সংসদে অর্থবিল পাস, কমলো ইন্টারনেটের ভ্যাট
প্রকাশ : ২৭ জুন ২০১৮, ২৩:৫৫
সংসদে অর্থবিল পাস, কমলো ইন্টারনেটের ভ্যাট
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেটে কতিপয় পণ্য ও সেবা খাতের ওপর কর প্রস্তাব হ্রাস-বৃদ্ধি করে আজ বুধবার সংসদে অর্থবিল-২০১৮ পাস হয়েছে। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বিলটি পাসের প্রস্তাব করেন। গত ৭ জুন সংসদে বিলটি উত্থাপন করা হয়।


বিল পাসের প্রস্তাবের আগে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বাজেটের ওপর সমাপনী বক্তব্যে কতিপয় পণ্য ও সেবা খাতের ওপর কর প্রস্তাব হ্রাস-বৃদ্ধির ঘোষণা দেন।


ঘোষণা অনুযায়ী অর্থ বিলে ইন্টারনেট সেবার ওপর প্রযোজ্য ভ্যাট ১৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৫ শতাংশে নির্ধারণ এবং ব্যবসায়ী পর্যায়ে কম্পিউটার ও এর যন্ত্রাংশের ওপর পূর্বের ধারাবাহিকতায় মূসক অব্যাহতি প্রদান করা হয়।


এছাড়া দেশীয় মোবাইল ফোন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের ওপর বর্তমান ভ্যাট অব্যাহতি সুবিধা বহাল রেখে এ শিল্পের সংযোজনকারী প্রতিষ্ঠানের জন্য শুধুমাত্র স্থানীয় উৎপাদন পর্যায়ে ৫ শতাংশের অতিরিক্ত ভ্যাট অব্যাহতি প্রদান করা হয়। সোশ্যাল মিডিয়া ও ভার্চুয়াল বিজনেস সেবা এবং তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর সেবার সংজ্ঞা সংশোধন করে যুগোপযোগী করা হয়।


বিলে নিম্নস্তরের সিগারেটের প্রতি দশ শলাকার মূল্য ৩২ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৩৫ টাকা এবং অতি উচ্চস্তরের সিগারেটের প্রতি দশ শলাকার মূল্য ১০১ টাকা থেকে বৃদ্ধি করে ১০৫ টাকা করা হয়। বাজেটে সিগারেটের অন্যান্য স্তরে মূল্য বৃদ্ধি করা হয়েছে।


বর্তমানে শুল্ক-করসহ মূল্যের পূর্বের অভিঘাত অপরিবর্তিত রেখে প্রতি গ্রাম জর্দার ট্যারিফ মূল্য ১.২০ টাকা এবং প্রতি গ্রাম গুলের ট্যারিফ মূল্য ০.৬০ টাকা নির্ধারণ করা হয়। পেট্রোলিয়াম জেলির উপর সম্পূরক শুল্ক প্রত্যাহার করা হয়। ফিলামেন্ট বাল্বের উপর আরোপিত ১০ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক প্রত্যাহার করা হয়।


বিলে মোটরসাইকেল শিল্পের অধিকতর বিকাশের লক্ষ্যে দেশীয় মোটরসাইকেল উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের উপর ভ্যাট অব্যাহতি বহাল রেখে সংযোজনকারী প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে শুধুমাত্র স্থানীয় উৎপাদন পর্যায়ে ৭ শতাংশের অতিরিক্ত মূল্য সংযোজন কর অব্যাহতি প্রদান করা হয়। ক্রেডিট রেটিং এজেন্সি এর বিপরীতে প্রযোজ্য ১৫ শতাংশ ভ্যাটের পরিবর্তে নীট ৭ শতাংশ করার হয়।


বিলে বর্তমান শুধুমাত্র ইন্টারন্যাশনাল ফ্লাইট পরিচালনার ক্ষেত্রে এয়ার লাইন্সসমূহের বন্দর সেবার বিপরীতে ১৫ শতাংশ ভ্যাট বহাল রাখা হয়।


অর্থ মন্ত্রী বলেন, কর আরোপ, প্রযোজ্য ক্ষেত্রে মওকুফ, বিদ্যমান কর হার ও কর ভিত্তির যৌক্তিকীকরণ প্রস্তাবসহ আমার পেশকৃত অন্যান্য পদক্ষেপগুলো মহান সংসদ কর্তৃক গৃহীত হলে একটি ব্যবসায় ও করদাতা বান্ধব অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি হবে। ২০১৮-১৯ অর্থবছরেও মূল্য সংযোজন কর আহরণের প্রবৃদ্ধি অব্যাহত থাকবে।


বিলে ফিল্ড মিল্ক পাউডার বাল্কে আমদানিতে এর আমদানি শুল্ক বিদ্যমান ২৫ শতাংশ বহাল রাখা হয়।


বিলে ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরের বাজেটে ড্রাই মিক্সড ইনগ্রিডেন্ট এর প্রস্তাবিত শুল্ক হ্রাস করে ১০ শতাংশ বহাল রাখা হয়। ব্যাটারি শিল্পে ব্যবহৃত ন্যাচারাল বারিয়াম সালফেট প্রস্তাবিত ১০ শতাংশ থেকে হ্রাস করে ৫ শতাংশ করা হয়।


বিলে অক্সিজেন, নাইট্রোজেন, আর্গন, কার্বন-ডাই-অক্সাইড এর আমদানি শুল্ক ৫ শতাংশ নির্ধারণ করে রেগুলেটরি ডিউটি শূণ্য হতে বৃদ্ধি করে ২০ শতাংশ আরোপ করা হয়।


বিলে হেপাটাইটিস-সি রোগের ঔষধ বর্তমানে দেশে তৈরি হওয়ায় এর কাঁচা মালের ওপর শূল্ক অব্যাহতি দেয়া হয়। বিলে সিমকার্ড কাঁচা মালের ওপর বিদ্যমান ১৫ শতাংশ শুল্ক হ্রাস করে ১০ শতাংশ করা হয়।


ঔষধ শিল্প খাতের অন্যতম উপকরণ মোড়ক তৈরিতে পিভিসি ফ্লিম ও আনপ্রিন্টেডেট নায়নলন ফিল্মের ওপর থেকে বিদ্যমান শুল্ক ১০ থেকে হ্রাস করে ৫ শতাংশ করা হয়।


বর্তমানে দেশীয় কয়েকটি প্রতিষ্ঠান বিশ্বমানের গুণগতমান সম্পন্ন কোল্ড রোল্ড এবং কালার কোটেড কয়েল বা শীটের আমদানি শুল্ক বৃদ্ধি করে ২৫ শতাংশ করা হয়।


এছাড়া বিলেরেফ্রিজারেটর ও এয়ার কন্ডিশনার এর কাঁচামাল ০.২৫ এমএম পুরুত্বের ফ্লাট রোল্ড প্রোডাক্ট এর ওপর ১০ শতাংশ শুল্ক নির্ধারণ করা হয়। লীফ স্প্রিং এর ওপর ২০ শতাংশ, ৭৫০ ওয়াটের মোটর যন্ত্রপাতির ওপর শুল্ক বিলুপ্ত , টিভিসহ কতিপর পণ্যের ওপর আমদানি পর্যায়ে শুল্ক হ্রাস-বৃদ্ধি করা হয়।


বিবার্তা/শারমিন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com