সৌন্দর্য মানসিক ও মানবিক
প্রকাশ : ০৬ অক্টোবর ২০১৭, ১১:২৮
সৌন্দর্য মানসিক ও মানবিক
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

গত কয়েকদিন ধরে এক সুন্দরীরে ধুমাইয়া গালিগালাজ করে যেই না নতুন সুন্দরী পেলো জা‌তি ওমনি দেখি লোকজন তা‌কেও ধু‌য়ে দি‌চ্ছে। অ‌নে‌কেই বলা শুরু করছে এই মেয়ে কেমনে সুন্দরী হয়! কেউ কেউ তো অাবার তার ছবি দিয়ে ডাইনি খেতাবও দেয়া শুরু করছে। আরেকদল বলছে বিচারকদের চেয়ে আয়োজকদের অা‌গের পছন্দই ভালো ছিলো।


সব দে‌খে অামার খুব জান‌তে ইচ্ছে ক‌রে, গির‌গি‌টির ম‌তো এতো রং বদলান কীভা‌বে অাপনারা? অার সারাক্ষণ মানু‌ষের সমা‌লোচনা ক‌রেন কী ক‌রে অাপনারা? আচ্ছা এই সুন্দরী নি‌য়ে আপনি বা আপনারা ঠিক কী চাইছেন বলেন তো? আমি কী চাইছি জান‌তে চান?


অা‌মি চাই শরীর দে‌খি‌য়ে সুন্দরী হওয়ার এই ধরনের নোংরা প্রতিযোগিতা বন্ধ হোক। আমি চাইছি কে কবে বিয়ে করেছে অনুসন্ধানী সেই সাংবাদিকতা বন্ধ হোক দে‌শে। অার অামার কেন যেন এইসব সুন্দরী কিংবা তীব্র মেকাপ করা কোন মে‌য়ে দেখ‌লেই বিরক্ত লা‌গে। আমার চো‌খে এই সুন্দরী প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া ২৫ হাজার বোকা মেয়ের চেয়ে এদেশের যে কোন পোশাকশ্রমিক অনেক বেশি সুন্দর। দল‌বেঁধে এই মে‌য়েগু‌লো যখন কাজ কর‌তে যায় অামার সুন্দর লা‌গে।


সুন্দর লা‌গে রাস্তায় কোন মেয়ে সাইকেল বা স্কুটি চালালে। আমার খুব ইচ্ছে করে প্রথা ভেঙে সাহস করে স্কু‌টি চালা‌নো মে‌য়েটার সাম‌নে গিয়ে বলি সালাম আপনাকে। ‌এই শহ‌রে কিংবা কোন গ্রামে স্কুল ড্রেস পরা মেয়েগুলো‌কে অামার ভীষন সুন্দর লা‌গে। সুন্দর লা‌গে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া প্রতিটা মে‌য়ে‌কে। ট্রাফিক বা পুলিশের পোশাক পরা মেয়েটা‌কেও আমার কাছে ভীষণ সুন্দর লা‌গে।


রোজ সকা‌লে অ‌ফিস কর‌তে ব্র্যা‌কে গি‌য়ে যখন দে‌খি অসংখ্য নারী কাজ কর‌তে অাস‌ছেন সবাই‌কে অামার সুন্দর লা‌গে। বি‌সিএস বা সরকা‌রি বেসরকা‌রি যে কোন চাকু‌রির জন্য যখন হাজার হাজার মে‌য়ে পরীক্ষা দি‌তে যায় সবাই‌কে অামার সুন্দর লা‌গে। এমন‌কি যে মেয়েটা গৃহকর্মীর কাজ করে সংসার চালায় আমার কাছে সেও সুন্দর। সুন্দর কর্মজীবী প্রতিটি নারী। সুন্দর সেই মা যে শত প্রতিকূলতার পরেও সন্তানকে মানুষ করছে।


নাটক, অভিনয়, মডেলিং সব পেশাই সম্মানের কিন্তু এসব পেশায় যেতে কেউ যদি মেধার বদলে শরীরের মাপজোখকেই প্রাধান্য দেয় সেখানেই আমার আপত্তি। কারণ, শুধুমাত্র শরীরের মাপজোখে যারা সুন্দর হওয়ার চেষ্টা করে আমার কাছে ভীষণ অসুন্দর লা‌গে তা‌দের। বিন্দুমাত্র বোধ থাকা কোন মেয়ে এমন প্রতিযোগিতায় যেতে পারে বলে আমার মনে হয় না। বোধহীন মে‌য়েগু‌লোর জন্য অামার করুণা হয়। আমি চাই এই ধরণের জঘন্য প্রতিযোগিতা বন্ধ হোক দেশে। অামি চাই এমন বাংলা‌দেশ যেখা‌নে নারী পুরু‌ষে কোন ব্যবধান থাকবে না। শুভ কামনা সব সংগ্রামী সুন্দর নারীর জন্য।


শরীফুল হাসানের ফেসবুক থেকে


বিবার্তা/মৌসুমী

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com