নিষেধাজ্ঞা ভেঙে জাবিতে বিক্ষোভ, সমাবেশ
প্রকাশ : ০৭ নভেম্বর ২০১৯, ১৫:১২
নিষেধাজ্ঞা ভেঙে জাবিতে বিক্ষোভ, সমাবেশ
জাবি প্রতিনিধি
প্রিন্ট অ-অ+

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলামের অপসারণের দাবিতে নিষেধাজ্ঞা ভেঙে আবারো বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে আন্দোলনকারী শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।


বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) দুপুর ১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরাতন প্রশাসনিক ভবনের সামনে থেকে মিছিলটি শুরু হয়। পরবর্তীতে মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে কিছুক্ষণ অবস্থান নেয়। মিছিলটি পুনরায় পুরাতন প্রশাসনিক ভবনের সামনে এসে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।


এসময় উপাচার্যের বাসভবনের সামনে শত শত পুলিশকে অবস্থান করতে দেখা যায়। পুলিশের সামনেই আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে শিক্ষার্থীরা। গতদিনের মত আজো শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার জন্য পুলিশের সামনে ব্যারিকেড দিয়ে অবস্থান করতে দেখা যায় শিক্ষকদের।


মিছিল পরবর্তী সমাবেশে সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম পাপ্পু বলেন, বর্তমান উপাচার্য তার পদকে কলঙ্কিত করেছেন। উপাচার্য পদে তাকে আর আমরা দেখতে চাই না। আমরা জেনেছি প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, উপাচার্যের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ প্রমাণ করতে না পারলে আন্দোলনকারীদের শাস্তির আওতায় আনা হবে। কিন্তু উপাচার্যের দুর্নীতি প্রমাণ করার দায়িত্ব আমাদের নয়। বিভিন্ন দৈনিক পত্রিকায় তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির তথ্য প্রকাশিত হয়েছে। যদি এটা মিথ্যা হতো তবে তিনি কেন মানহানির মামলা করেননি? কারণ তিনি দুর্নীতি করেছেন এটা তিনি জানেন। আমরা বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি করেছিলাম। কিন্তু কোনো তদন্ত হয়নি। আমরা প্রধানমন্ত্রীকে বলতে চাই, আপনি কমিশন গঠন করে তদন্ত করুন। দুর্নীতিবাজ উপাচার্যকে অপসারণ করুন।



সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট (মার্ক্সবাদী) জাবি শাখার সভাপতি মাহাথির মুহাম্মদ বলেন, আমরা নিয়মতান্ত্রিক উপায়ে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছি। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যতই হামলা করুক আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাবো। হল বন্ধ করেছে প্রশাসন, বিশ্ববিদ্যালয় আঙিনায় প্রবেশ নিষিদ্ধ করেছে কিন্তু আমরা এই নিষেধাজ্ঞা মানি না। আমাদের ক্যাম্পাসে আমরা থাকবোই, আমরা হলেই থাকবো। আমাদের আন্দোলন দমানো যাবে না কোনোভাবেই।


প্রসঙ্গত, হল ছাড়ার নির্দেশের পর বুধবার প্রশাসন বিশ্ববিদ্যালয় আঙিনায় সকল ছাত্রের প্রবেশের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন। পুরো বিশ্ববিদ্যালয়ে নিরাপত্তার স্বার্থে তিনশতাধিক পুলিশ নিয়োগ করা হয়েছে। কিন্তু সকল নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে হলে অবস্থানসহ আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে শিক্ষার্থীরা।


বিবার্তা/শিহাব/জহির

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক : বাণী ইয়াসমিন হাসি

ময়মনসিংহ রোড, শাহবাগ, ঢাকা-১০০০

ফোন : ০২-৮১৪৪৯৬০, মোবা. ০১৯৭২১৫১১১৫

Email: [email protected], [email protected]

© 2016 all rights reserved to www.bbarta24.net Developed By: Orangebd.com