বেরোবিতে ভর্তি সাক্ষাৎকার দিতে এসে আটক ৬
প্রকাশ : ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ২১:৫২
বেরোবিতে ভর্তি সাক্ষাৎকার দিতে এসে আটক ৬
বেরোবি প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে (বেরোবি) ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) ১ম বর্ষের ভর্তি সাক্ষাৎকারে জালিয়াতির দায়ে ৬ জনকে আটক করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।


রবিবার সকালে ৬টি ইউনিটের বিভিন্ন শিফটের সাক্ষাৎকার গ্রহণকালে অ্যাডমিট কার্ডে থাকা ছবির সাথে চেহারার মিল না থাকায় এই ৬ শিক্ষার্থীকে সন্দেহ করেন দায়িত্বরত শিক্ষকগণ। এরপর দুপুরে তাদেরকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ১, ২ ও ৩ নং একাডেমিক ভবন থেকে আটক করে বিশ্ববিদ্যালয়ের পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তার কাছে হস্তান্তর করা হয়।


আটকৃতরা হলেন বগুড়া জেলার সবুজবাগ এলাকার মাহফুজার রহমানের ছেলে আহসান হাবিব (১৯), রংপুর জেলার মিঠাপুকুর উপজেলার মৃত দৌলতুর রহমানের ছেলে শাহরিয়ার আল সানি (২০), পঞ্চগড়ের জালাসি এলাকার রফিকুজ্জামানের ছেলে রোকনুজ্জামান (১৮), নাটোর জেলার বাগাতিপাড়া এলাকার রিয়াজুল ইসলামের ছেলে ইফাদ সরকার, নওগাঁ জেলার তিলতপুর এলাকার সাখাওয়াত হোসেনের ছেলে সাদ আহমদ (১৮) ও লালমনিরহাট জেলার মিশনমোড় এলাকার মজিবর রহমানের ছেলে শাহরিয়ার আল সানি।


জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের পূর্ব নির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী ভর্তি পরীক্ষায় কৃতকার্য শিক্ষার্থীরা এদিন সকালে সাক্ষাৎকার দিতে আসে। সাক্ষাৎকার গ্রহণকালে অ্যাডমিট কার্ডের থাকা ছবি ও চেহারার অমিল থাকায় দায়িত্বরত শিক্ষকগণ শুরুতেই সন্দেহ পোষণ করেন। এসময় তাদের পরীক্ষা সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা অসংলগ্ন উত্তর দেয়। পরে তারা লিখিতভাবে প্রক্সির কথা স্বীকার করে। ফলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে তাদেরকে পুলিশে সোপর্দ করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।


এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর শফিক আশরাফ বলেন, যারা সাক্ষাৎকার দিতে এসে আটক হয়েছে তারা কেউই ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেয়নি। তাদের অ্যাডমিটে অন্য কেউ পরীক্ষা দিয়ে গেছে। ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির সাথে একটি বড় চক্র জড়িত। আটক শিক্ষার্থীরা তাদের জালিয়াতির বিষয়টি স্বীকার করে লিখিত দিয়েছে। এই জালিয়াতির সাথে জড়িতদের তথ্য পেতে তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে তারা কিছু তথ্য ও ফোন নাম্বার দিয়েছে। সেগুলো অনুযায়ী জালিয়াত চক্রকে শনাক্তের চেষ্টা চলছে।


বিশ্ববিদ্যালয় পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) মহিব্বুল ইসলাম মুন বলেন, আটককৃতদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে। সেই সাথে এই জালিয়াতির সাথে যুক্তদের গ্রেফতারের প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।


বিবার্তা/জান্নাতুল/শাহনেওয়াজ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

৪৬, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ

কারওয়ান বাজার (৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২১৫

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: bbartanational@gmail.com, info@bbarta24.net

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com