#মি টু বিতর্ক: বিজেপি সভাপতির মন্তব্যে সমালোচনার ঝড়
প্রকাশ : ১৪ অক্টোবর ২০১৮, ১০:৩৯
#মি টু বিতর্ক: বিজেপি সভাপতির মন্তব্যে সমালোচনার ঝড়
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

যৌন হেনস্থার একাধিক অভিযোগ উঠলেও এখনো বরখাস্ত হননি ভারতের কেন্দ্রীয় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এম জে আকবর। এ নিয়ে নানা মহলের সমালোচনার মুখে পড়েছেন বিজেপি নেতৃত্ব। তার মধ্যেই দলের সর্বভারতীয় সভাপতি এবং এক রাজ্যের মহিলা শাখার প্রধানের মন্তব্যে গোটা বিষয়টি আরো উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে।


একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলকে দেয়া সাক্ষাৎকারে #মি টু বিতর্কে আকবরের সংশ্লিষ্টতা নিয়ে প্রথম মুখ খুলে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ বলেছেন, ওয়েবসাইটে পোস্ট করা কোনো বিষয়ের উপর মন্তব্য করা খুব কঠিন। কারো ব্যক্তিগত চরিত্র নিয়ে কেউ ওয়েবসাইটে পোস্ট করলে দেখতে হবে, সেটি সত্যি না মিথ্যা। এমন ঘটনা হয়েছিল কি হয়নি।


তিনি আরো বলেছেন, যার নাম নিয়ে পোস্ট হয়েছে, তিনিই সে কাজ করেছেন, না অন্য কেউ? আপনিও আমার নামে কিছু পোস্ট করতে পারেন। সব বিষয় দেখতে হবে। যখন দেখব, তখন পর্যালোচনা করব।


অমিতের এই মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতেই আকবরের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগকারীদের একজন টুইটারে প্রশ্ন তুললেন, অমিত শাহ কি আমাদের ভয় দেখানোর চেষ্টা করছেন?


আরো ধারালো আক্রমণ এসেছে বিরোধী দল কংগ্রেসের তরফে। দলের নেতা পবন খেরা বলেন, অমিত শাহের বক্তব্যের শেষের অংশটি শুনেছেন ভাল করে? তিনি আশঙ্কা করেছেন, যে কেউ তার নামেও কিছু পোস্ট করতে পারেন। তা হলে কি বিজেপি সভাপতি তার বিরুদ্ধেও এমন কোনো অভিযোগ ওঠার আশঙ্কা করছেন?


#মি টু নিয়ে শনিবার দেশটির রাজধানী দিল্লির যন্তর-মন্তরে নারী সাংবাদিকরা আকবরের পদত্যাগের দাবি তুলে পথে নামেন। সেখানেও অমিত শাহের সাক্ষাৎকারের প্রসঙ্গটি ওঠে। ক্ষুব্ধ সাংবাদিকদের অনেকেরই প্রশ্ন, যে প্রধানমন্ত্রী নিজের ঢাক পেটাতে নারীদের সম্মান রক্ষার কথা বলেন, তার মন্ত্রিসভার এক সদস্যের বিরুদ্ধে একাধিক নারীর এমন গুরুতর অভিযোগ আসার পাঁচদিন পরেও কেন তাকে সরানো হল না?


তারা বলেন, মন্ত্রীর বিদেশ সফরের নামে কেন বিষয়টি অহেতুক ঝুলিয়ে রাখা হচ্ছে? আর কেনই বা বিজেপি সভাপতি অভিযোগকারীদের দিকেই আঙুল তুলছেন?


এই ক্ষোভ আরো বেড়েছে মধ্যপ্রদেশে বিজেপিরই মহিলা মোর্চার প্রধান লতা কেলকরের মন্তব্যে। বিজেপির এই মহিলা নেত্রী #মি টু আন্দোলনকে সমর্থন করেছেন বটে, কিন্তু আকবরের বিরুদ্ধে সরব হওয়া নারী সাংবাদিকদের ছেড়ে কথা বলেননি! তিনি বলেন, নারী সাংবাদিকদের আমি এতটাও নিরীহ মনে করি না, যে তাদের যে কেউ অপব্যবহার করতে পারেন।


আকবরের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠার পর বিজেপি নেতৃত্ব এবং মোদি মন্ত্রিসভার সিংহভাগ সদস্যই মুখে কলুপ এঁটেছেন। কেবলমাত্র নারী ও শিশু কল্যাণ মন্ত্রী মেনকা গান্ধী আকবরের বিরুদ্ধে তদন্ত দাবি করেছেন। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা


বিবার্তা/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com