শিক্ষার্থীবান্ধব ঢাবির সেই অধ্যাপক করোনায় আক্রান্ত
প্রকাশ : ১৫ জানুয়ারি ২০২২, ১৮:৩১
শিক্ষার্থীবান্ধব ঢাবির সেই অধ্যাপক করোনায় আক্রান্ত
বিবার্তা প্রতিবেদক
প্রিন্ট অ-অ+

শিক্ষার্থীদের জন্য নিজেকে উজার করে বিলিয়ে দেয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মৎস বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক মোহাম্মদ শফি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. কামরুল হাসান মামুন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।


করোনায় আক্রান্ত এ প্রবীণ অধ্যাপককে নিয়ে ড. কামরুল হাসান মামুন ফেসবুকে লিখেন, দেশের বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি, শিক্ষক ও শিক্ষক নেতারা যখন নানারকম আকাম কুকামের মাধ্যমে শিক্ষকতা পেশাকে কলুষিত করছে ঠিক সেখানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মৎস বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক মোহাম্মদ শফি তার জীবনের সকল উপার্জন বিলিয়ে নিজ বিভাগের ভবন নির্মাণের জন্য দান করে শিক্ষকতা পেশাকে মহিমান্বিত করেছেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদুল্লাহ হলের পুকুরের উত্তর পারে লাল ইটের একটি ভবন। মৎস্যবিজ্ঞান বিভাগের নিজস্ব ভবন। অর্থাভাবে নির্মাণকাজ আটকে ছিল ১৫ বছর। নিজের জমানো ৭০ লাখ টাকা দিয়ে সেই আটকে যাওয়া ভবনটির প্রাণ এনে দিলেন। নিজের অবসরের টাকা আর জমি বিক্রি করা টাকা সব অকাতরে দান করলেন নিজেরই কর্মস্থলের ভবন নির্মাণে।


তিনি লেখেন, শুধু তাই না। তার দীর্ঘ শিক্ষকতা জীবনে কখনো বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনীতির সঙ্গে নিজেকে জড়াননি। শ্রেণীকক্ষে পড়ানো, বিভাগের উন্নয়ন, গবেষণা নিয়েই শিক্ষকতা জীবন কাটিয়েছেন। পাঁচটি গবেষণাগ্রন্থ, একটি আত্মজীবনী, ৭০টির মতো প্রবন্ধ প্রকাশিত আছে। এছাড়া শুনেছি তার নিজ বাড়ি বগুড়ার সান্তাহারে বিপি হাইস্কুলে ২০০১ সালে বাবার নামে চালু করেন ‘আবদুল লতিফ ছাত্রবৃত্তি কল্যাণ ফান্ড’। তাছাড়া মায়ের নামে পাশের কলসা আহসানউল্লাহ ইনস্টিটিউশনে চালু করেন ‘আমেনা খাতুন ছাত্রীবৃত্তি কল্যাণ ফান্ড’। ২০১০ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে তিন লাখ টাকায় গঠন করেন ‘আমেনা-লতিফ ট্রাস্ট ফান্ড’। এখান থেকে প্রতিবছর মৎস্যবিজ্ঞান বিভাগের তিনজন মেধাবী শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দেয়া হয়। পরের বছর নিজের নামে গঠন করেন ‘ড. মোহাম্মদ শফি ট্রাস্ট ফান্ড’, এখান থেকেও দুজন কৃতী শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দেয়া হয়।


তিনি আরো লেখেন, সেই মানুষটি করোনায় আক্রান্ত হয়ে আজ গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে ভর্তি। এমন না যে উনি billionaire! হ্যাঁ টাকার অংকে মহাধনী না হলেও মনের প্রাচুর্যে মহাধনী। তিনি সিঙ্গাপুর মালয়েশিয়ায় চিকিৎসার জন্য দৌড়াননি। আরেক গণমানুষের হাসপাতাল গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রেই আস্থা রেখেছেন। অধ্যাপক শফির দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি।


বিবার্তা/রাসেল/আশিক

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

পদ্মা লাইফ টাওয়ার (লেভেল -১১)

১১৫, কাজী নজরুল ইসলাম এভিনিউ,

বাংলামোটর, ঢাকা- ১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2021 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com