আসামে এনআরসি: আবেদনের সংখ্যা সাড়ে ৪ লাখ
প্রকাশ : ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ১৪:২৫
আসামে এনআরসি: আবেদনের সংখ্যা সাড়ে ৪ লাখ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

ভারতের আসাম রাজ্যে জাতীয় নাগরিকপঞ্জী (এনআরসি) থেকে বাদ পড়েছে ৪০ লাখ ৭ হাজার ৭০৭ জন। তাদের মধ্যে এনআরসিতে নাম তোলার জন্য আবেদন করেছে মাত্র সাড়ে চার লাখ!


খসড়া থেকে বাদ পড়াদের অনেকেরই বক্তব্য, তাদের কাছে নতুন করে জমা দেয়ার মতো কোনো প্রমাণপত্র নেই। যা যা ছিল তা আগেই জমা দিয়েছেন।


চূড়ান্ত খসড়ায় যাদের নাম বাদ গেছে তাদের ফের আবেদন জানানোর প্রক্রিয়া মাস দুয়েক আগে শুরু হলেও প্রথমে আবেদনপত্র অমিল হওয়া, পরে পাঁচটি প্রমাণপত্র বাতিল করা এবং শেষ পর্যন্ত ফের সেগুলো গণ্য করার মতো ঘটনাক্রমে জনতার কম হয়রানি হয়নি।


এসব দিকে লক্ষ্য রেখেই সুপ্রিম কোর্ট আবেদনপত্র জমা দেয়ার সময়সীমা বাড়িয়ে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত করেছে।
তবে এনআরসি সেবাকেন্দ্র থেকে বলা হচ্ছে, একবার জমা দেয়া নথি ফের জমা দিলে চলবে না। নতুন নথি বা প্রমাণপত্র আনতে হবে। বাদ পড়াদের অনেকেই ভিন রাজ্যের লিগ্যাসি ডেটা বা জমির দলিল দিয়েছিলেন। সে সব যাচাই হয়ে ফেরত না আসায় তারা সমস্যায় পড়েছেন।


অনেক বাঙালি পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় পুরনো নথিপত্র, স্কুল সার্টিফিকেটের খোঁজে গেছেন। সেই সব জোগাড় করা সময়সাপেক্ষ। তাই আবেদনপত্র এখনো জমা পড়েনি।


এদিকে এত কম মানুষ কেন নাগরিকপঞ্জীতে নাম তোলার আবেদন করছে, বিষয়টি নিয়ে শনিবার নয়াদিল্লিতে একটি উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক হয়েছে। ওই বৈঠকে ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং, বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ, আসামের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সেনোয়াল, স্বরাষ্ট্র সচিব রাজীব গৌবা ও আইবির ডিরেক্টর রাজীব জৈন।


চলতি বছরের ৩০ জুলাই প্রকাশ করা হয় নাগরিকপঞ্জীর খসড়া। সেই তালিকায় রয়েছে ২.৯ কোটি মানুষ। আবেদন করেছিলেন ৩.২৯ কোটি। বাদ পড়ে যান বিপুল সংখ্যাক মানুষ। তারা দাবি করেন, তারা আসামের অধিবাসী। কিন্তু তাদের নাম নেই।


এনিয়ে মামলা গড়ায় সুপ্রিম কোর্ট পর্যন্ত। শীর্ষ আদালত আদেশ দেয় আগামী ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত নাগরিকপঞ্জীতে নাম তোলা যাবে। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা ও জি নিউজ


বিবার্তা/জাকিয়া


সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com