জন্মদিনে সিঙ্গাপুরে সাবিনা ইয়াসমিন
প্রকাশ : ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১:০০
জন্মদিনে সিঙ্গাপুরে সাবিনা ইয়াসমিন
ছবি : গোলাম সাব্বির
অভি মঈনুদ্দীন
প্রিন্ট অ-অ+

উপমহাদেশের প্রখ্যাত সঙ্গীত শিল্পী সাবিনা ইয়াসমিনের জন্মদিন ৪ সেপ্টেম্বর। বাংলাদেশের সঙ্গীতাঙ্গনের উজ্জ্বল নক্ষত্র তিনি, জীবন্ত এই কিংবদন্তী কন্ঠশিল্পী এ দেশের গর্ব।


শুধু দেশের গানেই তার যে বিরাট অবদান, তা দিয়েই তিনি এই বাংলার বুকে বেঁচে থাকবেন শত বছর। বছরজুড়ে বিভিন্ন সময়ে তার গাওয়া দেশের গান আমাদের পুলকিত করে, অনুপ্রাণিত করে, আন্দোলিত করে। আর দেশের বিভিন্ন জাতীয় দিবসে তার গাওয়া দেশের গানই যেন আগামীদিনে নতুন করে পথ চলার সাহস জোগায়।


দেশের গান ছাড়াও চলচ্চিত্রে হাজার হাজার গান গেয়েছেন তিনি। আর এমনি করেই গানে গানে সাবিনা ইয়াসমিন হয়ে উঠেছেন এদেশের তথা বাংলা ভাষাভাষীর অতি প্রিয় একজন শিল্পীতে-একজন জীবন্ত কিংবদন্তীতে। গুণী এই সঙ্গীতশিল্পীর এবার তার জন্মদিন উপলক্ষে গতকাল রাতের ফ্লাইটে সিঙ্গাপুরের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়েছেন।


সেখানে তিনি তার প্রিয় বান্ধবীদের সঙ্গে জন্মদিন উদ্যাপন করবেন এবং বেশ ক’টা দিন নিজের মতো করেই কাটাবেন।


জন্মদিন প্রসঙ্গে সাবিনা ইয়াসমিন বলেন, জন্মদিন এলেই আব্বা আম্মা এবং আমার বোনদের খুব মিস করি। কিন্তু তারপর সবার ভালোবাসা পেয়ে আমি সে কষ্ট ভুলে থাকার চেষ্টা করি। দেশে বিদেশ থেকে অনেকেই শুভেচ্ছা জানান। তবে এবার জন্মদিনে আমার বান্ধবী মিলিয়া, বাবলী, রীতাসহ অন্যান্যদের সঙ্গে কাটবে বলে ভীষণ ভালো লাগছে। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন।


প্রয়াত বরেণ্য সুরকার-সঙ্গীত পরিচালক রবিন ঘোষের সঙ্গীত পরিচালনায় এহতেশাম পরিচালিত ‘নতুন সুর’ সিনেমায় ১৯৬২ সালে শিশুশিল্পী হিসেবে প্রথম গান করেন। তবে ১৯৬৭ সালে আমজাদ হোসেন ও নূরুল হক বাচ্চু পরিচালিত ‘আগুন নিয়ে খেলা’ সিনেমায় আলতাফ মাহমুদের সঙ্গীত পরিচালনায় ‘মধু জোছনা দীপালি’ গানটি গাওয়ার মধ্যদিয়ে প্লে-ব্যাক গায়িকা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন।


বরেণ্য এই সঙ্গীত শিল্পী ১৯৮৪ সালে একুশে পদক, ১৯৯৬ সালে স্বাধীনতা পুরস্কারসহ সর্বোচ্চ ১৩ বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন।


১৯৭৫ সালে প্রমোদকার (খান আতাউর রহমানের ছদ্ম নাম] পরিচালিত ‘সুজন সখী’ সিনেমায় গান গাওয়ার জন্য প্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন। এরপর বিভিন্ন সময়ে আমজাদ হোসেনের ‘গোলাপী এখন ট্রেনে’, ‘সুন্দরী’, ‘কসাই’, চাষী নজরুল ইসলামের ‘চন্দ্রনাথ’, মইনুল হোসেনের ‘প্রেমিক’, বুলবুল আহমেদের ‘রাজলক্ষী শ্রীকান্ত’, আমজাদ হোসেনের ‘দুই জীবন’, কাজী হায়াতের ‘দাঙ্গা’, মতিন রহমানের ‘রাধা কৃষ্ণ’, মোহাম্মদ হোসেনের ‘আজ গায়ে হলুদ’ ও চাষী নজরুল ইসলামের ‘দেবদাস’ চলচ্চিত্রে প্লে-ব্যাক করার জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন।


১৯৭১ সালে নঈম গহরের লেখা ও আজাদ রহমানের সুরে সাবিনা ইয়াসমিনের গাওয়া ‘জন্ম আমার ধন্য হলো মাগো’ গানটি মুক্তিযোদ্ধাদের অসীম প্রেরণা জুগিয়েছিলো। আলতাফ মাহমুদের সুর সঙ্গীতের দশটি গান নতুন করে সাবিনা ইয়াসমিন গেয়েছেন যা আগামী মাসে ইমপ্রেস’র ব্যানারে বাজারে আসবে। এতে দুটি গানে সাবিনার সঙ্গে গেয়েছেন লিনু বিল্লাহ।


বিবার্তা/অভি/কাফী


সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com