কংগ্রেসের ডাকা ভারত বন্‌ধে মিশ্র প্রভাব
প্রকাশ : ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১:২৫
কংগ্রেসের ডাকা ভারত বন্‌ধে মিশ্র প্রভাব
কলকাতা প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

পেট্রোপণ্যের লাগাতার মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে সোমবার ভারতের প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসের ডাকা ১২ ঘন্টার ভারত বন্‌ধে এখনো পর্যন্ত দেশ জুড়ে মিশ্র সাড়া পাওয়া গেছে।


কংগ্রেসের দাবি, তাদের এই হরতালকে সমর্থন জানিয়েছে সিপিআইএম, মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনা (এমএনএস), ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টি (এনসিপি), বহুজন সমাজ পার্টি (বিএসপি), রাষ্ট্রীয় জনতা দল (আরজেডি), জনতা দলসহ (সেকুলার) ২১টি বিরোধী দল ও বণিকসভা সংগঠন।


পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেস জানিয়েছিল, তার দল জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদকে সমর্থন জানালেও ভারত বন্‌ধ পালন করা সম্ভব নয়। তাছাড়া রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি নিজেও এই ধরনের হরতালের বিরোধী।


মমতার নির্দেশ অনুযায়ী, এদিন সকাল থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় হরতাল রুখতে রাস্তায় নেমেছে পুলিশ। সাধারণ মানুষের যাতে কোনো অসুবিধা না হয়, যানবাহন যাতে স্বাভাবিক থাকে সেদিকে লক্ষ্য রেখে কলকাতা শহরের সবকটি গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে পুলিশ সজাগ রয়েছে।


পশ্চিমবঙ্গে এখনো পর্যন্ত যান চলাচল প্রায় স্বাভাবিক। শিয়ালদহ ও হাওড়া রেল স্টেশন থেকে নির্দিষ্ট সময়েই চলছে ট্রেন। রাস্তায় বাস, ট্যাক্সি, সিএনজি সবকিছুই চলছে, যদিও যানবাহনে মানুষের উপস্থিতি কিছুটা কম।


কলকাতা নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু বিমানবন্দর থেকেও উড়ান পরিষেবা স্বাভাবিক রয়েছে। সল্টলেকে তথ্যপ্রযুক্তি সেক্টরেও হরতালের তেমন কোনো প্রভাব পড়েনি।


তবে যাদবপুর, সোনারপুর, লক্ষীকান্তপুর, দাসনগর, ইছাপুর, শ্রীরামপুরসহ কয়েকটি রেলস্টেশনে অবরোধের ফলে রেল চলাচল ব্যহত হয়েছে। এ সময় বন্‌ধের সমর্থনে স্লোগান দিতে থাকে কংগ্রেস কর্মী-সমর্থকরা।


বিজেপিশাসিত গুজরাট, মহারাষ্ট্র, মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, হরিয়ানা, আসামসহ অন্যান্য রাজ্যে এখনো পর্যন্ত হরতালের তেমন কোনো প্রভাব পড়েনি।


কংগ্রেসশাসিত কর্নাটক রাজ্যে বাস ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে, কিছু জায়গায় টায়ারে আগুন দিয়ে সড়ক অবরোধ করা হয়। রাজ্যটির প্রতিটি স্কুল, কলেজেই আগাম ছুটি ঘোষণা করে কর্নাটক রাজ্য সরকার।


গুজরাটের ভারুচে সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে প্রতিবাদ জানায় হরতাল সমর্থনকারীরা। এতে বেশ কিছু সময় ধরে যান চলাচলে প্রভাব পড়ে। ঝাড়খন্ডে রেল লাইনের মধ্যেই টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে রেল অবরোধে সামিল হয় আরজেডির সমর্থকরা।


জ্বালানির মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে দিল্লির রাজঘাটে একটি প্রতিবাদ মিছিলে অংশ নেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। রাজঘাট থেকে সেই মিছিল যায় দিল্লির রামলীলা ময়দানে। ওই মিছিলে অংশ নেন অশোক গেহলট, রণদীয় সিং সুরজেওয়ালাসহ কংগ্রেসের অন্য নেতারা।


বিবার্তা/ডিডি/জাকিয়া

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com