সহধর্মিণীকে নিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় স্টেজ শো’তে এন্ড্রু কিশোর
প্রকাশ : ২৪ জুন ২০১৯, ২২:২২
সহধর্মিণীকে নিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় স্টেজ শো’তে এন্ড্রু কিশোর
ছবি: মোহসীন আহমেদ কাওছার
অভি মঈনুদ্দীন
প্রিন্ট অ-অ+

সহধর্মিণী লিপিকা এন্ড্রু’কে সঙ্গে নিয়ে এবারের অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছেন বাংলাদেশের প্লে-ব্যাক সম্রাট এন্ড্রু কিশোর। এন্ড্রু কিশোরের ছেলে মেয়ে দু’জনই অস্ট্রেলিয়ায় থাকেন। তাই স্টেজ শো’র পাশাপাশি এন্ড্রু কিশোর ও লিপিকা এন্ড্রু ছেলে মেয়ের সঙ্গে সময় কাটাবেন।


আগামী জুলাইয়ের মাঝামাঝিতে এন্ড্রু কিশোর ও লিপিকা এন্ড্রু অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হবেন। সেখানে টানা বেশ কয়েকদিন মেলবোর্ন, সিডনী ও এডিলেট সিটিতে তিনটি ভিন্ন শো’তে সঙ্গীত পরিবেশন করবেন এন্ড্রু কিশোর। রবিবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এন্ড্রু কিশোর নিজেই।


এন্ড্রু কিশোর বলেন, যেহেতু আমার ছেলে মেয়ে দু’জনই অস্ট্রেলিয়া থাকে এবং সেখানেই আমার তিনটি স্টেজ শো’তে অংশ নিতে হচ্ছে , তাই ভাবলাম এবার সঙ্গে স্ত্রীকে নিয়ে যাই। ছেলে মেয়ের সঙ্গে ভালো কিছু সময়ও কাটবে। সময়টাও আশা করছি উপভোগ্য হয়ে উঠবে।


এর আগে অস্ট্রেলিয়াতে তিনবার স্টেজ শো’তে অংশগ্রহণ করেন এন্ড্রু কিশোর। এই নিয়ে চতুর্থবারের মতো তিনি সেখানে যাচ্ছেন। এন্ড্রু কিশোরের ছেলে জে এন্ড্রু পড়াশুনা করছেন সিডনীতে একটি ইউনিভার্সিটিতে। অন্যদিকে মেয়ে মিলিম এন্ড্রু বিয়ের পর অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে আছেন স্বামীর সঙ্গে। তিনিও সেখানে একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করছেন।


এরইমধ্যে গেলো ২১ জুন ছিলো বিশ্ব সঙ্গীত দিবস। শিল্পকলা একাডেমি দিনটিকে বিশেষভাবে উদযাপন করে। সঙ্গীত দিবস উপলক্ষে শিল্পকলা আয়োজিত বিশেষ অনুষ্ঠানে সরকারিভাবে সাংস্কৃতিক প্লাটফরম থেকেই এন্ড্রু কিশোর দাওয়াত পেয়েছিলেন। এন্ড্রু কিশোর বলেন, যেহেতু বিগত বেশ কয়েকদিন যাবত আমি জ্বরে আক্রান্ত। তাই দাওয়াত পাওয়ার পরও অসুস্থতার কারণে আমি বিশ্ব সঙ্গীত দিবস উপলক্ষে আয়োজিত বিশেষ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করতে পারিনি। তবে অনেক জায়গায় সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে যে আমি নাকি দাওয়াতই পাইনি, এটা ভুল তথ্য।


এন্ড্রু কিশোরের সময়কালের অনেক কিংবদন্তী সঙ্গীতশিল্পীই পরবর্তীতে এসে নিজেই সুরকার হিসেবে আবির্ভূত হয়েছেন। কিন্তু এই ব্যাপারে তার কোনোরকম আগ্রহ নেই। এন্ড্রু কিশোর বলেন, আমি যখন এখানে প্লে-ব্যাক করা নিয় খুব ব্যস্ত। তখন আমার সঙ্গে শ্রদ্ধেয় আর ডি বর্মণ যোগাযোগ করেছিলেন ভারতে যাওয়ার জন্য, সেখানে গানে নিয়মিত হবার জন্য। তিনি আমাকে সব ধরনের সুযোগ সুবিধা দিয়েই গান করার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। কিন্তু আমি দাদাকে বলেছিলাম-দাদা, আমি আমার দেশেই খুব ভালো আছি। দাদা, জবাবে বলেছিলেন, তুই বাঘের বাচ্চা। কথাটি এ কারণেই বললাম, আমি গান গাওয়া ছাড়া আর অন্য কোনকিছু নিয়েই কখনো ভাবতে চাইনি। এখনো না। আমি যেভাবে আছি খুব ভালো আছি।


বিবার্তা/অভি/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com