিলেন।


হারিরি পরিবারের সঙ্গে সৌদি আরবের সম্পর্ক অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ। সাদ একই সঙ্গে লেবানন ও সৌদি আরবের নাগরিক। সৌদি আরবে তার নিজস্ব সম্পত্তিও আছে। তার রাজনৈতিক দল ফিউচার মুভমেন্টের প্রধান পৃষ্ঠপোষক সৌদি আরব। বিবিসি, আল জাজিরা।


বিবার্তা/ইমদাদ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com