তিন বছরের মধ্যেই পেঁয়াজ রফতানি করতে পারবো: বাণিজ্যমন্ত্রী
প্রকাশ : ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২২:৫২
তিন বছরের মধ্যেই পেঁয়াজ রফতানি করতে পারবো: বাণিজ্যমন্ত্রী
বিবার্তা ডেস্ক
প্রিন্ট অ-অ+

আগামী তিন বছরের মধ্যে আমরাই পেঁয়াজ রফতানিতে সক্ষমতা অর্জন করতে পারবো। বর্তমানে আমাদের চাহিদার ৩০ শতাংশের বেশি আমদানি করতে হয়। এখন আমরা নিজেরাই পেঁয়াজ উৎপাদন করছি। এবছর ২০ শতাংশ উৎপাদন বেশি হবে। উৎপাদন বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে আগামী তিন বছরের মধ্যে আমরা পেঁয়াজ রফতানি করতে পারবো।


মঙ্গলবার (১১ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণের উপর আলোচনায় অংশ নিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি একথা বলেন।


টিপু মুনশি সংসদে পেঁয়াজ সংকটের কারণ ব্যাখ্যা দিয়ে বলেন, প্রতিবছর আমাদের পেঁয়াজের চাহিদা রয়েছে ২৫-২৬ লাখ মেট্রিক টন। এর মধ্যে আমদানি করতে হয় ৮-৯ লাখ মেট্রিক টন। আমদানির ৯০ শতাংশই করতে হয় ভারত থেকে।


২০১৯ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর হঠাৎ ভারত সরকার পেয়াজ রফতানি বন্ধ করে দেয়। পরে মিয়ানমার থেকে চাহিদার ১৫ শতাংশ এবং বাকি পেঁয়াজ তুরস্ক, মিশর থেকে আমদানি করা হয়। কিন্তু তা আসতেও তো প্রায় ৫০ দিন লেগে যায়। প্রতিদিন দেশের চাহিদা ৬ হাজার মেট্রিক টন হলেও সরবরাহ ছিল মাত্র দেড় হাজার মেট্রিক টন। ফলে পেঁয়াজের দাম নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়।


পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন বলেন, রোহিঙ্গা সমস্যা শান্তিপূর্ণ সমাধানের জন্য আমরা আন্তর্জাতিকভাবে মিয়ানমারের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে সমর্থ হয়েছি। সমস্যা সমাধানে কূটনৈতিক অবস্থান আমাদের খুবই ভালো। অদূর ভবিষ্যতে আপনারা ভালো খবর পাবেন।


এসময় তিনি জনগণের ট্যাক্সের টাকা লুটপাট রোধে অসৎ উপায়ে উপার্জিত ও কালো টাকা সংকোচনের অভিযান আরো জোরদার করার আহ্বান জানান।


তিনি বলেন, আমরা বর্তমানে অর্থনৈতিক কূটনীতির ওপর জোর দিয়েছি। যাতে আমাদের বিনিয়োগ বাড়ে।


বিবার্তা/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com