‘সবার কাছে গ্রহণযোগ্য জাতীয় শিক্ষা নীতি প্রণয়ন করা হয়েছে’
প্রকাশ : ১১ জুলাই ২০১৮, ০১:৪৩
‘সবার কাছে গ্রহণযোগ্য জাতীয় শিক্ষা নীতি প্রণয়ন করা হয়েছে’
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়নে সরকার নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের শিক্ষাক্ষেত্রে যুগান্তকারী পরিবর্তন হয়েছে। বর্তমান সরকারের আমলে দলীয় বা বিতর্কিত নয়, বরং দল-মত নির্বিশেষে সবার কাছে গ্রহণযোগ্য জাতীয় শিক্ষা নীতি প্রণয়ন করা হয়েছে।


গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীতে জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমী (নায়েম) মিলনায়তনে ‘সেকেন্ডারি এডুকেশন সেক্টর ইনভেস্টমেন্ট প্রোগ্রাম’ (সেসিপ) আয়োজিত ‘মাধ্যমিক শিক্ষার মানোন্নয়নে সেসিপ-এর মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময়’ শীর্ষক আলোচনাসভায় প্রদান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।


সেসিপ-এর যুগ্ম কর্মসূচি পরিচালক মো. আবু ছাইদ শেখ (অতিরিক্ত সচিব)-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন- শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন) মো. মহিউদ্দীন খান, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (রুটিন দায়িত্ব) এবং পরিচালক, কলেজ ও প্রশাসন, অধ্যাপক মোহাম্মদ শামছুল হুদা এবং নায়েম-এর মহাপরিচালক অধ্যাপক ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক।


মাঠ পর্যায়ের কাজের গুরুত্ব উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘মাঠ পর্যায়ে যারা কাজ করেন, তাদের অভিজ্ঞতা সরকারের কাছে গুরুত্বপূর্ণ।’


‘আমাদের ইতিহাসে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা মহান মুক্তিযুদ্ধ’-একথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ করে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে।


তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে প্রতিবন্ধক সৃষ্টি করতেই তাকে হত্যা করা হয়। আমাদের সৌভাগ্য বঙ্গবন্ধুর দুইকন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা ওইসময় বিদেশে থাকায় তাদের জীবন রক্ষা পায়।


নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, দেশকে উন্নয়ন ও অগ্রগতির পথে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে বিগত ২০০৮ সালের ডিসেম্বরের নির্বাচনের আগে দিনবদলের কর্মসূচি দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর নাম করা হয়েছিল রূপকল্প-২০২১।


বর্তমানে ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়িত হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমাদের যুগের সবচেয়ে বড় হাতিয়ার জ্ঞান ও প্রযুক্তির ওপর দক্ষতা।’


তিনি বলেন, বর্তমান সরকার কারিগরি ও কর্মমুখী শিক্ষার ওপর গুরুত্ব দিয়েছে। ইতোমধ্যে কারিগরি শিক্ষার হার ১৪ শতাংশে উন্নীত হয়েছে। সরকার মাদ্রাসা শিক্ষার উন্নয়নেও কাজ করছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।


বিবার্তা/খলিল/শারমিন

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com